দায়িত্ব নিতে হবে নেতৃত্বকেই, নির্বাচনে পরাজয় সম্পর্কে মত কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতীন গড়করির

নির্বাচনে পরাজয়ের দায়িত্ব নিতে হবে নেতৃত্বকেই। এমনই মনে  করেন মোদী  মন্ত্রিসভার সদস্য তথা  বিজেপির প্রাক্তন সভাপতি  নীতীন গড়করি।

ব্যাঙ্কের সাফল্য এবং ব্যর্থতার সঙ্গে রাজনীতিকে মিলিয়ে  দেন কেন্দ্রীয়  মন্ত্রী।

হাইলাইটস

  • নির্বাচনে পরাজয়ের দায়িত্ব নিতে হবে নেতৃত্বকেই, মত নীতীন গড়করির
  • তিন রাজ্যে নির্বাচনী বিপর্যয়ের পর তিনি এই মন্তব্য করেন
  • ব্যাঙ্কের সাফল্য এবং ব্যর্থতার সঙ্গে রাজনীতিকে মিলিয়ে দেন নীতীন
Pune:

নির্বাচনে পরাজয়ের দায়িত্ব নিতে হবে নেতৃত্বকেই। এমনই মনে  করেন মোদী  মন্ত্রিসভার সদস্য তথা  বিজেপির প্রাক্তন সভাপতি  নীতীন গড়করি। তিন রাজ্যে  নির্বাচনী  বিপর্যয়ের পর তিনি এই মন্তব্য করেন। তাঁর মনে হয় সাফল্যকে যেভাবে গ্রহণ করা হয় সেভাবেই ব্যর্থতাকে স্বীকার করে নেওয়া উচিত। কিন্তু সেটা কেউ করে না। তিনি বলেন সাফল্য এলে কৃতিত্ব দাবি  করার জন্য লোকের অভাব  হয় না। কিন্তু ব্যর্থতা এলেই একে অপরকে দোষ দেওয়ার প্রবণতা  দেখা  দেয়। পুণের একটি  অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে শনিবার একথাই বলেন কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহণ মন্ত্রী।         

দিল্লির হোটেল থেকে গ্রেফতার ভারতী ঘোষের ঘনিষ্ঠ

ব্যাঙ্কের সাফল্য এবং ব্যর্থতার সঙ্গে রাজনীতিকে মিলিয়ে  দেন কেন্দ্রীয়  মন্ত্রী। তিনি বলেন, ব্যাঙ্ক পরিচালন করতে  গিয়ে  কখনও লাভ হয় কখনও আবার ক্ষতি। দু ধরনের পরিস্থিতিকে মেনে নিতে হবে। রাজনীতিকে  সাফল্য এলে কে দায় নেবে  তার জন্য  প্রতিযোগিতা শুরু হয়ে  যায় কিন্তু ব্যর্থতার কেউ নিতে চায় না। নেতৃত্বের উচিত ব্যর্থতার দায় নেওয়া। আর সেটা তাঁরা যতক্ষণ না করছেন ততক্ষণ সংগঠনের প্রতি  তাঁদের আনুগত্য প্রমাণিত হবে না। লোকসভা বা রাজ্যের নির্বাচনে পরাজয়ের পর প্রার্থীরা বলেন তাঁরা সাহায্য পাননি। অর্থ সাহায্য পাননি। বা  কখনও বলেন ঠিক মতো প্রচার করা যায়নি বলে পরাজয় হয়েছে। আমি একবার এক পরাজিত প্রার্থীকে বলেছিলাম আপনি হেরেছেন কারণ আপনার দলের কোথাও না কোথাও খামতি ছিল। আর মানুষ আপনাকে  ভরসা করতে পারেননি। সেটাও পরাজয়ের  কারণ।          

Newsbeep