‘৩১শে অগস্টের মধ্যেই চাই’, এনআরসি তালিকা প্রকাশের সময়সীমা নিয়ে অনড় সুপ্রিম কোর্ট

কোনও রকম ভ্রান্তি ছাড়াই সেই প্রক্রিয়া দ্রুত করার কথাও অসম সরকারকে মনে করিয়ে দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের (Supreme Court) প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ (Ranjan Gogoi)।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
‘৩১শে অগস্টের মধ্যেই চাই’, এনআরসি তালিকা প্রকাশের সময়সীমা নিয়ে অনড় সুপ্রিম কোর্ট

Many people said they were informed about the re-verification process at the last minute.


নয়াদিল্লি: 

৩১ আগস্টের মধ্যেই প্রকাশ করতে হবে চূড়ান্ত জাতীয় নাগরিক পঞ্জী বা নআরসি-র (NRC) তালিকা। কোনও রকম ভ্রান্তি ছাড়াই সেই প্রক্রিয়া দ্রুত করার কথাও অসম সরকারকে মনে করিয়ে দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের (Supreme Court) প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ (Ranjan Gogoi)। এই তালিকা প্রকাশে যাতে খামতি না তাকে তার জন্য প্রশাসনকেই দায়িত্ব নেওয়ারও পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। দেশের শীর্ষ আদালতের প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘এনআরসি (NRC) তালিকা চূড়ান্ত করতে গিয়ে বিভিন্ন জায়গা থেকে বাধা আসতে পারে। প্রতিদিন সকালে আমাদের রায় নিয়ে সমালোচনা করার কোন শেষ থাকবে না। আমাদের আদেশ, কাজ এবং রায় নিয়ে প্রতিবারই বিতর্কিত হয়। আমরা সেই বিতর্কে প্রবেশ করতে রাজি নই... যারা এইসব করতে চান তাদের তাই করতে দেওয়া হোক। তবে আমরা চেয়েছি এনআরসি-র চূড়ান্ত তালিকা ৩১ অগস্টের মধ্যে প্রকাশিত হোক।'

এনআরসি (NRC)সমন্বয়কারী অফিসারকে এদিন সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে তিনি যেন একটি নোট রাখেন এই ইস্যুতে ওঠা বিভিন্ন বিতর্কিত বিষয়ে। যা আগামী মঙ্গলবার পাস করা যেতে পারে।

গত ২৩ জুলাই সুপ্রিম কোর্ট চূড়ান্ত এনআরসি (NRC) তালিকা প্রকাশের সময়সীমা একমাস বাড়িয়ে দেয়। ফলে, স্বীকৃত নাগরিক তালিকা প্রকাশিত হবে ৩১ অগস্টে। গত ১৯ জুলাই এনআরসির রাজ্য কো-অর্ডিনেটর প্রতীক হাজেলা অসমের ভয়াবহ বন্যার প্রেক্ষিতে মেয়াদবৃদ্ধির আবেদন করেন। এছাড়াও বাংলাদেশ সংলগ্ন জেলাগুলিতে এনআরসি ভুক্ত নামের মধ্যে ২০ শতাংশের এবং অন্য জেলাগুলির ১০ শতাংশ নামের পুনর্যাচাইয়ের আবেদন করে কেন্দ্র ও অসম সরকার। সরকারের বক্তব্য ছিল এনআরসি আপডেট করার সময় বেশ কিছু নাম ভুলক্রমে বাদ পড়েছে, বেশ কিছু নাম ভুলক্রমে তালিকাভুক্তও হয়ে পড়েছে, ফলে সংশয় এড়াতে পুনর্যাচাই প্রয়োজনীয়।

এছাড়াও, নাগরিক সমাজের একাংশ ও বিরোধী কংগ্রেস এনআরসি (NRC) নিয়ে প্রধান বিচারপতিকে চিঠি লেখেন। এনআরসি-তে পুনর্যাচাইয়ের যে নোটিশ দেওয়া হয়েছে তার সময় কম। যা নিয়ে মানুষের মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে। পুনর্যাচাইয়ের কেন্দ্রগুলো বিভিন্ন গ্রাম থেকে প্রায ৫০০-৬০০ কিলোমিটার দূরে। সেখানে যাওয়ার জন্য হুড়োহুড়ি পড়ে যায়। ফলে, জোড়াহাট, চরাইদেও, শিবাসাগর ও গোলাঘাট অঞ্চলে পথ দুর্ঘটনার সংখ্যা বেড়ে গিয়েছে।

সুপ্রিম কোর্টের তত্ত্বাবধানে গত ৪ বছর ধরে এনআরসি (NRC) প্রক্রিয়া চলছে। তালিকা প্রকাশের সময়সীমা বারংবার বাড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। ৩১ অগাস্টের যে তারিখ এবার দেওয়া হয়েছে, তার আগে একটি আংশিক খসড়া এবং একটি পূর্ণাঙ্গ খসড়া প্রকাশিত হয়েছে যথাক্রমে ২০১৮ সালের ১ জানুয়ারি ও ২০১৮ সালের ৩০ জুলাইয়ে। মোট ৩.২৯ কোটি মানুষ এনআরসি তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্তির আবেদন করেছিলেন। এর মধ্যে ৪০.৭ লক্ষের নাম বাদ গিয়েছে চূড়ান্ত খসড়া থেকে। এর পর গত ২৬ জুলাই প্রকাশিত তালিকা থেকে আরও এক লক্ষ নাম বাদ যায়, যে নামগুলি ৩০ জুলাই, ২০১৮র তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল। যাঁদের নাম বাদ গিয়েছে তাঁদের ফের আবেদন করার সুযোগ দেওয়া হয়। 



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................