This Article is From Feb 15, 2020

"জীবনে প্রেম করে বিয়ে করব না!" ভালোবাসার দিনে কঠোর প্রতিজ্ঞা করলেন মারাঠা ছাত্রীরা

“আম শপথ করছি যে আমার বাবা-মায়ের প্রতি আমার সম্পূর্ণ বিশ্বাস আছে এবং আমি প্রেমে পড়ব না এবং প্রেম করে বিয়ে করব না,” শপথবাক্যা আউড়ে বলেন পড়ুয়ারা। তারা আরও বলেন যে, বিয়েতে যৌতুক চাওয়া কোনও মানুষকেই তারা বিয়ে করবেন না।

Valentines Day 2020: "আমি প্রেমে পড়ব না এবং প্রেম করে বিয়ে করব না,” শপথবাক্য আউড়ে বলেন পড়ুয়ারা

হাইলাইটস

  • মহিলা আর্টস অ্যান্ড কমার্স কলেজের পড়ুয়ারা মারাঠি ভাষায় শপথ নেয়
  • বস্তুত ওয়ার্ধা জেলার হিঙ্গানঘাটের কাছে এক মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছিল
  • ২৪ বছর বয়সী এক অধ্যাপিকাকে এক ব্যক্তি গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয়
অমরাবতী:

ভালোবাসার দিনে (Valentine's Day) প্রেম না করার প্রতিজ্ঞা করে তাক লাগিয়ে দিলেন মহারাষ্ট্রের একটি গার্লস কলেজের পড়ুয়ারা। প্রেম করে বিয়ে! নৈব নৈব চ! চন্দুর রেলওয়ের মহিলা আর্টস অ্যান্ড কমার্স কলেজের (Mahila Arts and Commerce College) পড়ুয়ারা মারাঠি ভাষায় শপথ নেয় যে তারা “কারও সঙ্গে প্রেম করব না এবং কারও সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক থাকবে না এমনকী প্রেম করে বিয়েও করব না।”

“আম শপথ করছি যে আমার বাবা-মায়ের প্রতি আমার সম্পূর্ণ বিশ্বাস আছে এবং আমি প্রেমে পড়ব না এবং প্রেম করে বিয়ে করব না,” শপথবাক্য আউড়ে বলেন পড়ুয়ারা। তারা আরও বলেন যে, বিয়েতে যৌতুক চাওয়া কোনও মানুষকেই তারা বিয়ে করবেন না।

রীতিকা রাঙ্গারি নামে এক পড়ুয়া বলেন, “আমরা যে মানুষকেই ভালোবাসি না কেন সে আমাদের জন্য ভাল মানুষ হবে এবং স্বনির্ভর হতে হবে। প্রেমের ক্ষেত্রে পরিবারের কাছ থেকে পরামর্শ নেওয়া সবসময়ই ভাল।”

অন্য এক পড়ুয়া ভাবনা তায়েদ বলেন, “আমার মনে হয় যে, প্রেম করে বিয়ে করার দরকার কী? আমাদের বাবা-মা এই বিষয়গুলিতে সিদ্ধান্ত নেওয়ার পক্ষে যথেষ্ট। তারা আমাদের জন্য সবচেয়ে ভালোটাই করবেন।"

মহারাষ্ট্রের নারী ও শিশু কল্যাণ (Woman and Child Development minister Maharashtra) মন্ত্রী যশোমতি ঠাকুর (Yashomati Thakur) বলেন, “পড়ুয়ারা একটি অঙ্গীকার নিয়েছে যা নিশ্চয়ই কারও কাছে বাধ্যতামূলক নয়। কলেজ অবশ্যই তাদেরকে ওয়ার্ধার মতো ঘটনা সম্পর্কে সতর্ক করার প্রসঙ্গে এই প্রতিশ্রুতি নিতে বাধ্য করেছে।"

বস্তুত ওয়ার্ধা জেলার হিঙ্গানঘাটের কাছে এক মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছিল। ২৪ বছর বয়সী এক অধ্যাপিকাকে এক ব্যক্তি গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। ওই ব্যক্তি বেশ কিছুদিন ধরেই যুবতীকে প্রেম প্রস্তাব দিচ্ছিলেন। প্রত্যাখ্যাত হয়েই এই নির্মম প্রতিশোধ নেয় ওই যুবক। সোমবার মৃত্যু হয় যুবতীর।

গত ৩ ফেব্রুয়ারি হিঙ্গানঘাট অঞ্চলের কাছে মহারাষ্ট্রের ওয়ার্ধা জেলার ওই প্রত্যাখ্যাত প্রেমিক এই অধ্যাপিকার গায়ে আগুন লাগিয়ে দেয়। অবিবাহিত এই যুবতীর দেহের প্রায় ৪০ শতাংশ পুড়ে যায়। তাকে নাগপুরের এক হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়। সেখানেই পরে মৃত্যু হয় তাঁর।