"কোয়ারান্টাইন,অনুপস্থিত থাকব সংসদে," রাজ্যসভাকে জানালেন তৃণমূল সাংসদ

আমি স্বেচ্ছায় গৃহবন্দি, তাই বাজেট অধিবেশনে আর অংশ নেব না। রাজ্যসভাকে এই মর্মে বার্তা পাঠালেন তৃণমূল সাংসদ সুখেন্দু শেখর রায়।

আমি স্বেচ্ছায় গৃহবন্দি, তাই বাজেট অধিবেশনে আর অংশ নেব না। রাজ্যসভাকে এই মর্মে বার্তা পাঠালেন তৃণমূল সাংসদ সুখেন্দু শেখর রায়। (ফাইল ছবি)

কলকাতা:

আমি স্বেচ্ছায় গৃহবন্দি, তাই বাজেট অধিবেশনে আর অংশ নেব না। রাজ্যসভাকে এই মর্মে বার্তা পাঠালেন তৃণমূল সাংসদ সুখেন্দু শেখর রায়। দলের তরফে সংসদের উচ্চকক্ষের ডেপুটি লিডার এই প্রাক্তন আমলা। জানা গিয়েছে, তাঁর পথের পথিক হতে পারেন অন্য তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদরা। বুধবার পিটিআইকে সুখেন্দু বাবু বলেছেন, আমি রাজ্যসভার চেয়ারম্যান বেঙ্কাইয়া নাইডুজি-কে চিঠি পাঠিয়েছি। উনাকে বলেছি আমি বড় জমায়েত এড়াতে চাইছি। তাই আমি স্বেচ্ছায় গৃহবন্দি হলাম।" তিনি বলেছেন, আমি রাজ্যসভার চেয়ারম্যানকে অনুরোধ করেছি আমার ছুটি মঞ্জুর করা হোক। চলতি বাজেট অধিবেশনের শেষ ক'দিন আমি উপস্থিত হব না। দেশব্যাপী চলা মহামারীর জন্য আমি গৃহবন্দি হলাম।

বাংলার প্রথম করোনা সংক্রমণ নিয়ে মুখ খুললেন মুখ্যমন্ত্রী

এর আগে একাধিকবার সংসদের উভয়কক্ষ থেকেই আবেদন এসেছে, চলতি বাজেট অধিবেশন মুলতুবি রাখার। কিন্তু সতর্কতা অবলম্বন করেই অধিবেশন চলছে। এমনটা দাবি করে আসছে ট্রেজারি বেঞ্চ। এদিকে বুধবার কয়েকজন মুখোশ পরে রাজ্যসভায় এলে, তাঁদের মুখোশ খুলতে অনুরোধ করেন চেয়ারম্যান। তিনি যুক্তি দিন, "সংসদকক্ষে ঢোকা ও বেরনোর মুখে থার্মাল স্ক্রিনিংয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে। কিন্তু বিরোধীদের দাবি, "সংসদ চত্বরে মানুষের আনাগোনা চলতেই থাকে। তাই সতর্কতা অবলম্বনে এই মুখোশ।"    



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)
Newsbeep