"বুলবুল"-এর জেরে ক্ষতিগ্রস্ত বাংলার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখবেন বাবুল সুপ্রিয়

Cyclone Bulbul: মুখ্যমন্ত্রী সোমবার জেলার ঘূর্ণিঝড় বিধ্বস্ত অঞ্চলগুলিতে আকাশপথে সমীক্ষা চালিয়ে মৃতদের পরিবার পিছু দু'লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করেছেন

ঘূর্ণিঝড় Bulbul-এর পর কতটা ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে রাজ্যের তা পর্যবেক্ষণ করবেন Babul Supriyo

"বুলবুল"-এর জেরে ক্ষতিগ্রস্ত বাংলার (West Bengal) পরিস্থিতি খতিয়ে দেখবেন বাবুল সুপ্রিয় (Babul Supriyo)। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জানান, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তাঁকে বুধবার পশ্চিমবঙ্গে ঘূর্ণিঝড় "বুলবুল"-এর (Bulbul) ফলে ক্ষতিগ্রস্থ অঞ্চলগুলি পর্যবেক্ষণের জন্য বলেছেন। তিনি বলেছেন যে, কেন্দ্রীয় সরকারের হয়ে তাঁর এই সফর পশ্চিমবঙ্গ সরকার কী ত্রাণ কাজ করছে তা পরিদর্শন করা নয়, বরং রাজ্য থেকে নির্বাচিত একজন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও সাংসদ হিসাবে রাজ্যের মানুষের পাশে থাকার জন্যে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখা। তিনি তাঁর এই সফরকে নিয়ে ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেসের নেতাদের "রাজনীতি না করার" বিষয়ে অনুরোধ করেন। "আমাকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ঘূর্ণিঝড়ের পর ক্ষতিগ্রস্ত বাংলার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখার জন্যে নির্দেশ দিয়েছেন । ঘূর্ণিঝড় ক্ষতিগ্রস্থ অঞ্চলগুলিতে এটা কোনও রাজনৈতিক সফর নয়। ঘূর্ণিঝড় (Cyclone Bulbul) পরবর্তী পরিস্থিতি খতিয়ে দেখার জন্য একদমই সাধারণ সফর হবে এটা", সংবাদসংস্থা পিটিআইকে ফোনে জানান বাবুল সুপ্রিয়। "আমি ঘূর্ণিঝড়ের পরবর্তী পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে নামখানা ও বকখালি অঞ্চলে যাব", বলেন তিনি ।

বুলবুলের প্রভাবে রাজ্যের ক্ষতির পরিমাণ ছুঁতে পারে ১৯,০০০ কোটি টাকা

ইতিমধ্যেই মঙ্গলবার বিজেপির দুটি প্রতিনিধি দল কাকদ্বীপ এবং নামখানায় ঘূর্ণিঝড় ক্ষতিগ্রস্থ অঞ্চলগুলি পরিদর্শন করেছে। পাশাপাশি তাঁরা কথা বলেছেন ক্ষতিগ্রস্থ অঞ্চলের মানুষজনের সঙ্গেও। তাঁরা কী ত্রাণ সাহায্য পাচ্ছেন সে বিষয়েও খোঁজখবর নেয় বিজেপির প্রতিনিধি দল।। বিজেপি নেতারা জানিয়েছেন যে তাঁরা এই পরিদর্শনের বিস্তারিত রিপোর্ট দিল্লিতে দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কাছে জমা দেবেন।
এদিকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ দুজনেই রবিবার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ঘূর্ণিঝড় পরবর্তী পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলেছিলেন এবং রাজ্য সরকারকে সবরকম সহায়তার আশ্বাসও দিয়েছেন বলে দাবি করেন বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়।

Cyclone Bulbul: ত্রাণ বিলির জন্য টাস্ক ফোর্স গঠন করলেন মুখ্যমন্ত্রী

তৃণমূল নেতৃত্ব অবশ্য বলেছে, কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর এই সফরের উদ্দেশ্য আসলে কেবল ত্রাণকে হাতিয়ার করে প্রচারের রাজনীতি করা। তৃণমূল সাংসদ ও দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার জেলা সভাপতি সুভাশিস চক্রবর্তী বলেন, "সুপ্রিয়ের এই সফরের উদ্দেশ্য কেবল ত্রাণকে কেন্দ্র করে প্রচারের রাজনীতি করা। আমাদের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইতিমধ্যে ওই সব অঞ্চলগুলি পরিদর্শন করেছেন এবং ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মসূচি বিষয়ে সবরকম সহায়তার নির্দেশ দিয়েছেন"।

শনিবার রাতে দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলায় আছড়ে পড়ে ঘূর্ণিঝড় "বুলবুল" এবং ওই ভয়ঙ্কর ঝড়ের জেরে হওয়া প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে রাজ্যে মৃত্যু হয় ১৪ জনের। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সোমবার জেলার ঘূর্ণিঝড় বিধ্বস্ত অঞ্চলগুলির বিষয়ে আকাশপথে সমীক্ষা চালিয়ে মৃতদের পরিবার পিছু দু'লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করেছেন। তীব্র ঘূর্ণিঝড় "বুলবুল"-এর জেরে প্রভাবিত হয় নামখানা, বকখালি, ফ্রেজারগঞ্জ ও সুন্দরবন অঞ্চল। এ রাজ্যে ধ্বংসলীলা চালিয়ে বুলবুল বাংলাদেশের দিকে ঘুরে যায়।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)
More News