ধর্ষণের মামলায় রেহাই নয়, ‘তহেলকা’র সম্পাদকের আবেদন খারিজ শীর্ষ আদালতে

আক্রান্ত তরুণী অভিযোগ করেন, ইভেন্টটি যে পাঁচতারা হোটেলে হচ্ছিল, তার লিফটের মধ্যে ৫২ বছরের তরুণ তেজপাল তাঁকে নিগ্রহ করেন

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
ধর্ষণের মামলায় রেহাই নয়, ‘তহেলকা’র সম্পাদকের আবেদন খারিজ শীর্ষ আদালতে

গোয়া আদালত তোলা হবে তরুণ তেজপালকে (ফাইল)


নয়াদিল্লি: 

হাইলাইটস

  1. সহকর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগ ‘তহেলকা’-র প্রতিষ্ঠাতা তরুণ তেজপালের বিরুদ্ধে
  2. পুলিশ জানায়, অভিযুক্ত তরুণের অপরাধের সপক্ষে প্রচুর প্রমাণ রয়েছে
  3. তরুণ অবশ্য জানিয়ে দেন, এসবই বিজেপি সরকারের ‘‘রাজনৈতিক প্রতিহিংসা’’

অধস্তন সহকর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্ত ‘তহেলকা'-র (Tahelka) প্রতিষ্ঠাতা তরুণ তেজপালের (Tarun Tejpal) বিচার প্রক্রিয়া বাতিল হবে না বলে জানাল সুপ্রিম কোর্ট (Supreme Court)। সোমবার শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, বর্ষীয়ান সাংবাদিকের উপরে আনা অভিযোগ গুরুতর। তরুণ তেজপাল সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জানিয়েছিলেন, তাঁর বিরুদ্ধে আনা ধর্ষণের অভিযোগ খারিজ করে দেওয়া হোক। আদালত শুধু সেই আবেদনই খারিজ করেনি, পাশপাশি গোয়া আদালতকে ছ'মাসের মধ্যে বিচার শেষ করার নির্দেশ দিয়েছে। ‘তহেলকা'-র প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক তরুণ তেজপালের বিরুদ্ধে অভিযোগ, ২০১৩ সালে গোয়াতে ওই সংবাদ পত্রিকা আয়োজিত একটি ইভেন্ট চলাকালীন তিনি এক মহিলার শ্লীলতাহানি করেন।

আক্রান্ত তরুণী অভিযোগ করেন, ইভেন্টটি যে পাঁচতারা হোটেলে হচ্ছিল, তার লিফটের মধ্যে ৫২ বছরের তরুণ তেজপাল তাঁকে নিগ্রহ করেন।

১২ দিনের পুলিশ হেফাজতে বিরিয়ানি রেস্তোরাঁ মালিকের ছেলে

পরে তরুণী এই অভিযোগ জানিয়ে ‘তহেলকা'-য় তাঁর সিনিয়রদের মেল‌ করেন। মেল করেন তরুণ তেজপাল ও ম্যানেজিং এডিটর সোমা চৌধুরীকেও। সেই মেল ফাঁস হয়ে যায় ও সংবাদমাধ্যমের হাতে চলে এলে ঘটনাটি প্রকাশ্যে চলে আসে।

চাপে পড়ে সম্পাদকের পদ ছাড়েন তরুণ। জানান, তিনি ছ'মাসের জন্য সরে যাচ্ছেন। ২০১৩ সালের নভেম্বরে তিনি গ্রেফতার হন। পরের বছর ২০১৪ সালের মে মাসে তিনি জামিন‌ পান।

‘‘এবার হয়তো ন্যায়বিচার পাব'': পেহলু খানের হত্যাতদন্তে নতুন পদক্ষেপের পরে জানাল তাঁর পরিবার

২,৬৮৪ পাতার চার্জশিট পেশ করা গোয়া ফাস্ট ট্রাক আদালতে। পুলিশ জানায়, অভিযুক্ত তরুণ ওই মহিলার শ্লীলতাহানি করেছেন দু'বার এবং তাঁর অপরাধের সপক্ষে প্রচুর প্রমাণ রয়েছে।

তরুণ অবশ্য জানিয়ে দেন, তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ মিথ্যে। তিনি দাবি করেন, এসবই গোয়ার বিজেপি সরকারের ‘‘রাজনৈতিক প্রতিহিংসা''।

তিনি ২০১৭ সালে মামলা খারিজের আবেদন করেন বম্বে হাইকোর্টে। সেবার আদা‌লত তাঁর অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করার পর এবার সুপ্রিম কোর্টও তাঁর আবেদন খারিজ করে দিল।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................