দখল হয়ে যাওয়া পার্টি অফিস দ্রুত পুনরুদ্ধারের নির্দেশ দিলেন মমতা

রাজ্যের বহু এলাকায় তৃণমূলের বহু জায়গায় তৃণমূলের পার্টি অফিস বিজেপি দখল করেছেব বলে অভিযোগ।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
দখল হয়ে যাওয়া পার্টি অফিস দ্রুত পুনরুদ্ধারের নির্দেশ দিলেন মমতা

দলের একাংশের নেতাদের কড়া সমালোচনা করেন মমতা


কলকাতা: 

হাইলাইটস

  1. দখল হয়ে যাওয়া পার্টি অফিস দ্রুত পুনরুদ্ধারের নির্দেশ দিলেন মমতা
  2. বহু জায়গায় তৃণমূলের পার্টি অফিস বিজেপি দখল করেছেব বলে অভিযোগ
  3. পুরনো দিনের তৃণমূল কর্মীদের কাজে ফিরিয়ে আনার নির্দেশ দিলেন মমতা

দলের নেতাকর্মীদের আবারও দখল হয়ে যাওয়া পার্টি অফিস দ্রুত পুনরুদ্ধারের নির্দেশ দিলেন তৃণমূল নেত্রী (TMC Supremo) । লোকসভা  নির্বাচনে (General Election 2019) জয়ের  পর রাজ্যের বহু এলাকায় তৃণমূলের বহু জায়গায় তৃণমূলের পার্টি অফিস বিজেপি দখল করেছেব বলে অভিযোগ। কয়েক দিনের ব্যবধানে আরও একবার বৈঠকে বসলেও তৃণমূলের কোর কমিটি। সেখানেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Bannerjee) এই নির্দেশ দেন। পাশাপাশি তিনি জানান সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে তাদের সমস্যা বুঝে নতুন করে সংগঠনকে শক্তিশালী করতে হবে। কেন বিজেপির ভোট বাড়ছে তা খতিয়ে দেখতে হবে দলের নেতা কর্মীদের। এই বৈঠক থেকেই জয় হিন্দ বাহিনী এবং বঙ্গ জননী বাহিনীর চেয়ারম্যান ঠিক করেন মমতা। আরএসএসের  মতো সংগঠন যেভাবে পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে ঘুরে নিজেদের সংগঠন বৃদ্ধির কাজ করছে তাদের টেক্কা দিতেই এই দুটি বাহিনীর কাজ করবে।

জয় হিন্দ বাহিনী দেখবেন মমতার ভাই কার্তিক বন্দ্যোপাধ্যায় এবং রাজ্যের মন্ত্রী ব্রাত্য বসু আর বঙ্গজননী বাহিনীর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে দীর্ঘদিনের সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদারকে। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা তৃণমূল কর্মীদের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করবেন এই তিন জন। সংগঠন বিস্তারের কাজ কতটা কি হল তা দেখবেন। সূত্র মারফত জানা গিয়েছে বৈঠকে  দলের একাংশের নেতাদের কড়া সমালোচনা করেন মমতা। তিনি বলেন বিজেপির দেওয়া অর্থের কাছে তৃণমূলের কিছু নেতা আত্মসমর্পণ করেছেন। এই আচরণ দল কখনওই মেনে নেবে না। তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পাশাপাশি কোর কমিটির সদস্যদের আশ্বস্ত করে নেত্রী বলেন বাংলার মানুষ সন্ত্রাস এবং দমনের রাজনীতির শিকার হবে না। আমরা ঠিক নিজেদের জায়গা ফিরে পাব। ভরসা রাখুন।

এছাড়া ফের তৃণমূল সুপ্রিমো বলেন দলের যে সমস্ত পুরনো দিনের কর্মী এখন সক্রিয় নন তাঁদের  কাছে পৌঁছতে হবে। তাঁদেরকে নিয়ে এসে বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবিলা করার পরামর্শ দেন মন্ত্রী। ইতিমধ্যেই কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়কে ফোন করেছিলেন বর্তমান মেয়র ফিরহাদ হাকিম। কয়েকটি পারিবারিক এবং ব্যক্তিগত কারণে এই মুহূর্তে দলের সেভাবে সক্রিয় নন শোভন।  তাঁকে আবার ফিরে আসার অনুরোধ করেছেন ববি। এভাবেই দলের সমস্ত পুরো দিনের কর্মীদের কাছে পৌঁছানোর বার্তা দিয়েছেন মমতা।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................