টিকটক আর নেই, কিন্তু মিম তো আছে! দেখুন নিষিদ্ধ অ্যাপ নিয়ে দুরন্ত রসিকতা

#TikTokBan; টিকটক নিষিদ্ধ ঘোষণার খবর ছড়িয়ে পড়তেই নেটিজেনরা বানিয়ে ফেলেন দুরন্ত সব মিম এবং জোকস।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
টিকটক আর নেই, কিন্তু মিম তো আছে! দেখুন নিষিদ্ধ অ্যাপ নিয়ে দুরন্ত রসিকতা

টিকটক নিষিদ্ধ হওয়ার পর থেকেই একের পর এক মিম আর জোকসের জন্ম হয়েই চলেছে


টিকটকের (TikTok) হাত ধরে ছড়িয়ে পড়ছে অশ্লীলতা ও পর্নোগ্রাফি। তাই ভারতে চিনের এই জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ার করার অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড বন্ধ হয়ে গিয়েছে! গুগল এবং অ্যাপল ইনকর্পোরেটেডকে ভারতীয় আদালত জানায়, এই দেশে বন্ধ করে দিতে হবে অ্যাপ্লিকেশনটির ডাউনলোড। টিকটক অ্যাপে (TikTok app) নিষেধাজ্ঞা স্থগিত করার জন্য হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল চিনের বাইটড্যান্স টেকনোলজি (China's Bytedance Technology)। কিন্তু তাঁদের অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করে দেয় শীর্ষ আদালত। হাইকোর্ট গত ৩ এপ্রিল টিকটককে নিষিদ্ধ করার জন্য কেন্দ্রকে জানায়। আদালত বলে, এই অ্যাপ পর্নোগ্রাফিকে উৎসাহিত করেছে এবং শিশু ব্যবহারকারীদের নিশানা বানাচ্ছে যৌন শিকারীরা।  

App Store ও Play Store থেকে উধাও, আদালতের নির্দেশে ভারতে TikTok ডাউনলোড নিষিদ্ধ হল

নিষেধাজ্ঞা চেয়ে প্রথমে এক ব্যক্তি জনস্বার্থে মামলা দায়ের করার পরই যাবতীয় ঘটনা ঘটতে থাকে। আইটি মন্ত্রকের এক কর্মকর্তা জানান, হাইকোর্টের আদেশ অনুসারে কেন্দ্র অ্যাপল (Apple) ও গুগলকে (Google) চিঠি পাঠিয়েছিল। মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকেই ভারতের গুগল প্লে স্টোরে (Google's Play store) অ্যাপটি আর পাওয়া যাচ্ছে না (Google blocked access)। টিকটক নিষিদ্ধ ঘোষণার খবর ছড়িয়ে পড়তেই নেটিজেনরা বানিয়ে ফেলেন দুরন্ত সব মিম এবং জোকস (#TikTokBan)।

টিকটক (TikTok) অ্যাপ্লিকেশনের নিষেধাজ্ঞা জারি হওয়ার পরে কিছু সেরা রসিকতা দেখুন এখানে:

টুইটারে বেশিরভাগ লোকেরাই টিকটক ব্যবহারকারীদের নিয়ে চূড়ান্ত ঠাট্টা করেছেন। অন্যদিকে বাকি মানুষরা আবার এই নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি বেশ উদযাপনও করেছেন। 

বিমানবন্দরের মাঝেই বিশাল জলপ্রপাত! দেখুন পৃথিবীর উচ্চতম অভ্যন্তরীণ জলপ্রপাতের ছবি

অ্যাপল এবং গুগলের অ্যাপ স্টোরগুলিতে টিকটক মঙ্গলবার রাত থেকেই আর ডাউনলোড করতে পারছেন না ভারতীয় ব্যবহারকারীরা।

বাইটড্যান্স সামাজিক এবং সংবাদ পাঠের নানা অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করে। বাইটড্যান্সের একজন মুখপাত্র অ্যাপ স্টোরের গৃহীত সিদ্ধান্তের বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে অস্বীকার করেন। কিন্তু একটি বিবৃতিতে তিনি জানিয়েছেন: “এই মামলা এখনো চলছে। আমরা ভারতীয় বিচার ব্যবস্থায় বিশ্বাস রাখি এবং আমরা এমন ফলাফল সম্পর্কেই আশাবাদী যা ভারতের ১২০ মিলিয়ন সক্রিয় ব্যবহারকারীরা ভালোভাবেই গ্রহণ করবেন।"

Click for more trending news




লোকসভা নির্বাচন 2019-এর সাম্প্রতিকতম খবর, লাইভ আপডেটস এবং নির্বাচনের সময়সূচি পান ndtv.com/bengali/elections-এর থেকে। 2019-এর ভারতের সাধারণ লোকসভা নির্বাচনের প্রতিটি আপডেট পাওয়ার জন্য আমাদের FacebookTwitter-এর দিকেও নজর রাখুন।লোকসভা নির্বাচন 2019-এর প্রতিটা (543)আসনের আপডেট জানুন

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................