জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে মার্কিন প্রস্তাবের প্রশংসা করায় বিজেপির আক্রমণ শশী থারুরকে

মার্কিন কংগ্রেস প্রস্তাবিত ওই আর্জি প্রসঙ্গে শশী থারুর টুইট করেন। সেই টুইটে তিনি আমেরিকার এই প্রস্তাবের প্রশংসা করেন। 

জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে মার্কিন প্রস্তাবের প্রশংসা করায় বিজেপির আক্রমণ শশী থারুরকে

বিজেপির আক্রমণের পরে পাল্টা দিলেন শশী থারুরকে । (ফাইল)

হাইলাইটস

  • মার্কিন প্রস্তাবের প্রশংসা করায় বিজেপির আক্রমণ শশী থারুরকে
  • বিজেপির দুই সাংসদ শোভা কারান্ডলাজে ও তেজস্বী সূর্য শশীকে কটাক্ষ করেন
  • মার্কিন সাংসদরা জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে ভারতের কাছে প্রস্তাব পেশ করেছেন
নয়াদিল্লি:

দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে রাজনীতির রং লাগাতে পারার সুযোগ পেলে কংগ্রেস কখনও তা ছাড়ে না। রবিবার এই ভাষাতেই  কংগ্রেসকে আক্রমণ করল বিজেপি। কংগ্রেস সাংসদ শশী থারুরের টুইটকে কেন্দ্র করেই এই মন্তব্য বিজেপির। শশী তাঁর টুইটে প্রশংসা করেন মার্কিন ‘হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভস'-এ জম্মু ও কাশ্মীরে জারি নিষেধাজ্ঞা নিয়ে প্রস্তাব পেশ হওয়ার পরে। বিজেপির সমালোচনার পর পাল্টা টুইট করলেন শশী। তিনি অভিযোগ করলেন বিজেপি ইচ্ছাকৃত ভাবে বিষয়টিকে বিকৃত করছে। তিনি টুইটে জানান, ‘‘বিজেপির ইচ্ছাকৃত ভাবে আমার টুইটের ভুল ব্যাখ্যায় অবাক হয়েছি, সংসদ এই ইস্যুটিকে নিয়ে আলোচনা করতে পারল না এটা লজ্জাজনক। অথচ বিদেশি সাংসদরা করল। এটাই শ্র্দ্ধার বিষয় যে মার্কিন কংগ্রেস পারে আমাদের সাংসদরা পারে না।''

এর আগে বিজেপির দুই সাংসদ শোভা কারান্ডলাজে ও তেজস্বী সূর্য শশী থারুরকে ওই টুইটের জন্য কটাক্ষ করেন।

বিজেপি সাংসদ শোভা কারান্ডলাজে টুইট করে জানান, ‘‘ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে আমেরিকার হস্তক্ষেপকে আপনি শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন এটা লজ্জাজনক। এই প্রথম জম্মু ও কাশ্মীর প্রত্যক্ষ করছে কম সন্ত্রাসমূলক ঘটনা। মানুষ নিজেকে নিরাপদ মনে করছে। কিন্কু কংগ্রেস দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে রাজনীতির রং লাগাতে পারার সুযোগ পেলে কখনও ছাড়ে না।''

আমেরিকার ‘হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভস'-এ একটি দ্বিদলীয় সমাধানের প্রস্তাব পেশ করা হয়, যেখানে ভারতকে জম্মু ও কাশ্মীরের যোগাযোগের নিষেধাজ্ঞা এবং জনবন্দি করে রাখার বিষয় তুলে নেওয়ার আর্জি জানানো হয়। ৭৪৫ নম্বর সমাধানটি শুক্রবার পেশ করেন ভারতীয়-মার্কিন ডেমোক্র্যাট সাংসদ প্রমীলা জয়পাল ও রিপাবলিকান সাসংদ স্টিভ ওয়াটকিনস। গত ৫ আগস্ট সংসদের ৩৭০ ধারা তুলে নিয়ে জম্মু ও কাশ্মীরের ‘স্পেশাল স্ট্যাটাস' তুলে নেওয়া হয়। সেই সময় থেকে রাজনৈতিক নেতাদের বন্দি করে রাখা হয়েছে। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন তিনজন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি ইন্টারনেটও বন্ধ করে রাখা হয়েছে বহু অংশে।

মার্কিন কংগ্রেস প্রস্তাবিত ওই আর্জি প্রসঙ্গে শশী থারুর টুইট করেন। সেই টুইটে তিনি আমেরিকার এই প্রস্তাবের প্রশংসা করেন।