Viral: ভোরে স্কুলে যেতে অনীহা, ছোট্ট মেয়ের দাবি, ‘‘মোদিজিকে একবার তো হারাতেই হবে’’

Viral: রাগত স্বরে ছোট্ট মেয়েটি বলে ওঠে, ‘‘মোদিজিকে একবার তো হারাতেই হবে।’’ তার এমন কথা শুনে সকলে উঁচু স্বরে হেসে ওঠে।

Viral: ভোরে স্কুলে যেতে অনীহা, ছোট্ট মেয়ের দাবি, ‘‘মোদিজিকে একবার তো হারাতেই হবে’’

প্রতিদিন সকাল ছ’টায় ঘুম থেকে উঠতে হয় বলে বিরক্ত এই ছোট্ট কন্যা।

সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social Media) একটি ভিডিও দ্রুতগতিতে ভাইরাল (Viral Video) হয়েছে। এক ছ'বছরের শিশুকন্যাকে সেই ভিডিওয় দেখা গিয়েছে। তার সমস্যা, তাকে প্রতিদিন সকাল ছ'টায় ঘুম থেকে উঠে স্কুলে যেতে হয়। ওই ভিডিওয় তাকে বলতে শোনা যাচ্ছে, সে চায় শিক্ষা ব্যবস্থার পরিবর্তন হোক! এতটাই বিরক্ত সে সকালে উঠে স্কুলে যাওয়ার কারণে। এখানেই শেষ নয়। এই ব্যবস্থা যারা তৈরি করেছে তাদেরও একবার দেখে নিতে চায় ছোট্ট মেয়েটি। দিতে চায় শাস্তি। টুইটারে ভিডিওটি শেয়ার করেছেন‌ পুলিশ আধিকারিক অরুণ বোথরা। ভিডিওটি শেয়ার করার সময় তিনি লেখেন, ‘‘এই পৃথিবীতে স্কুল যিনি শুরু করেছেন সেই ব্যক্তি বড়ই বিপদে পড়েছেন। এই মেয়েটি তাঁকে খুঁজছে।''

স্কুল যিনি তৈরি করেছেন, তাঁকে সামনে পেলে সে কী করবে? এই প্রশ্নের উত্তরে একরত্তির উত্তর, ‘‘আমি তাকে ধুয়ে জলে দুবিয়ে ইস্ত্রি করে দেব!''

গৃহপরিচারিকাও এখন প্রফেশনাল,বিজনেস কার্ড দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় কাজ খুঁজছেন

এরপর তার থেকে জানতে চাওয়া হয়, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে সে কী বলতে চায়? এই কথা শুনে রাগত স্বরে ছোট্ট মেয়েটি বলে ওঠে, ‘‘মোদিজিকে একবার তো হারাতেই হবে।'' তার এমন কথা শুনে সকলে উঁচু স্বরে হেসে ওঠে।

দেখুন ভিডিও: 

মেয়েটির অভিযোগ রয়েছে ঈশ্বরের প্রতিও। তার নালিশ, ভগবান কেন পড়াশোনা ব্যাপারটাকে আরও সু‌ন্দর করে বানালেন না। ভিডিওতে ওই শিশুকন্যাকে বলতে শোনা যায়, ‘‘ভগবান পৃথিবী এক সুন্দর বানিয়েছেন। কেবল পড়াশোনা ব্যাপারটাই কেন এত বিচ্ছিরি করে বানিয়েছেন? একটু ভালও তো বানাতে পারতেন। আমারও তাহলে একটু মজা হত।''

সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকই মেয়েটির এই দৃষ্টিভঙ্গির সঙ্গে একমত হয়ে জানিয়েছেন, শিক্ষা ব্যবস্থাকে আবারও নতুন করে গড়ে তোলা উচিত।

মালা বদলের সময় বরের উদ্দাম নাগিন ডান্স! কলেজছুট পাত্রের সঙ্গে বিয়ে ভেস্তে দিলেন কনে

ওই ভিডিও অনেকেই শেয়ার করেছেন। রইল তারই কয়েকটি।

More News