‘‘উনি বোনকে ফোন করেছিলেন, ১০০-তে নয়’’: তেলেঙ্গানার ধর্ষিতা প্রসঙ্গে মন্ত্রী

পুলিশের ধারণা ওই মহিলাকে ধর্ষণ করে হত্যা করা হয়। তারপর মৃতদেহে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়। চার জন অভিযুক্তকে হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

পুলিশ নানা সূত্রকে মিলিয়ে ঘটনার সম্ভাব্য বিবরণ পেতে চাইছে।

হায়দরাবাদ:

হায়দরাবাদের (Hyderabad) কাছে ২৬ বছরের পশু চিকিৎসক (26-year-old veterinarian) তরুণীর দগ্ধ দেহ উদ্ধারের পরের দিন তেলেঙ্গানার এক মন্ত্রী জানালেন, এই ঘটনাটি এড়ানো যেত যদি মেয়েটি চারপাশে সন্দেহজনক ব্যক্তিদের দেখে বোনকে ফোন না করে পুলিশকে ফোন করত। তেলেঙ্গানার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহম্মদ মাহমুদ আলি সংবাদ সংস্থা এএনআইকে বলেন, ‘‘আমরা এই ঘটনায় মর্মাহত। পুলিশ সতর্ক হয়ে অপরাধ দমনের চেষ্টা করছে। উনি একজন শিক্ষিত মহিলা হয়ে ১০০-তে ফোন না করে কল করেছিলেন নিজের বোনকে। ১০০-তে কল করলে উনি বেঁচে যেতেন। ১০০ একটি বন্ধুত্বপূর্ণ নম্বর এবং আমরা এইভাবেই মানুষের মধ্যে সতর্কতা ছড়িয়ে দিতে পারি।''

তিনি দাবি করেন, দেশের মধ্যে সবচেয়ে দক্ষ পুলিশ বাহিনী তেলেঙ্গানার। তিনি কথা দেন, যত দ্রুত সম্ভব অভিযুক্তদের ধরা হবে। এবং দ্রুততার সঙ্গে বিচার সম্পন্ন করা হবে।

হায়দরাবাদে ধর্ষণের পর জীবন্ত দগ্ধ তরুণী! সমস্ত রাজ্যকে নির্দেশনামা কেন্দ্রের

২৬ বছরের ওই তরুণী বুধবার রাত থেকে নিখোঁজ ছিলেন। সেই সময় তিনি কাজ থেকে ফিরছিলেন। তদন্তে জানা গিয়েছে, সামশাবাদ টোল বুথে তিনি তাঁর বাইক দাঁড় করান। এরপর ক্যাব নিয়ে চর্মরোগ বিশেষজ্ঞের কাছে যান। ৯টার সময় তিনি ফিরছিলেন। টোল প্লাজায় এসে তিনি দেখেন তাঁর বাইকের চাকা পাংচার হয়ে গিয়েছে।

৯.১৫-তে তিনি নিজের বোনকে ফোন করেন। সেই কলের অডিও রেকর্ডিং থেকে শোনা যাচ্ছে কেউ তাঁর টায়ার সারিয়ে দেওয়ার প্রস্তাব দিচ্ছে। কিন্তু ওই তরুণী ভয় পাচ্ছিলেন, কেননা কিছু ট্রাক চালক সন্দেহজনক আচরণ করছিল।

পুলিশের ধারণা ওই মহিলাকে ধর্ষণ করে হত্যা করা হয়। তারপর মৃতদেহে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়। চার জন অভিযুক্তকে হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। পুলিশ নানা সূত্রকে মিলিয়ে ঘটনার সম্ভাব্য বিবরণ পেতে চাইছে।

তেলেঙ্গানার পুলিশ অধিকর্তা মহেন্দর রেড্ডি এই খুনকে ‘‘মারাত্মক ও নৃশংস'' হিসেবে বর্ণনা করেছেন। তিনি কথা দিয়েছেন অভিযুক্তরা ধরা পড়লেই দ্রুত তাদের বিচার করা হবে ফাস্ট ট্র্যাক কোর্টে। তিনি টুইট করে জানিয়েছেন, এই ঘটনায় তিনি গভীর ভাবে মর্মাহত। তেলেঙ্গানার পুলিশ সম্ভাব্য সমস্ত উপায় অবলম্বন করে অপরাধীদের ধরার চেষ্টা করবে যত দ্রুত সম্ভব। পাশাপাশি তিনি অনুরোধ করেছেন যে কোনও সময়ে যে কোনও স্থানে যে কোনও সমস্যায় পড়লে ১০০ ডায়াল করতে।

আরও একটি টুইটে তিনি লেখেন, যে কোনও নির্জন স্থানে, ভুল সময়ে বা গাড়ি খারাপ হয়ে গেলে অসুবিধায় পড়লে পুলিশকে জানাতে।

কেন্দ্র পরিকল্পনা করেছে সমস্ত রাজ্যকে নির্দেশনামা পাঠাতে, যাতে সব রাজ্যই নারীর উপরে হওয়া অপরাধ রোধে পদক্ষেপ করে।

More News