''যে ভারতকে আমরা চিনি, ভালোবাসি, এখানেই...'' সংশোধনী বিল নিয়ে মুখ খুললেন সোনি রাজদান

Citizenship Amendment Bill: অভিনেত্রী রিচা চাড্ডা সবটাই ছেড়ে দিয়েছেন ভগবানের ভরসায়

''যে ভারতকে আমরা চিনি, ভালোবাসি, এখানেই...'' সংশোধনী বিল নিয়ে মুখ খুললেন সোনি রাজদান

Citizenship Amendment Bill: শুধুমাত্র সোনি রাজদান নন, তার পাশাপাশি এই বিল সম্পর্কে গৌহর খান, স্বরা ভাস্কর এবং রিচা চড্ডাও নিজেদের মতামত প্রকাশ করেছেন

হাইলাইটস

  • সংশোধনী বিল নিয়ে টুইট করলেন সোনি রাজদান
  • 'এটা-কে ভারতের শেষ' বলে আখ্যা দিয়েছেন তিনি
  • এই টুইট বর্তমানে আলোচনার বিষয় হয়ে উঠেছে
নিউ দিল্লি:

বিরোধীদের বহু আপত্তি, হইচই ও তর্কবিতর্কের মধ্যেই গভীর রাতে লোকসভায় সংশোধনী বিল পাস হয়ে গেলো। ৩১১-৮০ ব্যবধানে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাস করিয়ে নেয় মোদি সরকার। নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল-এ বলা হয়েছে, সারা দিন ধরে বহু তর্কবির্তক চলে, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah) প্রত্যেক সদস্যের প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার সময় জানান যে, লক্ষাধিক শরণার্থীদের দুর্বিষহ জীবন থেকে মুক্তি দেওয়ার একমাত্র রাস্তা হল এই বিল। তবে এই বিষয়ে মতামত জানানোর ব্যাপারে সাধারণ মানুষের পাশাপাশি বলিউডের সেলিব্রেটিরাও পিছিয়ে থাকেননি। তবে আলিয়া ভাটের মা সোনি রাজদান (Soni Razdan)-এর টুইট বর্তমানে আলোচনার বিষয় হয়ে উঠেছে।

নাগরিক বিলের বিরোধিতায় ১১ ঘণ্টা স্তব্ধ দেশের উত্তর পূর্বাঞ্চল

নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল সম্পর্কে মতামত প্রকাশের সময়, 'এটা-কে ভারতের শেষ' বলে আখ্যা দিয়েছেন তিনি। অভিনেত্রীর এই টুইট চারদিকে বেশ সাড়া ফেলেছে, অনেকেই তার টুইটের সঙ্গে সঙ্গে নিজেদের বক্তব্য পেশ করেছেন। ''যে ভারতকে আমরা চিনি, ভালোবাসি, এখানেই সেই ভারতের শেষ...'', শুধুমাত্র সোনি রাজদান নন, তার পাশাপাশি এই বিল সম্পর্কে গৌহর খান, স্বরা ভাস্কর এবং রিচা চড্ডাও নিজেদের মতামত প্রকাশ করেছেন। এই দিনটিকে গৌহর খান ভারতের সংবিধানের সবচেয়ে দুঃখজনক দিন বলে উল্লেখ করেছেন।  অন্যদিকে স্বরা ভাস্কর জানিয়েছেন ''এটি লজ্জাজনক'' দিন। অভিনেত্রী রিচা চাড্ডা সবটাই ছেড়ে দিয়েছেন ভগবানের ভরসায়।

সারা দিন ধরে বহু বিতর্কের পর, মাঝরাতে লোকসভায় পাস নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল

প্রসঙ্গত, এই বিল পাসের সময় যা ঘটেছে তার মধ্যে সবচেয়ে বড়ো বিষয় হল, এনডিএ বহির্ভূত বেশ কিছু দলও সমর্থন জানিয়েছে বর্তমান সরকারকে। লোকসভায় ভোটাভুটি চলাকালীন সংযুক্ত জনতা দল, বিজু জনতা দল, শিবসেনা, এআইডিএমকে, তেলেঙ্গানা রাষ্ট্রীয় সমিতি প্রভৃতি দল নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলকে তাদের সমর্থন জানিয়েছে। এর থেকে একটা বিষয় অতি সহজেই বোঝা যাচ্ছে যে, রাজ্যসভায় এই বিল পাশ করা এখন শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা ছাড়া আর কিছুই নয়। অন্যদিকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ জানিয়েছেন, শরণার্থীদের নাগরিকত্ব প্রদানের বিষয়ে এই বিল গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। তাঁর মতে এই বিল কোনও ভাবেই অসংবিধানিক নয়, এবং ১৪ নং ধারার কোনও অবমাননা করা হয়নি বলেই দাবি জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী। 

More News