সুষমা স্বরাজের প্রয়াণের পরে আবেগঘন টুইট বার্তা স্মৃতি ইরানির

Sushma Swaraj Death: অনেকেই জানিয়েছেন, বর্ষীয়ান নেত্রীর হাত ধরেই তাঁদের রাজনীতির ময়দানে পদার্পণ। এরপর সংসদ ও সরকারের অংশ হয়ে ওঠাতেও তিনি ছিলেন তাঁদের ‘মেন্টর’।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
সুষমা স্বরাজের প্রয়াণের পরে আবেগঘন টুইট বার্তা স্মৃতি ইরানির

Sushma Swaraj Death: নেত্রীর অসুস্থার খবর পেয়েই ছুটে এসেছিলেন স্মৃতি ইরানি


নয়াদিল্লি: 

হাইলাইটস

  1. মঙ্গলবার রাতেই খবর পেয়ে হাসাপাতালে চলে আসেন স্মৃতি ইরানি
  2. মোদি সরকারের প্রথম পর্যায়ে তাঁরা দু’জনই ছিলেন মন্ত্রিসভার সদস্য
  3. সুষমার প্রয়াণের পর টুইটে গভীর শোকপ্রকাশ করেন স্মৃতি

প্রাক্তন বিদেশমন্ত্রী ও বিজেপি নেত্রী সুষমা স্বরাজের (Sushma Swaraj) আকস্মিক মৃত্যুতে (Sushma Swaraj death) গভীর শোকাহত তাঁর দল বিজেপির বহু নেতা। অনেকেই জানিয়েছেন, বর্ষীয়ান নেত্রীর হাত ধরেই তাঁদের রাজনীতির ময়দানে পদার্পণ। এরপর সংসদ ও সরকারের অংশ হয়ে ওঠাতেও তিনি ছিলেন তাঁদের ‘মেন্টর'। তাঁদের অন্যতম কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি (Smriti Irani)। মঙ্গলবার সুষমার অসুস্থ হয়ে এইমসে ভর্তি হওয়ার খবর শোনার পর যে বিজেপির নেতানেত্রীরা দ্রুত হাসপাতালে পৌঁছে গিয়েছিলেন, স্মৃতি ছিলেন তাঁদের অন্যতম। সুষমার প্রয়াণের (Sushma Swaraj death) পরে যে টুইট করেন স্মৃতি তাতে ফুটে উঠেছে তাঁর গভীর শোকের ছায়া। তিনি লেখেন, ‘‘আমার একটা নালিশ রইল দিদি। আপনি বাঁশুরিকে বলেছিলেন একটি রেস্তোরাঁ ঠিক করতে যেখানে আপনি আমাকে নিয়ে যাবেন উদযাপনের লাঞ্চ করাতে। আমাদের দু'জনের কাছে করা সেই প্রতিশ্রুতি না রেখেই আপনি চলে গেলেন।'' প্রসঙ্গত, বাঁশুরি স্বরাজ হলেন প্রয়াত নেত্রীর মেয়ে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সরকারের প্রথম পর্যায়ে সুষমা স্বরাজ ও স্মৃতি ইরানি ছিলেন মন্ত্রিসভার সদস্য।

তিন বছর আগে, সুষমার কিডনি প্রতিস্থাপন হয়। শারীরিক অসুস্থতা থাকার কারণেই ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে তিনি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেননি।

o1os8lqo

তাঁর মৃত্যুর পরে প্রধানমন্ত্রী টুইট করে জানান, "এমন একজন নেত্রীর প্রয়াণে গোটা ভারত মর্মাহত, তিনি তাঁর জীবন জনসেবা এবং দরিদ্রদের জীবনকে উন্নত করার জন্য উৎসর্গ করেছিলেন। সুসমা স্বরাজ এমন এক ধরণের ব্যক্তিত্ব ছিলেন, যিনি কোটি কোটি মানুষের অনুপ্রেরণার উৎস ছিলেন।"

মঙ্গলবার রাত ৯টায় ৬৭ বছরের সুষমা স্বরাজ অসুস্থতা অনুভব করেন। ৯.৩০-তে তাঁকে এইমসে নিয়ে আসা হয় অ্যাম্বুল্যান্সে। ৭০ থেকে ৮০ মিনিট চিকিৎসকদের একটি দল অনেক চেষ্টা করেও শেষ পর্যন্ত ব্যর্থ হন। ১০.৫০-এ তাঁকে মৃত ঘোষণা করা হয়।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................