মুর্শিদাবাদে খুনের ঘটনায় কেন্দ্রীয় সংস্থার তদন্তের দাবি বিজেপির

Triple murder in West Bengal: ঘটনায় একসুরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারের সমালোচনা করেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় এবং রাজ্য বিজেপি নেতারা

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
মুর্শিদাবাদে খুনের ঘটনায় কেন্দ্রীয় সংস্থার তদন্তের দাবি বিজেপির

Triple murder:দুর্গাপুজোর আবহে, মুর্শিদাবাদের জিয়াগঞ্জে বন্ধুপ্রকাশ পাল, তাঁর অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী বিউটি এবং ৮ বছরের ছেলে রক্তাক্ত অঙ্গনের দেহ উদ্ধার হয়


কলকাতা: 

মুর্শিদাবাদের তিনজন খুনের (Triple Murder in Murshidabad) ঘটনায় রাজ্য পুলিশের বিরুদ্ধে ব্যর্থতার অভিযোগ তুলে, কেন্দ্রীয় সংস্থার তদন্তের দাবি করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। রবিবার একটি অনুষ্ঠানে গিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথোপথনের সময়, বিজেপির (BJP) রাজ্য সভাপতি অভিযোগ করেন, এই ধরণের ঘটনা নিয়ে অপ্রয়োজনীয় রাজনীতি করছে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস (Trinamool Congress)। সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, যখন দোষীরা নাগালের বাইরে, ঘটনায় রাজনীতি করছে তৃণমূল কংগ্রেস, তিনজন খুনের ঘটনায় বিজেপির নিরপেক্ষ তদন্তের দাবিতে রাজনীতি দেখছে তৃণমূল কংগ্রেস”। তিনি আরও বলেন, “অপরাধের সঙ্গে যু্ক্ত ব্যক্তিদের এখনও ধরতে পারেনি রাজ্য পুলিশ। সত্য উদঘাটন করতে কেন্দ্রীয় সংস্থার তদন্তের প্রয়োজন”।

আরএসএস কর্মী ছিলেন জিয়াগঞ্জে স্ত্রী-পুত্র সহ খুন হওয়া প্রাথমিক শিক্ষক, দাবি বিজেপির

বিজেপির পাল্টা দিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, এই “দুর্ভাগ্যজনক” ঘটনার রাজনীতি করছে বিজেপি, এবং কাজ করছে রাজ্য সরকারের তদন্ত সংস্থা। রবিবার মুর্শিদাবাদের এই এলাকায় যান কংগ্রেস নেতা মনোজ চক্রবর্তী, তিনি বলেন, “এই ঘটনায় একটি নিরপেক্ষ এবং দ্রুত তদন্ত প্রয়োজন”।  

জেলা পুলিশের এক কর্তা জানান, ইতিমধ্যেই ঘটনাস্থলে গিয়েছেন সিআইডি আধিকারিকরা, মৃত শিক্ষকের বাবার সঙ্গে কথা বলেছেন এবং তাঁর বন্ধুদের সম্পর্কে তথ্য পাওয়ার চেষ্টা করছেন তদন্তকারীরা।

মৃত শিক্ষক বন্ধুপ্রকাশ পালের একজন ব্যবসায়ীক সহযোগিকে আটক ও জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন তদন্তকারীরা, ওই পুলিশকর্তা জানিয়েছেন, তিনি বন্ধুপ্রকাশ পালকে (Bandhu Prakash Pal) টাকা ধার দিয়েছিলেন, তবে তা ফেরৎ পাচ্ছিলেন না। জেলা পুলিশের ওই আধিকারিক বলেন, “তদন্ত চলছে, খুব দ্রুতই অপরাধীদের ধরার ব্যাপারে আমরা আশাবাদী”।

বিজয়ার আবহে রাজ্যে খুন প্রাথমিক শিক্ষক ও তাঁর পরিবার

দুর্গাপুজোর আবহে, মুর্শিদাবাদের জিয়াগঞ্জে বন্ধুপ্রকাশ পাল, তাঁর অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী বিউটি এবং ৮ বছরের ছেলে রক্তাক্ত অঙ্গনের দেহ উদ্ধার হয়।

ঘটনায় একসুরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারের সমালোচনা করেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় এবং রাজ্য বিজেপি নেতারা। আরএসএস এর তরফে দাবি করা হয় মৃত শিক্ষক বন্ধুপ্রকাশ পাল তাদের সমর্থক ছিলেন। যদিও তাঁর সঙ্গে কোনও রাজনৈতিক সংগঠনের জড়িত থাকার কথা খারিজ করে দিয়েছে বন্ধুপ্রকাশ পালের পরিবার।

রেড রোডে দুর্গা কার্নিভ্যালের বর্ণাঢ্য ভিডিও দেখুন:

এর আগে, এক পুলিশ কর্তা বলেন, “মোট চারজনকে আটক করা হয়েছে, তাদের মধ্যে দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে”।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)


পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................