দুর্ঘটনার পিছনে হাত অভিযুক্ত বিজেপি নেতার; দাবি উন্নাও ধর্ষণ কাণ্ডের নিগৃহীতার মায়ের

দুর্ঘটনা হলে গাড়ির নম্বর প্লেট কেন কালো কালিতে মুছে দেওয়া হল? পুলিশ জানাচ্ছে, সে বিষয়টা তদন্ত করতে গাড়ির চালক ও তার সহকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

রবিবার ওই নিগৃহীতা ও তার পরিবার গাড়ি করে যাওয়ার সময় বড় দুর্ঘটনার সম্মুখীন হয়।

উন্নাও:

উন্নাও ধর্ষণ কাণ্ডের (Unnao rape case) নিগৃহীতা এবং তার পরিবার উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) রায়বরেলি জেলায় একটি দুর্ঘটনার শিকার হয়েছে রবিবার। নিগৃহীতার মা অভিযোগ জানিয়েছেন, ধর্ষণ কাণ্ডে অভিযুক্ত বিজেপি বিধায়ক কুলদীপ সেঙ্গারই ওই দুর্ঘটনার সঙ্গে যুক্ত। রবিবার রায়বেরিলিতে ওই মেয়েটি এবং তার পরিবার দুর্ঘটনার সম্মুখীন হলে তাদের পরিবারের দু'জন মারা যান। নিগৃহীতা ও তার আইনজীবী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। রাজ্য পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে মেয়েটি এখন বিপন্মুক্ত। পাশাপাশি পুলিশের পক্ষে এও জানানো হয়েছে, প্রাথমিক তদন্ত থেকে অনুমান করা হচ্ছে এটা দুর্ঘটনাই। তবে মেয়েটির পরিবার চাইলে তারা সিবিআইকে তদন্তের ভার তুলে দিতে পারেন।

উত্তরপ্রদেশের বিধায়ক কুলদীপ বেঙ্গেরমাউ বিধানসভার চারবারের বিধায়ক। ২০১৭ সালে এক পঞ্চদশীকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে তাঁর বিরুদ্ধে। গত এক বছর তিনি জেলে বন্দি রয়েছেন।

উত্তরপ্রদেশে গাড়ি দুর্ঘটনায় আহত হলেন উন্নাও ধর্ষণ কাণ্ডের নিগৃহীতা

নিগৃহীতা কিশোরীর মা সাংবাদিকদের কাছে দাবি করেছেন, ‘‘আমি জানতে পেরেছি ওই বিধায়কই এটা ঘটিয়েছেন। তিনি জেলের মধ্যে আছেন, কিন্তু তাঁর কাছে ফোন রয়েছে (জেলের মধ্যে)। উনি জেলে বসেই সব কিছু করছেন। সেঙ্গার জেলে রয়েছেন ঠিকই, কিন্তু তাঁর অনুচররা নয়। উনি এবং ওঁর লোকেরা আমাদের ভয় দেখাচ্ছেন। আমরা ন্যায়বিচার চাই।''

595fha3k

লখনউ থেকে ৪৫ কিমি দূরে উন্নাওতে থাকে ওই পরিবার। পুলিশ জানিয়েছে, ওই নিগৃহীতা এবং তার পরিবার তার কাকার সঙ্গে রায়বরেলির জেলা কারাগারে দেখা করতে যাচ্ছিল। তার কাকা একটি ভিন্ন মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে দণ্ডিত। ভারী বৃষ্টি চলাকালীন তাদের গাড়িটি একটি ট্রাকের মুখোমুখি হলে ঘটে ওই দুর্ঘটনা।

ভয়ঙ্কর! ধর্ষণের পর ইঁট দিয়ে মাথা থেঁতলে খুন ১১ বছরের নাবালিকা

পরে দেখা যায়, ওই ট্রাকের নম্বর প্লেটটি কালো কালিতে ঢেকে দেওয়া। এদিকে মেয়েটিকে যে নিরাপত্তা দেওয়ার কথা সেটিও সে পাচ্ছে না বলে জানা গিয়েছে।

রাজ্য পুলিশ প্রধান ওপি সিংহ জানিয়েছেন, প্রাথমিক ভাবে মনে করা হচ্ছে এটা দুর্ঘটনাই। কিন্তু যদি ওই পরিবার সিবিআই তদন্ত চায় তাহলে তাঁরা মেয়েটির পরিবারকে সমর্থন করবেন।

কিন্তু দুর্ঘটনা হলে গাড়ির নম্বর প্লেট কেন কালো কালিতে মুছে দেওয়া হল? পুলিশ জানাচ্ছে, সে বিষয়টা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। গাড়ির চালক ও তার সহকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাঁদের কল রেকর্ড খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তিনি জানান, ‘‘প্রতিটি কোণ থেকেই তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। কিন্তু প্রাথমিক তদন্ত থেকে এটা দুর্ঘটনা বলেই মনে হচ্ছে।''

পাশাপাশি এই প্রশ্নও উঠছে, মেয়েটির সঙ্গে যে নিরাপত্তা কর্মী মোতায়েন করা হয়েছিল সেও কেন দায়িত্বে ছিল না? তবে পুলিশের দাবি তদন্ত থেকে তারা জানতে পেরেছে, মেয়েটির পরিবারই নিরাপত্তা রক্ষী নিয়ে চলার ব্যাপারটা প্রত্যাখ্যান করেছে।

এই ঘটনা নিয়ে সংসদেও ঝড় উঠেছে। রাজ্যসভার উচ্চ কক্ষ দুপুর পর্যন্ত মুলতুবি থাকে বিরোধীপক্ষের প্রতিবাদের ফলে।

bjp mla kuldeep sengar pti

২০১৭ সালের জুন মাসে এক আত্মীয়র সঙ্গে অভিযুক্ত বিধায়কের বাড়িতে চাকরির জন্য গেলে তাকে ধর্ষণ করেন অভিযুক্ত বিধায়ক।

এক বছর পরেও নানা জায়গায় আবেদনের পরে কোনও বিচার না পেয়ে ওই মেয়েটি ও তার মা মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের বাড়ির সামনে আত্মহত্যার চেষ্টা করলে বিষয়টি জাতীয় সংবাদমাধ্যমের নজরে আসে।

মেয়েটির বাবা ক'দিন পরে পুলিশের কাছে আটক থাকার সময় মারা যান। ময়না তদন্ত থেকে জানা যায়, তাঁকে প্রবল মারধর করা হয়েছিল। পরিবারের অভিযোগের আঙুল ওঠে কুলদীপের ভাই অতুলের দিকে।

সিবিআই আদালতকে জানায়, ২০১৭ সালের ৪ জুন মেয়েটিকে ধর্ষণ করেন ওই বিধায়ক। তাঁর বিরুদ্ধে খুন ও অপরাধমূ‌লক ষড়যন্ত্র এবং তাঁর ভাইয়ের বিরুদ্ধে খুনের মামলা রুজু করা হয়।

হাইলাইটস

  • নিগৃহীতার মায়ের অভিযোগ, এই দুর্ঘটনার পিছনেও অভিযুক্ত বিজেপি বিধায়কই
  • গত এক বছর ধরে জেলে বন্দি ওই বিধায়ক
  • নিগৃহীতার মায়ের অভিযোগ, জেলে বসেই চক্রান্তে লিপ্ত অভিযুক্ত
More News