নারী নির্যাতনে উস্কানিমূলক কন্টেন্ট! ইউজারদের সতর্ক করে বিবৃতি দিল টিকটক

ইতিমধ্যে জাতীয় মহিলা কমিশন টিকটক ইন্ডিয়াকে বিতর্কিত সেই কন্টেন্ট সরাতে নির্দেশ দিয়েছে। যে ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, এক ব্যক্তি মহিলার বিরুদ্ধে নির্যাতনে উস্কানি দিচ্ছেন

নারী নির্যাতনে উস্কানিমূলক কন্টেন্ট! ইউজারদের সতর্ক করে বিবৃতি দিল টিকটক

অ্যাসিড অ্যাটাককে প্রাধান্য দেওয়ার জন্য সাসপেন্ড করা হয়েছে টিকটকে এক ইউজারের অ্যাকাউন্ট।

নয়া দিল্লি:

এক টিকটক ব্যবহারকারীর কন্টেন্ট নারী নির্যাতনে উস্কানিমূলক (Crime against Women)। সেই অভিযোগে কাঠগড়ায় টিকটক ইন্ডিয়া (TIktok India)। চাপে পড়ে ব্যবহারকারীদের প্রতি গাইডলাইন জারি করে সোশাল মাধ্যমে পোস্ট দিল টিকটক ইন্ডিয়া।সেই পোস্টে (Social media post) উল্লেখ, "নিরাপদ ও ইতিবাচক পরিবেশের প্রচার করা আমাদের বেশি প্রাধান্য। আমাদের পরিষেবা ব্যবহারের বিধি ও নির্দেশিকায় স্পষ্ট উল্লেখ, কী করণীয়, আর কী করণীয় নয়। আমরা আসা রাখব টিকটক ব্যবহারীকারীরা সেই গাইডলাইন মেনে চলবেন।।" গত কয়েকদিন ধরে একাধিক বিধি লঙ্ঘনকারী কন্টেন্টের বিরুদ্ধে আমরা ব্যবস্থা নিয়েছি। বিতর্কিত কন্টেন্ট সরিয়ে দেওয়ার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কন্টেন্ট ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্ট সাসপেন্ডও করেছি। প্রয়জোনে টিকটক ইন্ডিয়া প্ল্যাটফর্মের অপব্যবহার রুখতে আইনের দারস্থ হবো। সেই সোশাল মিডিয়া পোস্টে এমন উল্লেখও আছে। 

ইতিমধ্যে জাতীয় মহিলা কমিশন টিকটক ইন্ডিয়াকে বিতর্কিত সেই কন্টেন্ট সরাতে নির্দেশ দিয়েছে। যে ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, এক ব্যক্তি মহিলার বিরুদ্ধে নির্যাতনে উস্কানি দিচ্ছেন। সেই ভিডিওর বিরুদ্ধে মহারাষ্ট্র পুলিশকে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। টিকটক ইন্ডিয়াকে পাঠানো প্রতিবাদ পত্রে মহিলা কমিশন লিখেছে, "বিতর্কিত ভিডিও দেখে মনে হচ্ছে নারী নির্যাতনে মদত দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি নারী-বিদ্বেষী একটা মনোভাবও ফুটে উঠেছে।" জাতীয় মহিলা কমিশনের প্রধান রেখা শর্মা সেই চিঠি পাঠিয়ে প্রতিবাদে সরব। 

এই মর্মে অভিযুক্ত ফয়জল সিদ্দিকির অ্যাকাউন্ট সাসপেন্ড করেছে টিকটক ইন্ডিয়া। তাঁর পোস্ট করা ভিডিওতে অ্যাসিড আক্রমণে উস্কানি দেওয়া হয়েছে। জানা গিয়েছে, আগামি দিনেও অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করতে পারবেন না ফয়জল।  ইতিমধ্যে এই বিতর্কে টিকটক বিরোধী একটা প্রচারাভিযান শুরু হয়েছে। বিভিন্ন মাধ্যমে টিকটকের পরিষেবা সূচক ৩ স্টার-এর নীচে নেমে গিয়েছে।