শ্রীলঙ্কায় বিস্ফোরণে ৫ ভারতীয় সহ ২৯০ জনের মৃত্যু

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
শ্রীলঙ্কায় বিস্ফোরণে ৫ ভারতীয় সহ ২৯০ জনের মৃত্যু

হাইলাইটস

  1. গতকাল পর্যন্ত তিনজন ভারতীয়ের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছিল
  2. আজ জানা গেল মৃতের মধ্যে পাঁচ জন ভারতীয় রয়েছেন
  3. এঁদের মধ্যে আছেন এন চন্দ্রশেখর এবং রমেশ- সহ আরও একজন

 শ্রীলঙ্কার বিস্ফোরণের মৃতদের মধ্যে আছেন ৫  ভারতীয় নাগরিক। এমন কথা জানালেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ(Sushma Swaraj)। মোট আটটি বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে শ্রীলঙ্কা। তাতে শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী ২৯০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে  তিনজন ভারতীয়। গতকাল রাতে  বিদেশমন্ত্রী (Foreign Minister)  টুইটে লেখেন,  ন্যাশনাল হসপিটাল ভারতীয় হাই কমিশনকে জানিয়েছে ঘটনায় তিন ভারতীয় প্রাণ হারিয়েছেন। এঁদের মধ্যে আছেন লক্ষ্মীনি, এন চন্দ্রশেখর এবং রমেশ। বাকি তথ্য জানার কাজ  শুরু করেছি আমরা। তিনি জানান মোট  আটটি বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে কলম্বো। প্রথমে ছ'টি  বিস্ফোরণের খবর মিলেছিল। পরে একটি গেস্ট হাউজ এবং  একটি কলোনিতে হামলা হয়। বিদেশমন্ত্রী লিখেছেন শ্রীলঙ্কার বিদেশমন্ত্রীকে তিনি জানিয়েছেন ভারত সব রকমের সাহায্যের জন্য  তৈরি। আহতদের জন্য ওষুষ দরকার হলে তাও পাঠাতে পারে ভারত। পাশাপাশি ভারতীয়দের জন্য শ্রীলঙ্কার  হাই কমিশন সমস্ত ব্যবস্থা করে রেখেছে  বলেও জানান সুষমা। পরে মৃতের সংখ্যা  আরও বাড়ে।        

কলম্বোর গির্জা ও হোটেলে ধারাবাহিক বিস্ফোরণ মৃত ২০৭ ,আহত ৪০০

বিদেশমন্ত্রী লিখেছেন শ্রীলঙ্কার বিদেশমন্ত্রীকে তিনি জানিয়েছেন ভারত সব রকমের সাহায্যের জন্য  তৈরি। আহতদের জন্য ওষুষ দরকার হলে তাও পাঠাতে পারে ভারত। পাশাপাশি ভারতীয়দের জন্য শ্রীলঙ্কার  হাই কমিশন সমস্ত ব্যবস্থা করে রেখেছে  বলেও জানান সুষমা। এই ঘটনায় জড়িত সন্দেহে    সাত জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন শ্রীলঙ্কার প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রুয়ান বিজয়বর্ধনে।  তিনি জানান বেশির ভাগ বিস্ফোরণের নেপথ্যে আছে আত্মঘাতী জঙ্গিরা। এদিকে শ্রীলঙ্কার গির্জায় যে হামলা হতে পারে দশ দিন আগেই তার ইঙ্গিত পেয়েছিল পুলিশ। সতর্কবার্তা জারি করেছিলেন শ্রীলঙ্কার পুলিশ প্রধান। তাঁর বক্তব্য  উদ্ধৃত করে এ কথাই  বলেছে সংবাদ সংস্থা এএফপি।

শ্রীলঙ্কার বিস্ফোরণের তীব্র নিন্দা করে প্রধানমন্ত্রী বললেন এমন বর্বরতার জায়গা নেই

পুলিশ প্রধান পি জয়াসুন্দরা ১১ এপ্রিল এই মর্মে পুলিশ আধিকারিকদের সতর্ক বার্তা পাঠান। ওই সতর্কবার্তায় লেখা হয়েছিল, এনটিজে নামে একটি  সংগঠন দেশের বিশিষ্ট গির্জায় হামলার চেষ্টা করছে। ভারতীয় হাই  কমিশনও তাদের নজরে আছে।  এনটিজে একটি ইসলামিক  চরমপন্থী সংগঠন। কিছু দিন আগে  শ্রীলঙ্কার বিভিন্ন জায়গায় বৌদ্ধ ধর্মের স্থাপত্যের উপর আক্রমণ নেমে আসে। একাধিক মূর্তি ভেঙে ফেলা হয়। সেই ঘটনায় এই সংগঠনের নাম জড়িয়েছিল।

                      

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................