আসানসোলে রামনবমীর মিছিল নিয়ে সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষ, গ্রেফতার ১০ জন

এই মুহূর্তে পুলিশ তদন্ত করে খতিয়ে দেখছে, ওই ১০ জনই ওই সময় মিছিলে উপস্থিত ছিল কিনা।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
আসানসোলে রামনবমীর মিছিল নিয়ে সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষ, গ্রেফতার ১০ জন

প্রসঙ্গত, গত বছরও আসানসোলে রামনবমীর মিছিল নিয়ে ঝামেলা লেগেছিল। (ফাইল চিত্র)


আসানসোল: 

রামনবমীর মিছিলে আসানসোলে সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষের দায়ে মঙ্গলবার অভিযুক্ত দশজনকে গ্রেফতার করল পুলিশ। সংবাদসংস্থা আইএএনএস'কে দুর্গাপুরের পুলিশ কমিশনার লক্ষ্মীনারায়ণ মীনা বলেন, আসানসোলের বরাকর স্টেশন রোডে এই সংঘর্ষের জেরে পুলিশের দুটি গাড়িতে রীতিমত ভাঙচুর চালানো হয় এবং তারপর সেগুলিকে জ্বালিয়ে দেওয়া হয়। তিনি যদিও পরে জানান, এই মুহূর্তে পরিস্থিতি ‘সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে' এবং ‘পরিস্থিতি শান্তিপূর্ণ'ও বটে। লক্ষ্মীনারায়ণ মীনা বলেন, “গতকাল (সোমবার) রামনবমীর মিছিল নিয়ে প্রভূত অশান্তির সৃষ্টি হয় গোটা এলাকায়। পুলিশের দুটি গাড়িকে ভাঙচুর করে জ্বালিয়ে দেওয়া হয়। আমরা ১০ জন ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছি এই হামলার অভিযুক্ত হিসাবে”।

এই মুহূর্তে পুলিশ তদন্ত করে খতিয়ে দেখছে, ওই ১০ জনই ওই সময় মিছিলে উপস্থিত ছিল কিনা।

রামনবমীর মিছিল নিয়ে সাম্প্রদায়িক রেষারেষি আসানসোলে, লাঠিচার্জ পুলিশের

লক্ষ্মীনারায়ণ মীনা বলেন, "তারা কোনও রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যুক্ত কিনা, তা এখনও স্পষ্টভাবে জানা যায়নি” ।

প্রসঙ্গত, ঘটনাটি ঘটে সোমবার সন্ধেবেলা আসানসোলের বরাকর এলাকায়। পাথর ছোঁড়া হয় পুলিশের গাড়ি লক্ষ্য করে। বিক্ষোভকারীদের দাবি, তাঁদের রামনবমী মিছিলে পাথর ছুঁড়ে মেরেছে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষরা। বরাকর স্টেশন রোডে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের বাসিন্দার সংখ্যা বেশি। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিশ্ব হিন্দু পরিষদ আয়োজিত একটি মিছিল বরাকর স্টেশন রোডের দিকে যাচ্ছিল ধর্মীয় সঙ্গীত এবং ডিজে বাজিয়ে। সূত্র মারফৎ জানা গেছে, ওই সময় এলাকার কয়েকজন সংখ্যালঘু বাসিন্দারা এত তীব্র শব্দের জন্য প্রতিবাদ জানান।

প্রচারে নেমে তৃণমূলী গুণ্ডাদের হাতে আক্রান্ত হওয়ার অভিযোগ আসানসোল ও ডায়মন্ড হারবারের বামপ্রার্থীর

অভিযোগ, তারপরই একে অপরের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন দুই সম্প্রদায়ের মানুষ এবং একে অপরের দিকে পাথরবৃষ্টি শুরু করে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গেলে উভয় সম্প্রদায়ের মানুষের সঙ্গে খণ্ডযুদ্ধ বেঁধে যায়। বেগতিক দেখে লাঠিচার্জ করতে বাধ্য হয় পুলিশ।

সন্ধে সাড়ে ছ'টা নাগাদ প্রশাসনের তরফে জানানো হয়, পরিস্থিতি আপাতত নিয়ন্ত্রণে এসেছে। তবে, কার বা কাদের ‘উসকানি'তে এই ঘটনা ঘটল, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলেও জানায় পুলিশ।

প্রসঙ্গত, গত বছরও আসানসোলে রামনবমীর মিছিল নিয়ে ঝামেলা হয়েছিল। 



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)


লোকসভা নির্বাচন 2019-এর সাম্প্রতিকতম খবর, লাইভ আপডেটস এবং নির্বাচনের সময়সূচি পান ndtv.com/bengali/elections-এর থেকে। 2019-এর ভারতের সাধারণ লোকসভা নির্বাচনের প্রতিটি আপডেট পাওয়ার জন্য আমাদের FacebookTwitter-এর দিকেও নজর রাখুন।লোকসভা নির্বাচন 2019-এর প্রতিটা (543)আসনের আপডেট জানুন

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................