নিজের মেয়েকে অপহরণের অভিযোগে গ্রেফতার বিজেপি নেতা সহ তিন

বৃহস্পতিবার বন্দুক দেখিয়ে সুপ্রভাত বটব্যালের মেয়েকে অপহরণ করা হয়, তাঁকে উত্তর দিনাজপুর থেকে “উদ্ধার” করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ওই পুলিশ আধিকারিক।

নিজের মেয়েকে অপহরণের অভিযোগে গ্রেফতার বিজেপি নেতা সহ তিন

বৃহস্পতিবার বন্দুক দেখিয়ে সুপ্রভাত বটব্যালের মেয়েকে অপহরণ করা হয় (ছবি: প্রতীকি)

লাভপুর:

মেয়ের অপহরণের সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে বিজেপি নেতা সুপ্রভাত বটব্যাল সহ আরও তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ, একথা জানিয়েছে এক পুলিশ আধিকারিক।

বৃহস্পতিবার বন্দুক দেখিয়ে সুপ্রভাত বটব্যালের মেয়েকে অপহরণ করা হয়, তাঁকে উত্তর দিনাজপুর থেকে “উদ্ধার” করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ওই পুলিশ আধিকারিক।

তিনি জানিয়েছেন, উত্তর দিনাজপুর জেলা পুলিশের সঙ্গে যৌথ অভিযান চালিয়ে ডালখোলা রেলস্টেশন থেকে রবিবার সকালে তরুণীকে খুঁজে বের করা হয়। ওই পুলিশ আধিকারিক আরও জানিয়েছেন, প্রাথমিক তদন্তে কিডন্যাপিং-এ জড়িত থাকার ইঙ্গিত পাওয়ার পরেই সুপ্রভাত বটব্যাল এবং তাঁর দুই সঙ্গীকে গ্রেফতার করা হয়।

সংবাদসংস্থা পিটিআইকে বীরভূম জেলা পুলিশ সুপার শ্যাং সিং বলেন, “আজ সকালে আমরা মেয়েটিকে ডালখোলা থেকে উদ্ধার করেছি। তিনি ভালো আছেন, এবং কী ঘটেছিল তা জানার জন্য আমরা তাঁর সঙ্গে কথা বলছি”।

বীরভূমের বিজেপি নেতার মেয়েকে বন্দুক দেখিয়ে অপহরণের অভিযোগ, খোঁজ মিলল না দু'দিন বাদেও

অপহরণের উদ্দেশ্য সম্পর্কে জিজ্ঞেস করা হলে পুলিশ সুপার বলেন, “এর দুটো কারণ থাকতে পারে।একটা পারিবারিক সমস্যা রয়েছে, রাজনৈতিক লাভের জন্য এটা করা হতে পারে। আমরা ঘটনার তদন্ত করছি। আমরা তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদ চালাচ্ছি”।

পাঁচ মাস আগে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন সুপ্রভাত বটব্যাল, শনিবার রাতে তাঁকে আটক করা হয়। জেলা পুলিশের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, তাঁকে জিজ্ঞাসা করেই তাঁর মেয়ের সন্ধান পাওয়া যায়।

তৃণমূলে যোগ দেওয়ার আগে, সিপিএমের জেলা কমিটির সদস্য ছিলেন সুপ্রভাত বটব্যাল।

মৃত্যু ভয় পাচ্ছেন কি? বিধায়ক থেকে নেতাদের কাছে প্রশ্ন তৃণমূল নেতৃত্বের

তাঁর মেয়েকে অপহরণের খবরে লাভপুরে উত্তেজনা দেখা দেয়।তিনদিন অবরোধ করা হয় সিউড়ি-কাটোয়া রাস্তা।

শনিবার তৃণমূল বিধায়ক মনিরুল ইসলামের গাড়ি ধাওয়া করে উত্তেজিত জনতা, থানায় গিয়ে আশ্রয় নেন তিনি।পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে লাঠিচার্জ করে পুলিশ।

বিজেপির জেলা নেতৃত্বের অভিযোগ, অপহরণের নেপথ্যে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা।