বিচারপতি অরুণ মিশ্রের মোদি-বন্দনা! গভীর উদ্বেগের, দাবি বার অ্যাসোসিয়েশনের

সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি অরুণ মিশ্র গত সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রীকে প্রশংসার সুরে ভরিয়ে দিয়েছিলেন। সেই প্রশংসা নিয়ে গভীর উদ্বেগ ও মতভেদ প্রকাশ করল বার অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ডিয়া বা বিএআই।

বিচারপতি অরুণ মিশ্রের মোদি-বন্দনা! গভীর উদ্বেগের, দাবি বার অ্যাসোসিয়েশনের

"বহুমুখী প্রতিভা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি," সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতির করা এই মন্তব্যে উদ্বেগ প্রকাশ বার অ্যাসোসিয়েশনের। (ছবি ফাইল)

হাইলাইটস

  • বিচারপতি অরুণ মিশ্রের মোদি-বন্দনা গভীর উদ্বেগের
  • দাবি করল বার অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ডিয়া
  • সেই বন্দনা বিচারব্যবস্থার স্বাধীনতা খর্ব করবে, দাবি তাদের
নয়া দিল্লি:

সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি অরুণ মিশ্র গত সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রীকে (Prime Minister) প্রশংসার সুরে ভরিয়ে দিয়েছিলেন। সেই প্রশংসা নিয়ে গভীর উদ্বেগ ও মতভেদ প্রকাশ করল বার অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ডিয়া বা বিএআই (Bar Association of India)। বিচারপতির (Justice Arun Mishra) করা মন্তব্য বিচারব্যবস্থার নিরপেক্ষতা ও স্বাধীনতা ধ্বংস করবে। এমন আশঙ্কা প্রকাশ  মঙ্গলবার করেছে বিএআই। তাদের যুক্তি, "একজন বিচারপতির প্রাথমিক দায়িত্ব প্রশাসনের শীর্ষ পদ যারা আসীন, তাঁদের থেকে নিজের দূরত্ব বজায় রাখা।" সেদিন এক বিবৃতিতে বেএআই বলেছে, আন্তর্জাতিক বিচার সম্মেলনের মঞ্চে যে ভাষা বিচারপতি অরুণ মিশ্র ব্যবহার করেছেন, তা সরকারি সৌজন্যের ঊর্ধ্বে। বিবৃতিতে দাবি, "এই ধরণের মন্তব্য বিচারব্যবস্থার নিরপেক্ষতা ও স্বাধীনতা খর্ব করবে। সাধারণ মানুষের বিশ্বাস উঠবে। কারণ অনেক মামলায় প্রশাসনের বিরুদ্ধে দায়ের করা হয়। সেক্ষেত্রে প্রশাসন কিংবা তার শীর্ষ পদাধিকারীদের বিরুদ্ধে রায় দিতে সমস্যায় পড়বেন বিচারপতিরা।"

"বিদ্বেষ ছড়ানোর নেপথ্যে যারা, তাঁদের বিরুদ্ধে এফআইআর," দিল্লি হিংসায় নির্দেশ হাইকোর্টের

তাই গণতান্ত্রিক কাঠামো ধরে রাখতে স্বাধীনতা খবু দরকার। সেই প্রেক্ষিতে বিচারসভার অংশ একজন বিচারপতির উচিত প্রশাসন ও তার শীর্ষ পদাধিকারীদের থেকে দূরত্ব বজায় রাখা।  গত ২২ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক বিচার সম্মেলনের প্রতিনিধি হিসাবে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসায় সরব হয়েছিলেন বিচারপতি মিশ্র।তিনি বলেছিলেন, বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি শনিবার দিল্লির এক আইন সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতেই তাঁর প্রশংসায় সরব হয়েছিলেন বিচারপতি মিশ্র।

“আমার কথায় ভরসা রাখুন” দিল্লির হিংসা কবলিত এলাকায় বললেন অজিত দোভাল

তিনি আরও বলেছেন, উনি (নরেন্দ্র মোদি) একজন বিশ্বস্বীকৃত দিক নির্দেশক। বড় ভাবেন এবং স্থানীয় স্তরে কাজ করেন। ইন্টারন্যাশনাল জুডিশিয়াল কনফারেন্সের অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখতে উঠে শনিবার তিনি আইন মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদের প্রশংসাও করেছিলেন। বিচারপতি অরুণ মিশ্র বলেন, "প্রধানমন্ত্রী আর আইনমন্ত্রী যৌথভাবে ভারতের বিলুপ্তপ্রায় ১৫০০ আইনকে সক্রিয় করেছেন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে বিশ্বমঞ্চের কাছে এখন সমাদৃত ভারত।" সামাজিক পরিবর্তনের নিরিখে বিচারব্যবস্থার ভূমিকা প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে ওই বিচারপতি দাবি করেছেন, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে একাধিক প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন হয় বিচার ব্যবস্থা। সেই প্রতিবন্ধকতাকে দূরে ঠেলেই পরিবর্তিত সমাজ গঠনে ইতিবাচক ভূমিকা রাখে বিচারব্যবস্থা।

Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com