বাংলায় এনআরসি নিয়ে ভীতি তৈরির জন্য বিজেপিকে ধিক্কার, বললেন মুখ্যমন্ত্রী

১৯৮৫ সালে অসম চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছিল তৎকালীন রাজীব গান্ধি কেন্দ্রীয় সরকার ও ‘অল অসমস স্টুডেন্টস' ইউনিয়নের মধ্যে।

বাংলায় এনআরসি নিয়ে ভীতি তৈরির জন্য বিজেপিকে ধিক্কার, বললেন মুখ্যমন্ত্রী

মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূলনেত্রী দাবি করেন, এর ফলে রাজ্যে ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে

কলকাতা:

অসমে জাতীয় নাগরিকপঞ্জী (NRC) চালু করা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ সরেছে বিভিন্ন মহলের ব্যক্তিত্ত্বরা। জাতীয় নাগরিকপ়ঞ্জীর নামে বিজেপির বিরুদ্ধে মানুষের মনে ভীতি তৈরিরও অভিযোগ তুলেছেন  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) । সোমবার, শ্রমিক সগংঠনের একটি অনুষ্ঠানে হাজির হয়ে, বিজেপির বিরুদ্ধে  এনআরসির নামে ভীতি তৈরির অভিযোগ তুলে, মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূলনেত্রী দাবি করেন, এর ফলে রাজ্যে ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রী কোনোভাবেই এনআরসি কার্যকর হতে দেবেন না বলেও জানিয়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, “বাংলা বা দেশের আর কোনও জায়গায় এনআরসি হবে না, এটা অসম চুক্তি অনুযায়ী সেখানে সেখানে জাতীয় নাগরিকপঞ্জী করা হয়েছে”।

১৯৮৫ সালে অসম চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছিল তৎকালীন রাজীব গান্ধি কেন্দ্রীয় সরকার ও ‘অল অসমস স্টুডেন্টস' ইউনিয়নের মধ্যে। তার আগে ছ'বছর ধরে সেখানে আন্দোলন হয়েছিল বাংলাদেশ থেকে আগত অনুপ্রবেশকারীদের বিরুদ্ধে। অভিযোগ ছি‌ল, তারা বেআইনি ভাবে এখানে বসবাস করছেন।

“পরেরবার ট্রাম্পের সরকার”, হাউস্টনে বললেন প্রধানমন্ত্রী মোদি

মমতা এদিন বলেন, ‘‘বাংলায় এনআরসি নিয়ে ভীতি তৈরির জন্য বিজেপিকে ধিক্কার। এর ফলে ছ'জনের মৃত্যু হয়েছে। আমার উপরে বিশ্বাস রাখুন। আমি এটা বাংলায় হতে দেব না।''

অসমে নাগরিক পঞ্জি থেকে বাদ পড়েছেন ১৯ লক্ষেরও বেশি মানুষ।

"২০২১ সালের আদমশুমারিতে মোবাইল অ্যাপ ব্যবহার করা হবে": অমিত শাহ

মুখ্যমন্ত্রী এদিন বিজেপিকে আক্রমণ করে বল‌েন, ‘‘বাংলায় গণতনত্র্ রয়েছে। কিন্তু দেশের বাকি অংশের মতো তা বিপন্ন।'' তিনি অভিযোগ করেন, বিজেপি গণতান্ত্রিক মূল্যবোধকে অবমাননা করছে।

মমতা অভিযোগ করেন, বিজেপি বেকারত্ব বা দেশের অর্থনীতির পিছিয়ে পড়ার কথা বলছে না। তারা কেবল নিজেদের রাজনৈতিক স্বার্থ চরিতার্থ করছে।

তিনি বলেন, ‘‘১৮ অক্টোবর একটি মিছিল বের করা হবে দেশজুড়ে সরকারি ক্ষেত্রের বেসরকারিকরণ ও তা বন্ধ করে দেওয়ার প্রতিবাদে। আমি এতে অংশ নেব।''

গত বৃহস্পতিবার বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে গেলে বিক্ষোভের মুখে পড়েন। মমতা বলেন, বাংলার মানুষ দেখেছে ওরা (বিজেপি ও এবিভিপি) ওখানে কী করেছে।

তিনি আরও বলেন, ‘‘ওরা সর্বত্র ক্ষমতা দেখাতে চাইছে। সব কিছু গুঁড়িয়ে দিতে চাইছে।''

সংবাদমাধ্যমের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলে মমতা বলেন, বিজেপি সরকারের কাছে নত হয়েছে সংবাদমাধ্যম।

তিনি বলেন, ‘‘সংবাদমাধ্যম সেই ভূমিকা পালন করছে না, যা তাদের করা উচিত। অল্প কিছু ছাড়া বারি মিডিয়া হাউসগুলি বিজেপি সরকারের কাছে নত হয়েছে।''

দেখুন ভিডিও

p>



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)
More News