বিশাখাপত্তনমের এক ওষুধ কারখানায় গ্যাস লিক করে মৃত কমপক্ষে ২, হাসপাতালে ৪

অন্ধ্র প্রদেশের বিশাখাপত্তনমের এক ওষুধ কারখানায় গ্যাস লিক করে কমপক্ষে দুই কর্মীর মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে সংবাদসংস্থা এএনআই

এই ঘটনার জেরে সেই  কারখানায় থাকা আরও চার কর্মী অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে বলে জানা গিয়েছে

বিশাখাপত্তনম:

অন্ধ্র প্রদেশের বিশাখাপত্তনমের এক ওষুধ কারখানায় গ্যাস লিক করে কমপক্ষে দুই কর্মীর মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে সংবাদসংস্থা এএনআই।এই ঘটনার জেরে সেই  কারখানায় থাকা আরও চার কর্মী অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। সাইনোর লাইফ সায়েন্সেস নাম এক সংস্থায় এই দুর্ঘটনা ঘটলেও, পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে এমন কথাই জানানো হয়েছে পুলিশের তরফ থেকে।

এ দিন ভোরে পারওয়াদা থানার আধিকারিক উদয় কুমার জানিয়েছেন, ‘পরিস্থিতি আপাতত নিয়ন্ত্রণে। যে দুই কর্মী মারা গিয়েছেন, তাঁরা গ্যাস লিক করার সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন। আর কোথাও গ্যাস ছড়িয়ে পড়েনি।'  আজ সকালে মুখ্যমন্ত্রীর কার্যালয় জানানো হয়েছে,  মুখ্যমন্ত্রী ওয়াইএস জগন মোহন রেড্ডি এই ঘটনার তথ্য চেয়ে পাঠিয়েছেন। 

মাত্র কয়েকদিন আগেই,  অন্ধ্রপ্রদেশের বিশাখাপত্তনমে রাসায়নিক কারখানায় গ্যাস লিকের ঘটনায় ১১ জনের মৃত্যু এবং ১,০০০ জনের বেশি মানুষ অসুস্থ হয়েছেন, মৃতদের মধ্যে রয়েছে দুজন শিশুও। চিকিৎসাধীন ব্যক্তিদের মধ্যে ২৫ জনের অবস্থা সঙ্কটজনক বলে জানিয়েছে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী, ঘটনাটিকে একটি রাসায়নিক বিপর্যয় বলে বর্ণনা করেছে তারা। একটি এলজি পলিমার কারখানায় গ্যাস লিকের ঘটনাটি ঘটে, করোনা ভাইরাস লকডাউনের কারণে কারখানাটি প্রায় ৪০দিন ধরে বন্ধ ছিল। এদিন রাস্তায় ছুটে বেড়াতে দেখা যায় বহু মানুষকে, গর্তে পড়ে অনেকে, কেউ আবার বাড়ির মধ্যেই ছিলেন। অন্তত তিনটি গ্রামের বাসিন্দাকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয় এবং বাড়ি বাড়ি যান আধিকারিকরা।