“দ্বিতীয় কক্ষ, গৌণ নয়”, রাজ্যসভায় বাজপেয়ির মন্তব্য তুলে ধরলেন প্রধানমন্ত্রী

রাজ্যসভা নির্বাচনী রাজনীতি থেকে দূরে থাকার সুযোগ করে দেয় এবং দেশ ও তার উন্নয়নে অবদান রাখতে সাহায্য করে

রাজ্যসভার ২৫০তম অধিবেশন উপলক্ষ্যে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

নয়াদিল্লি:

রাজ্যসভায় (Rajya Sabha) দ্বিতীয় কক্ষ হতে পারে, তবে গুরুত্বে দ্বিতীয় নয়, সোমবার সংসদের উচ্চকক্ষ ২৫০ অধিবেশনে পা দিল, সেই উপলক্ষ্যে বক্তব্য রাখতে গিয়ে এমনই মন্তব্য করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi) । তিনি বলেন, রাজ্যসভায় থাকেন রাজ্যের প্রতিনিধিরা, এবং বিজ্ঞান, কলা এবং ক্রীড়াক্ষেত্রের বিশিষ্টরা উপস্থিত থাকেন এই কক্ষে, যাঁরা গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত হন না। প্রধানমন্ত্রী বলেন, “কেন্দ্রীয় এবং রাজ্য সরকারের  রেষারেষিকরা উচিত নয়, তবে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে একসঙ্গে কাজ করা উচিত। রাজ্য ও দেশের অগ্রগতি ভিন্নার্থক নয় এবং একে অপরের সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত। এই কক্ষ  আমাদের সেই শিক্ষা এবং অনুপ্রেরণা জোগায়”।

প্রধানমন্ত্রী মোদি বলেন, “সভায় ভেবেছিল, রাজ্যসভায় আটকে যাবে তিন তালাক বিল, তবে এটা এই কক্ষের সাবালকতা যে, বিলটি পাশ হয়ে গিয়েছে এবং সেটি আইনে পরিণত হয়েছে। একই ঘটনা হয়েছে, ৩৭০ ধারা এবং ঐতিহাসিক পণ্য ও পরিষেবা করের ক্ষেত্রেও”।

এটার কারণ, রাজ্যসভা নির্বাচনী রাজনীতি থেকে দূরে থাকার সুযোগ করে দেয় এবং দেশ ও  তার উন্নয়নে অবদান রাখতে সাহায্য করে।

প্রয়াত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারি বাজপেয়ির মন্তব্য তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী মোদি বলেন, ২০০৩-এ রাজ্যসভার ২০০তম অধিবেশনে তিনি বলেছিলেন, “আমাদের দ্বিতীয় কক্ষকে গৌণ কক্ষ বলে মনে করার মতো ভুল কারও করা উচিত নয়। এটি ভারতের উন্নয়নের পক্ষে একটি সহায়ক কক্ষ”।

১৯৫২ সালের মে মাসে প্রথম রাজ্যসভার অধিবেশন হয়। এত বছরে প্রায় ৪,০০০ এরও বেশী বিল পাশ হয়েছে রাজ্যসভায়।

More News