“বিদেশে রইলে বাংলাকে জানবেন কীভাবে?” অমর্ত্য সেনকে আক্রমণ দিলীপ ঘোষের

দিলীপ ঘোষ অবশ্য তাঁর স্বভাবচিত ভঙ্গিতেই আক্রমণ করেছেন অমর্ত্য তথা দেশের বিরোধী মতের চিন্তকদের।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
“বিদেশে রইলে বাংলাকে জানবেন কীভাবে?” অমর্ত্য সেনকে আক্রমণ দিলীপ ঘোষের
কলকাতা: 

বিদেশে থাকলে আর রাজ্যের হাল হকিকত কীভাবে জানবেন! প্রখ্যাত নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেনকে (Nobel laureate Amartya Sen) শনিবার এই ভাষাতেই আক্রমণ করলেন পশ্চিমবঙ্গ বিজেপির প্রধান দিলীপ ঘোষ (West Bengal BJP chief Dilip Ghosh)। নোবেল পুরস্কার বিজয়ী অমর্ত্য সেন শুক্রবারই যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘জয় শ্রী রাম' (Jai Shri Ram) স্লোগান নিয়ে মন্তব্য করেন, এর পরেই তাঁকে লাগাতার আক্রমণ করতে থাকেন দিলীপ ঘোষ। দিলীপের কথায়, অর্থনীতিবিদ বিদেশেই থাকেন, তাই রাজ্যের বিষয়ে তিনি মোটেও সচেতন নন। এখানেই শেষ নয়, পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি কর্মীদের হত্যার ঘটনা ঘটলেই বুদ্ধিজীবীরা অন্ধ হয়ে যান এমনও অভিযোগ করেছেন তিনি। 

“মানুষ মারার অস্ত্র হয়ে উঠেছে জয় শ্রী রাম”; কলকাতায় বললেন অমর্ত্য সেন

দিলীপ ঘোষ বলেন, "অমর্ত্য সেন বিদেশে থাকেন, উনি এই রাজ্যের অন্দরের খবর সম্পর্কে সচেতন নন। উনি বিদেশে থাকলেই সবার জন্য ভালো।” যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে অমর্ত্য সেন (Nobel laureate Amartya Sen) বলেন, ‘মা দুর্গা'র সঙ্গে ‘জয় শ্রী রাম' ধ্বনির আকাশ পাতাল ফারাক! বাঙালি সংস্কৃতির সঙ্গে ‘জয় শ্রী রাম' কোনওভাবেই যুক্ত নয় এবং এই স্লোগান এখন মানুষকে মারার অস্ত্র হয়ে উঠেছে।

সারা দেশের নানা প্রান্ত থেকেই নিত্যদিন এমন নানা ঘটনা উঠে আসছে, যেখানে বিজেপির ‘জয় শ্রী রাম' স্লোগান বলতে না চাইলে মানুষকে পিটিয়ে মেরে ফেলছে একদল বিশেষ রাজনৈতিক মতাবলম্বী মানুষ। এই সার্বিক বিষয়ের প্রেক্ষিতেই মন্তব্য করেন অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন। 

ভোটব্যাঙ্ক বাঁচাতে সংখ্যালঘু তোষণ করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়: বিশ্ব হিন্দু পরিষদ নেতা

দিলীপ ঘোষ অবশ্য তাঁর স্বভাবচিত ভঙ্গিতেই আক্রমণ করেছেন অমর্ত্য তথা দেশের বিরোধী মতের চিন্তকদের। তিনি বলেন, “কয়েকজন বুদ্ধিজীবী আছেন যারা বলছেন যে, ‘জয় শ্রী রাম' একটি রাজনৈতিক স্লোগান যা জনগণকে পিটিয়ে মারার জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে। কিন্তু সত্যিটা হল, পশ্চিমবাংলায় ‘জয়' শ্রী রাম' বললেই আমাদের কর্মীদের খুন করা হচ্ছে।”

দেশের রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ডের তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের স্থান সবার উপরে বলে দাবি করে রাজ্য বিজেপির প্রধান বলেন, রাজ্যের বুদ্ধিজীবিরা এই ধরনের ঘটনাগুলি থেকে নজর সরিয়ে রেখেছেন। “কেন তাঁরা (বুদ্ধিজীবীরা) রাজনৈতিক হত্যার বিষয়ে নীরব? আসল কথাটা হল, তাঁরা নিরপেক্ষভাবে কাজই করতে পারেন না এবং বিজেপির বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্ব করছেন সকলে”, বলেন দিলীপ ঘোষ।

বরিষ্ঠ তৃণমূল নেতা ও রাজ্যের মন্ত্রী পূর্ণেন্দু বসু (TMC leader and state minister Purnendu Bose) অবশ্য বলছেন, বিজেপি রাজ্যের রাজনৈতিক কর্মসূচির পরিপ্রেক্ষিতেই ‘জয় শ্রী রাম' স্লোগান ব্যবহার করছে। তাঁর কথায়, ‘জয় শ্রী রাম' স্লোগানের সঙ্গে ধর্মের কোনও যোগ নেই। এটি একটি রাজনৈতিক স্লোগান যা বিজেপি তাদের উদ্দেশ্য চরিতার্থ করতেই ব্যবহার করছে।”



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)


পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................