আধার তথ্যের মতোই অসমের নাগরিকদের সুরক্ষিত তালিকা তৈরির নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

শীর্ষ আদালতের তত্ত্বাবধানেই এনআরসির খসড়া তালিকা প্রস্তুত হচ্ছে, শুধুমাত্র কিছু আইনি চ্যালেঞ্জের মোকাবিলায় এই তালিকা আবার শুরু থেকে করা সম্ভব নয়।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
আধার তথ্যের মতোই অসমের নাগরিকদের সুরক্ষিত তালিকা তৈরির নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

আধার তথ্যের মতোই অসমের নাগরিকদের সুরক্ষিত তালিকা তৈরির নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের


নয়া দিল্লি: 

অসমের নাগরিকপঞ্জিকরণ নিয়ে নয়া নির্দেশ দিল দেশের শীর্ষ আদালত (Supreme Court)। সুপ্রিম কোর্ট মঙ্গলবার নির্দেশ দিয়েছে যে অসমের চূড়ান্ত নাগরিক তালিকা (NRC Assam) থেকে যাঁদের নাম বাদ পড়েছে  তার একটি তালিকা  আগামী ৩১ অগাস্ট অনলাইনে প্রকাশ করতে হবে। প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ (Ranjan Gogoi) এবং বিচারপতি আরএফ নরিমানের বেঞ্চ বলেছে যে, আধার তথ্যের মতো অসমের জাতীয় নাগরিক নিবন্ধক (এনআরসি) তথ্য সুরক্ষার ক্ষেত্রেও একটি উপযুক্ত ব্যবস্থা কার্যকর করা উচিত। অর্থাৎ আধার তথ্যের মতোই অসমের নাগরিকদের সুরক্ষিত তালিকা তৈরির নির্দেশ দিল আদালত। সুপ্রিম কোর্টের (Supreme Court) তত্ত্বাবধানেই এনআরসির খসড়া (NRC Assam) তালিকা প্রস্তুত হচ্ছে, তাই শুধুমাত্র কিছু আইনি চ্যালেঞ্জের মোকাবিলায় এই তালিকা আবার শুরু থেকে করা সম্ভব নয় বলেও জানাল আদালত। এর আগে আদালত বলেছিল যে অসমের চূড়ান্ত এনআরসি তালিকা প্রকাশিত হবে ৩১ অগাস্ট বা তার মধ্যেই।

‘৩১শে অগস্টের মধ্যেই চাই', এনআরসি তালিকা প্রকাশের সময়সীমা নিয়ে অনড় সুপ্রিম কোর্ট

এনআরসি নিয়ে অসম বিধানসভায় এবং নানান সমালোচনা ও বক্তব্যকেও  খারিজ করে শীর্ষ আদালতে (Supreme Court) কেন্দ্রকে ৩১ অগাস্ট সময়সীমা মেনে চলতে নির্দেশ দিয়েছে। সুপ্রিম কোর্ট বলেছে যে এনআরসি সম্পর্কে কী বলা হচ্ছে তা নিয়ে মাথা ঘামানো হবে না এবং আদালত কেবলমাত্র এটা দেখতে চায় যে আগামী ৩১ অগাস্টের মধ্যে এনআরসির (NRC Assam) পুরো কাজটি সম্পন্ন হয়েছে।  

২৩ জুলাই শীর্ষ আদালত অসমের এনআরসি সংক্রান্ত চূড়ান্ত তালিকা (NRC Assam) প্রকাশের সময়সীমা এক মাস বাড়িয়ে ৩১ অগাস্ট পর্যন্ত করে এবং ২০ শতাংশ নমুনা পুনঃ যাচাইয়ের আবেদন  সরাসরি প্রত্যাখ্যান করে।

ভারত কোনও "ধর্মশালা" নয়, গোটা দেশেরই নাগরিক তালিকা প্রয়োজন, জানাল বিজেপি

শীর্ষ আদালতের (Supreme Court) নির্দেশ মেনে অসমের জন্য এনআরসি বা নাগরিকপঞ্জিকরণের প্রথম খসড়াটি গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৭ এবং ১ জানুয়ারি, ২০১৮-এর মাঝরাতে প্রকাশিত হয়েছিল । ওই তালিকায় মোট ৩.২৯ কোটি আবেদনকারীর মধ্যে ১.৯ কোটি মানুষের নাম অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল সেই সময়।

বিংশ শতাব্দীর গোড়ার দিকেই বাংলাদেশ থেকে প্রচুর মানুষ অসমে প্রবেশ করে বসবাস করতে শুরু করে দেয়। অথচ অসমই দেশের মধ্যে একমাত্র রাজ্য যেখানে এনআরসি বা নাগরিকপঞ্জিকরণের (NRC Assam) কাজ সেই ১৯৫১ সালেই প্রথম প্রস্তুত করা হয়েছিল।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)


পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................