This Article is From Jul 10, 2020

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সহ তৃণমূলের মন্ত্রীরাই মানছেন না লকডাউন: দিলীপ ঘোষ

বিজেপির রাজ্য সভাপতি বলেন, রাজ্যে করোনা আক্রান্তের বাড়বাড়ন্তের অন্যতম কারণ মুখ্যমন্ত্রী সহ তৃণমূলের অন্য মন্ত্রীদের লকডাউনের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করা

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সহ তৃণমূলের মন্ত্রীরাই মানছেন না লকডাউন: দিলীপ ঘোষ

West Bengal: মুখ্যমন্ত্রী নিজেই লকডাউনের নিষেধাজ্ঞাগুলো মানছেন না, অভিযোগ দিলীপ ঘোষের

হাইলাইটস

  • রাজ্যের করোনা পরিস্থিতির অবনতির কারণ হিসাবে রাজ্য সরকারকেই দুষলো বিজেপি
  • মুখ্যমন্ত্রী ও অন্যান্য মন্ত্রীরাই লকডাউন মানছেন না, অভিযোগ দিলীপ ঘোষের
  • খুব তাড়াতাড়ি রাজ্যে দৈনিক ৩,০০০ জন করে করোনা আক্রান্ত হবে, আশঙ্কা তাঁর
কলকাতা:

পশ্চিমবঙ্গে (West Bengal) কোভিড রোগীদের ক্রমশ সংখ্যাবৃদ্ধির কারণ হিসাবে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস সহ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঢিলেঢালা মনোভাবকেই দায়ী করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি (Dilip Ghosh) বলেন, যেভাবে মুখ্যমন্ত্রী (Mamata Banerjee) সহ তৃণমূলের (TMC) অন্যান্য মন্ত্রীরা লকডাউনের বিধিনিষেধ অমান্য করছেন তা সাধারণ মানুষের মধ্যেও প্রভাব ফেলছে, তাই তাঁরাও করোনা সংক্রমণ এড়াতে জারি করা নিষেধাজ্ঞাগুলো (Coronavirus Lockdown Rules) মেনে চলছেন না। রাজ্যের গেরুয়া দলের সভাপতি বলেন, "গত তিন মাসে বাংলায় লকডাউন ঠিক ভাবে কোথায় কোথায় কার্যকর হয়েছিল? মুখ্যমন্ত্রী এবং তাঁর মন্ত্রীরাও কি লকডাউনের বিধিনিষেধ মেনে চলেছেন? " তিনি আরও বলেন যে, যদিও পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফে আলাদা করে কয়েকটি জায়গাকে কন্টেনমেন্ট জোন হিসাবে ঘোষণা করা হলেও, মুখ্যমন্ত্রী নিজে সেই নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করেছেন। ফলে আমজনতাও তা দেখে উৎসাহিত হয়ে ইচ্ছেমতো সবকিছু করছে এবং লকডাউনের নিয়ম লঙ্ঘন করেছে, একথাও বলেন দিলীপ ঘোষ।

একদিনে রাজ্যে সংক্রমিত ১০৮৮ জন, মোট সংক্রমিত ২৫,৯১১

রাজ্য বিজেপি সভাপতি আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, "এখন, প্রতিদিনের সংক্রমণের হার ১,০০০ ছাড়িয়ে গেছে; খুব তাড়াতাড়ি এটা ৩,০০০-ও ছাড়িয়ে যাবে"।

জনসংখ্যার বিচারে দেশে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে! প্রতি মিলিয়নে সংক্রমিত ৫৩৮: স্বাস্থ্য মন্ত্রক

করোনা মহামারীর পরিস্থিতিতে তাই সমস্ত বিজেপি কর্মীদের যেকোনও ধরণের রাজনৈতিক কর্মসূচি বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি, দাবি দিলীপ ঘোষের।

রাজ্যে করোনা সংক্রমণের দ্রুতহারে বৃদ্ধি লক্ষ্য করে বৃহস্পতিবার থেকে আবার রাজ্যের সমস্ত কনটেনমেন্ট জোনে ৭ দিনের জন্যে কড়া লকডাউন জারি করার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার মুখ্যমন্ত্রী বলেন, এই লকডাউন এক সপ্তাহ জারি থাকার পর পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। যাঁরা লকডাউনের নিয়ম মানবেন না তাঁদের কড়া হাতে মোকাবিলা করার জন্যেও পুলিশ প্রশাসনকে নির্দেশ দেন তিনি।

এদিকে বৃহস্পতিবার রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতর যে পরিসংখ্যান প্রকাশ করেছে তাতে দেখা যাচ্ছে, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ১০৮৮ জন। পশ্চিমবঙ্গে সব মিলিয়ে মোট সংক্রমিত ২৫,৯১১ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত ৮৫৪ জন। এই সংখ্যা ধরে রাজ্যে মোট মৃত ২৭৭৭ জন। স্বাস্থ্য দফতর থেকে এই তথ্য বৃহস্পতিবার দেওয়া হয়েছে। জানা গিয়েছে, রাজ্যে মোট সক্রিয় সংক্রমণ ৮২৩১, নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১০, ৮৩৫ জনের। মোট ৫ লক্ষ ৮৩ হাজার ৩২৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। জেলাভিত্তিক সংক্রমণে কলকাতায় একদিনে সংক্রমিত ৩২২ জন। হাওড়ায় ১৬৭ জন। উত্তর ২৪ পরগনায় ২৬৪ জন, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৮৮ জন আর হুগলিতে ৫৩ জন।