মশা মারার পরও গুনতে হবে নাকি! জঙ্গি হামলা নিয়ে বিরোধীদের কটাক্ষ করে মন্তব্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর

পাক অধিকৃত কাশ্মীরের বালাকোটে ভারতীয় বায়ুসেনার স্টাইকে কত জন জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে  তা নিয়ে বিস্তর চর্চা শুরু হয়েছে। বিরোধী দলের নেতারা একাধিক ক্রমে এ নিয়ে  প্রশ্ন তুলেছেন।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
মশা মারার পরও গুনতে হবে নাকি! জঙ্গি হামলা নিয়ে  বিরোধীদের কটাক্ষ করে মন্তব্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর

অমিত শাহ বলে দিলেন স্ট্রাইকে ২৫০ জনেরও বেশি  জঙ্গিকে নিকেশ করা গিয়েছে।


নিউ দিল্লি: 

হাইলাইটস

  1. বায়ুসেনার স্টাইকে কত জন জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে তা নিয়ে বিস্তর চর্চা চলছে
  2. মন্ত্রী ভি কে সিং জঙ্গি মারার ঘটনাটিকে মশা মারার সঙ্গে তুলনা করলেন
  3. পর্যবেক্ষকদের দাবি কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর মন্তব্যের আসল উদ্দেশ বিরোধী দলগুলি

পাক অধিকৃত কাশ্মীরের বালাকোটে ভারতীয় বায়ুসেনার স্টাইকে (Air Strike )  কত জন জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে  তা নিয়ে বিস্তর চর্চা শুরু হয়েছে। বিরোধী দলের নেতারা একাধিক ক্রমে এ নিয়ে  প্রশ্ন তুলেছেন। শাসক দলের  নেতা-নেত্রীরাও জবাব দিচ্ছেন। বায়ুসেনার হানা নিয়ে  প্রশ্ন তোলায় বিরোধী শিবিরকে (Opposition)আক্রমণ করছেন প্রধানমন্ত্রী মোদীও  ( PM Modi) । আর এবার তাঁর  মন্ত্রিসভার সদস্য ভি কে সিং জঙ্গি  মারার ঘটনাটিকে  মশা মারার সঙ্গে  তুলনা করলেন। বললেন এখন  থেকে মশা মারলেও গুনে রাখতে হবে নাকি।  রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের দাবি কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর এই মন্তব্যের আসল উদ্দেশ বিরোধী দল গুলি।

সাহশ থাকলে আমার নামে মামলা করুন, মোদীর উদ্দেশ্যে তোপ দিগ্বিজয় সিং

আজ সকালে টুইটে মন্ত্রী লেখেন, ‘গতকাল রাত সাড়ে  তিনটে নাগাদ অনেক গুলি মশা আমাকে ঘিরে ধরে। তাদের তাড়াতে আমি হিট ব্যবাহার করলাম। এখন আমি কি গুনবো কত গুলি মশাকে মারলাম নাকি  ঘুমতে  চলে যাব। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা প্রাক্তন সেনা  প্রধান হিন্দি ভাষায় এই টুইটি করেছেন। এর আগে  স্ট্রাইক  প্রসঙ্গে  নীরবতা ভঙ্গ করেছেন আরও দুই  কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। প্রতিরক্ষা  মন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং এ নিয়ে মন্তব্য  করেন। নির্মলা বলেন, বিদেশ সচিব  ঘটনার ব্যাখ্যা  দিয়েছেন। সেটাই ভারতের বক্তব্য। আদতে বিদেশ সচিব বিজয় গোখলে মৃত জঙ্গির সংখ্যা নির্দিষ্ট করেননি। শুধু বলেছেন বড় সংখ্যক জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে।  অন্যদিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীও আক্রমণ করেছেন বিরোধীদের। তিনি বলেছেন,সরকারি সংস্থার রিপোর্ট বলছে জইশ ঘাঁটিতে  তিনশোটিরও বেশি মোবাইল চালু  ছিল।  সেগুলি কি তাহলে গাছেরা ব্যবহার করত?

এর আগে  বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ (Amit Shah) বলে দিলেন স্ট্রাইকে ২৫০ জনেরও বেশি  জঙ্গিকে নিকেশ করা গিয়েছে। তাঁর আগে  সরকার পক্ষের কেউ সংখ্যা নির্দিষ্ট করেননি। গুজরাটের সভা  থেকে গত রবিবার তিনি বলেন,  ‘উড়ি সেনা ছাউনিতে হামলার পর পাকিস্তানের ভেতরে ঢুকে হামলা করেছিলাম আমরা।  পুলওয়ামার হামলার পর সবাই ভাবছিল এবার আর বুঝি পাল্টা হামলা হবে না। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে হামলার ১৩ দিনের মধ্যেই এয়ার  স্ট্রাইক করা গিয়েছে। আর তাতে  ২৫০ জনেরও বেশি  জঙ্গির প্রাণ  গিয়েছে।'

 



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................