প্রিয়াঙ্কা গান্ধির বাড়িতে নিরাপত্তায় ঘাটতি, সপরিবার গাড়ি ঢুকল বাড়িতে, তুলতে চাইল ছবি

প্রিয়াঙ্কা গান্ধির নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকে এসপিজি, যা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিরও নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকে, সম্প্রতি তা কমিয়ে জেড প্লাস করা হয়

দিল্লির লোধি এস্টেটের বাড়িতে প্রিয়াঙ্কা গান্ধির বাড়িতে নিরাপত্তার গাফিলতি ঘটে

নয়াদিল্লি:

কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধির (Priyanka Gandhi Vadra) মধ্য দিল্লির লোধি এস্টেটের বাড়িতে গাড়ি চালিয়ে ঢুকে পড়ল একটি পরিবার, ফলে নিরাপত্তার ঘাটতি নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন, সূত্রের খবর এমনই। প্রিয়াঙ্কা গান্ধির নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা এসপিজি, এই বাহিনী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিরও নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকে, সম্প্রতি তা কমিয়ে জেড প্লাস করা হয়, যেখানে থাকেন বেশী সংখ্যায় আধা সামরিক কেন্দ্রীয় রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের জওয়ান। NDTV কে প্রিয়াঙ্কা গান্ধির দফতর থেকে জানানো হয়েছে, ২৫ নভেম্বর নিরাপত্তার গাফিলতির ঘটনা ঘটে। সূত্রের খবর, প্রিয়াঙ্কা গান্ধির বাড়ির বাগানের কাছে চলে আসে ওই পরিবারের গাড়িটি। পরে নেত্রীর সঙ্গে ছবি তোলার ইচ্ছে প্রকাশ করেন পরিবারের সদস্যরা।

সংশোধনের পর, এবার শুধুমাত্র প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবনেই থাকবে এসপিজি

বাগানের দিকে সোজা হেঁটে চলে যান ওই পরিবারের সদস্যরা, এবং কংগ্রেস নেত্রীকে তাঁদের সঙ্গে ছবি তুলতে বলেন বলে সূত্রের খবর। আরও জানা গিয়েছে, তাঁর সঙ্গে ছবি তুলতেই উত্তরপ্রদেশের একটি শহর থেকে তাঁরা এসেছেন।

যেহেতু আগে থেকে দেখা করার কোনও অ্যাপয়েন্টমেন্ট ছিল না, ফলে হতবাক হয়ে যান প্রিয়াঙ্কা গান্ধি। নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সিআরপিএফ জওয়ানদেরও কারও সাক্ষাৎ-রয়েছে, সে ব্যাপারে জানানো হয়নি। কীভাবে তাঁকে না জানিয়ে তাঁরা ভিতরে এলেন, দর্শনপ্রার্থীদের থেকে তা জানতে চান প্রিয়াঙ্কা গান্ধি, তাও গাড়ি চালিয়ে ভিতরে ঢুকে।

যেইমাত্র সিআরপিএফ জওয়ানরা বুঝতে পারেন, কী ঘটেছে, সূত্রের খবর সঙ্গে সঙ্গেই সাক্ষাৎ প্রার্থীদের নিরাপত্তাকর্মীরা ঘিরে ফেলেন এবং পুরো চত্বরে সতর্কবার্তা পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

“রাজনীতির অঙ্গ”, এসপিজি প্রত্যাহার নিয়ে বললেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধি বঢ়রা

সূত্রের মারফৎ জানা গিয়েছে, এটা সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি নিরাপত্তা গাফিলতির ক্ষেত্রে, শুধুমাত্র তাদের গাড়ি নিয়ে ভিতরে ঢোকাই নয়, তাঁদের পরিচয়পত্রও পরীক্ষা করা হয়নি।

প্রিয়াঙ্কা গান্ধির দফতরের এক পদস্থ আধিকারিক বলেন, “হ্যা, এমনটা হয়েছে, তবে কোনও ক্ষতি হয়নি। তিনি তাঁদের সঙ্গে ভালভাবে কথা বলেন, ছবি তোলেন, এবং তাঁরা ফিরে যান। তবে তারপর, বিষয়টি সিআরপিএফ জওয়ানদের জানিয়েছেন অন্যান্যরা”।

প্রিয়াঙ্কা গান্ধি এবং তাঁর মা সনিয়া গান্ধির এসপিজি নিরাপত্তাবাহিনী প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়, রাহুল গান্ধিরও এসপিজি সুরক্ষা প্রত্যাহার করা হয়, এখন তাঁরা রয়েছেন জেড প্লাস ক্যাটাগরির নিরাপত্তায়, যেখানে নিরাপত্তার দায়িত্বে ১০০জন।

More News