পুলিশের 'করোনা ম্যাসাজ'! লকডাউন অমান্য করে সেলুন খোলায় মালিকের এইরকম হাল

TikTok Viral Video: প্রধানমন্ত্রী মোদি ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ির বাইরে না যাওয়ার অনুরোধ করেছেন, দেশের লকডাউন অমান্য করে রাস্তায় বেরোলেই পুলিশের দাওয়াই

পুলিশের 'করোনা ম্যাসাজ'! লকডাউন অমান্য করে সেলুন খোলায় মালিকের এইরকম হাল

TikTok Viral Video: লকডাউনের মধ্যে সেলুন খোলায় এভাবেই পুলিশের 'ম্যাসাজ' খেলেন দোকান মালিক

হাইলাইটস

  • করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত চলছে লকডাউন
  • এই পরিস্থিতিতে রাস্তায় বেরোলেই লাঠিপেটা করছে পুলিশ
  • সকলকে ৩ সপ্তাহ ঘরবন্দি থাকার অনুরোধ করেন প্রধানমন্ত্রী মোদি

দেশে করোনা ভাইরাসের (Coronavirus) সংক্রণ রুখতে প্রধানমন্ত্রী মোদি (PM Narendra Modi) ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত সকলকে বাড়ির বাইরে না যাওয়ার অনুরোধ করেছেন। কিন্তু সেই নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে অনেকেই এখনও রাস্তায় বের হচ্ছেন। এবার তাই কড়া হাতে ডাণ্ডা ধরেছে পুলিশ প্রশাসন, রাস্তায় বের হলেই মিলছে বিশেষ  'করোনা ম্যাসাজ'। সকলকে ঠান্ডা করে দেওয়ার ব্যবস্থা হচ্ছে এর মাধ্যমেই। সম্প্রতি একটি টিকটক ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল দুনিয়ায়। ওই ভিডিওতে (TikTok Viral Video) দেখা যাচ্ছে, লকডাউন অমান্য করে সেলুন খুলতে যাচ্ছেন এক দোকান মালিক। ব্যস আর যায় কোথায়! দে দমাদম লাঠির ডাণ্ডা জুটল তাঁর কপালে। শুধু এই ভিডিওটিই নয়, টিকটকে ইদানিং ভাইরাস হচ্ছে এমন অনেক ভিডিও যেখানে দেখা যাচ্ছে, নিষেধ অগ্রাহ্য করে যাঁরাই বাড়ির বাইরে পথে-ঘাটে বেরোচ্ছেন তাঁদেরই চরম লাঠিপেটা করছে পুলিশ। 

"করোনাকে ভয় পেও না", সচেতনতায় গান লিখলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

এই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে বাকি দোকানগুলি বন্ধ থাকলেও একজন সেলুন মালিক তাঁর দোকান খুলেছে। ঠিক এই সময় পুলিশ এসে তাঁকে দে দমাদম লাঠিপেটা করে। এক টিকটক ব্যবহারকারী ওই ভিডিওটি পোস্ট করে লিখেছেন, "মালিক এসে সেলুনটি খুলল। আর পুলিশকর্মীরা তাঁকে ভাল করে ম্যাসাজ দিয়ে দিলেন"। এখনও পর্যন্ত টিকটকে এই ভিডিওটি ৯০ হাজারেরও বেশিবার দেখা হয়েছে। এছাড়াও, ৪ হাজারেরও বেশি মানুষ এই ভিডিওটি দেখার পর তাতে লাইক করেছেন।

দেখুন এই VIDEO:

@dinesh75449

♬ original sound - Om Banna7773™

সারা পৃথিবী এখন করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক ভুগছে। জানা গেছে এখনও পর্যন্ত COVID-19 ভাইরাসে সমগ্র বিশ্বে আক্রান্ত হয়েছেন কমপক্ষে ৫ লক্ষ ২৬ হাজার ৪৪ জন, যার মধ্যে ইতিমধ্যেই মৃত্যু হয়েছে ২৩,৭০৯ জনের। পাল্লা দিয়ে ভারতেও বাড়ছে ওই মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা। সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৭০০ ছুঁই-ছুঁই। এর মধ্যে আবার ওই ভাইরাস দেশে প্রাণ কেড়েছে ১৭ জনের।পশ্চিমবঙ্গে এখনও পর্যন্ত করোনা ভাইরাসের সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ১ জনের। ফলে এখন যেটা প্রয়োজন তা হল প্রত্যেক মানুষের মধ্যে করোনা সতর্কতা।

"আপনাদের অর্থ নিরাপদেই রয়েছে", আমানতকারীদের আরবিআইয়ের আশ্বাস

বৃহস্পতিবারই COVID-19 এর প্রাদুর্ভাব থেকে হওয়া আর্থিক অসুবিধা মোকাবিলায় দেশের দরিদ্র ও অভিবাসীদের পাশে দাঁড়িয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন ঘোষণা করেছেন ১ লক্ষ ৭০ হাজার কোটি টাকার ত্রাণ। দেশের দরিদ্র শ্রেণির মানুষের জন্যে এই সময় নগদ ও খাদ্যে ভর্তুকি দেবে মোদি সরকার, জানান তিনি। কেউ খালি পেটে থাকবেন না, মিলবে সরকারি সাহায্য, এই কথা বলে অর্থমন্ত্রীর ঘোষণা, দেশের দরিদ্র শ্রেণির মানুষেরা রেশনে যে বরাদ্দ পাচ্ছিলেন তা তো পাবেনই পাশাপাশি আগামী তিন মাস ৫ কেজি করে চাল অথবা ৫ কেজি করে গম পাবেন। এদিকে শুক্রবার সাংবাদিক সম্মেলন করে রেপো রেট ও রিজার্ভ রেপো রেট কমানোর ঘোষণা করেছেন।

Click for more trending news


Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com