This Article is From Aug 23, 2018

প্রয়াত সাংবাদিক কুলদীপ নায়ার, শোকপ্রকাশ করলেন মমতা

সাংবাদিক হিসেবে নিজের কেরিয়ার শুরু করেন একটি উর্দু ভাষার পত্রিকার রিপোর্টার হিসেবে। পরে, ‘দ্য স্টেটসম্যান’ সংবাদপত্রের দিল্লি সংস্করণের সম্পাদক হন।

প্রয়াত সাংবাদিক কুলদীপ নায়ার, শোকপ্রকাশ করলেন মমতা

14’টি ভাষার 80’টিরও বেশি সংবাদপত্রে লিখেছেন তিনি।

নিউ দিল্লি:

বিখ্যাত সাংবাদিক, সমাজকর্মী, প্রাক্তন হাই কমিশনার, প্রাক্তন রাজ্যসভার সদস্য কুলদীপ নায়ার প্রয়াত হলেন আজ সকালে। তাঁর বয়স হয়েছিল 95 বছর। 1923 সালের অগস্ট মাসেই জন্ম হয়েছিল তাঁর। চলে গেলেন সেই অগস্টেই। রেখে গেলেন দৃপ্ত ও নির্ভীক সাংবাদিকতার এক সনাতনী ঐতিহ্যকে। সাংবাদিক হিসেবে নিজের কেরিয়ার শুরু করেন একটি উর্দু ভাষার পত্রিকার রিপোর্টার হিসেবে। পরে, ‘দ্য স্টেটসম্যান’ সংবাদপত্রের দিল্লি সংস্করণের সম্পাদক হন। মানবাধিকার ও শান্তিকর্মী হিসেবেও তাঁর অবদান উল্লেখযোগ্য। 14’টি ভাষার 80’টিরও বেশি সংবাদপত্রে লিখেছেন তিনি। 2010 সালের ফেব্রুয়ারি মাসে পাকিস্তানের ‘ডন’ পত্রিকায় লেখা একটি নিবন্ধে তিনিই প্রথম ভারতের জঙ্গিদমন স্কোয়াডের প্রধান হেমন্ত কারকারের মৃত্যুর ঘটনায় ডানপন্থী হিন্দুদের এক ভারতীয় সংগঠনকে সরাসরি দায়ী করে তুমুল বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন। ‘ইন্ডিয়া আফটার নেহরু’র লেখক কোনওদিনই সাংবাদিক হিসেবে মেরুদণ্ডটি দৃঢ় রাখতে ভয় পাননি।

তাঁর মৃত্যুর খবর পাওয়ার পরই দেশের সাংবাদিকমহল এবং রাজনৈতিকমহলে নেমে আসে শোকের কালো ছায়া। শোকপ্রকাশ করেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। তিনি টুইট করে বলেন, “বর্ষীয়ান সাংবাদিক কুলদীপ নায়ারের মৃত্যুর কথা শুনে আমি গভীরভাবে শোকাহত। তাঁর পরিবার, সহকর্মী ও কাছের মানুষদের প্রতি আমার সমবেদনা রইল।”

দিল্লির বহু নামকরা সংবাদপত্রে এক সময় সম্পাদকের দায়িত্ব সামলেছেন তিনি। তাঁর প্রয়াণের সঙ্গে প্রকৃত অর্থেই শেষ হয়ে গেল সাংবাদিকতার এক তীক্ষ্ণ অধ্যায়।