West Bengal Governor


'West Bengal Governor' - 20 News Result(s)

  • রাজ্যপালের মন্তব্যকে মানুষ পছন্দ করছেন না, সৌজন্যের অভাব রয়েছে তাঁর: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

    রাজ্যপালের মন্তব্যকে মানুষ পছন্দ করছেন না, সৌজন্যের অভাব রয়েছে তাঁর: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

    টিভিতে মুখ দেখাতে আগ্রহী রাজ্যপাল, কীভাবে প্রচারে থাকবেন তার সুযোগ খুঁজতে থাকেন তিনি (Governor Jagdeep Dhankhar) , এভাবেই রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়কে আক্রমণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি (Mamata Banerjee) আরও বলেন যে, রাজ্যের (West Bengal) মানুষ তাঁর এই ধরণের "উক্তি এবং সৌজন্যতার অভাব" মোটেই পছন্দ করেন না।

  • মুখ্যমন্ত্রী মমতা আমাকে 'তু চিজ বড়ি হ্যায় মস্ত মস্ত' বলেছেন: রাজ্যপাল জগদীপ ধনখর

    মুখ্যমন্ত্রী মমতা আমাকে 'তু চিজ বড়ি হ্যায় মস্ত মস্ত' বলেছেন: রাজ্যপাল জগদীপ ধনখর

    পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে একাধিক টুইট করে বলেন যে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাকে ‘তু চিজ বড়ি হ্যায় মস্ত মস্ত’ হিসাবে উল্লেখ করেছেন। একটি টুইটে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখর একটি বাংলা দৈনিকের ভিডিও ক্লিপিং পোস্ট করেন যেখানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যপাল সম্পর্কে কথা বলার সময় তার নাম উল্লেখ না করেই ১৯৯৪ সালের বিখ্যাত বলিউডি চলচ্চিত্র ‘মোহরা’ র এই জনপ্রিয় গানের প্রথম লাইনটি উল্লেখ করেন।

  • রাজ্য সরকারকে পার্শ্ব শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনায় বসার আহ্বান জানালেন রাজ্যপাল

    রাজ্য সরকারকে পার্শ্ব শিক্ষকদের  সঙ্গে আলোচনায় বসার আহ্বান জানালেন রাজ্যপাল

    রাজ্যের (West Bengal) পার্শ্ব শিক্ষকদের দাবি দাওয়া নিয়ে তাঁদের সঙ্গে আলোচনায় বসুক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার, এমনটাই চান রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। বেতন বৃদ্ধির দাবিতে অনির্দিষ্টকালীন অনশনে বসেছেন রাজ্যের পার্শ্ব শিক্ষকরা। সেই অনশন চলাকালীনই শুক্রবার রাজ্য সরকারকে সমস্যার সমাধানের লক্ষ্যে তাঁদের (Para-Teacher) সঙ্গে আলোচনায় বসার আহ্বান জানালেন রাজ্যপাল । তিনি (Governor Jagdeep Dhankhar) টুইট করে বলেন, "@ মমতাঅফিশিয়াল। আমি দেখছি যে গত ১১ নভেম্বর থেকে এক হাজারেরও বেশি পার্শ্ব শিক্ষক আন্দোলন করছেন এবং তাঁদের মধ্যে ৩৭ জন শুক্রবার থেকে অনির্দিষ্টকালের উপবাসে রয়েছেন। আমি এ বিষয়ে সবপক্ষকেই আলোচনায় বসার আহ্বান জানাচ্ছি"।

  • ‘‘লক্ষ্মণরেখা অতিক্রম করা উচিত নয়’’, আবারও রাজ্য সরকারকে বিঁধলেন রাজ্যপাল

    ‘‘লক্ষ্মণরেখা অতিক্রম করা উচিত নয়’’, আবারও রাজ্য সরকারকে বিঁধলেন রাজ্যপাল

    গত জুলাই মাসে রাজ্যের রাজ্যপাল হন জগদীপ ধনখড়। তারপর থেকে রাজ্য সরকারের সঙ্গে প্রায়ই কথার লড়াইয়ে জড়িয়ে পড়তে দেখা গিয়েছে তাঁকে।

  • শ্রদ্ধেয় শিক্ষকদের বকেয়া পাওনা মিটিয়ে দেওয়া উচিত: রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়

    শ্রদ্ধেয় শিক্ষকদের বকেয়া পাওনা মিটিয়ে দেওয়া উচিত: রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়

    সম্প্রতি যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির (Jadavpur University Teachers' Association JUTA) প্রতিনিধি দল রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে ইউজিসির সংশোধিত বেতন কাঠামোর বাস্তবায়ন বিষয়ে আলোচনা করেন। আর তারপরেই শিক্ষকদের হয়ে মন্তব্য করলেন রাজ্যপাল (Jagdeep Dhankhar)।

  • স্বাস্থ্য নিয়ে রাজনীতি করা উচিত নয়, বললেন রাজ্যপাল

    স্বাস্থ্য নিয়ে রাজনীতি করা উচিত নয়, বললেন রাজ্যপাল

    কেন্দ্রের স্বাস্থ্য প্রকল্প আয়ুষ্মান ভারত যোজনা (Ayushman Bharat Yojana) থেকে বঞ্ছিত এরাজ্যের মানুষ, বৃহস্পতিবার এমনই মন্তব্য করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর (Jagdeep Dhankhar), পাশাপাশি জোর দিয়ে বললেন “এই ধরণের বিষয় নিয়ে রাজনীতি করা উচিত নয়”। রাজ্যপালের দাবি, সত্ত্বর স্বাস্থ্য সহায়তার জন্য রাজ্যজুড়ে ৩,০০০ আবেদনপত্র পেয়েছেন।

  • সন্ত্রাসের নিন্দা করুন, তবে এতে রাজনীতির রং দেবেন না,অনুরোধ রাজ্যপালের

    সন্ত্রাসের নিন্দা করুন, তবে এতে রাজনীতির রং দেবেন না,অনুরোধ রাজ্যপালের

    সন্ত্রাসের নিন্দা অবশ্যই করুন কিন্তু দয়া করে এটা নিয়ে রাজনীতি করবেন না. রাজ্যের রাজনৈতির দলগুলির উদ্দেশে এমন বার্তাই দিতে শোনা গেল রাজ্যপাল জগদীপ ধনকরকে। রাজ্যপালের (Jagdeep Dhankhar) কাছে জম্মু ও কাশ্মীরের (Jammu and Kashmir) কুলগামে সন্ত্রাসহানায় রাজ্যের ৫ শ্রমিকের মৃত্যুর প্রসঙ্গে জানতে চাওয়া হলে ওই বার্তা দেন তিনি। রাজ্যপাল বলেন যে "যে কোনও জায়গায়, স্থানীয় বা অন্য কোথাও" হিংসার ঘটনা অবশ্যই নিন্দনীয়। "স্থানীয় বা অন্য কোথাও হওয়া যে কোনও হিংসার ঘটনার নিন্দা করা উচিত। আমরা যদি সর্দার প্যাটেলের মন্ত্রে বিশ্বাস করি তবে আমাদের কখনোই হিংসার ঘটনা নিয়ে রাজনীতি করা উচিত নয়", বলেন ধনকর। "এটা অত্যন্ত নিন্দনীয় ঘটনা, আমার হৃদয়ও এই ঘটনায় রক্তাক্ত হয়েছে", বলেন রাজ্যপাল।

  • মুখ্যমন্ত্রীর কালীপুজোয় অংশ নিতে পেরে নিজেকে "আশীর্বাদধন্য" মনে করছেন রাজ্যপাল

    মুখ্যমন্ত্রীর কালীপুজোয় অংশ নিতে পেরে নিজেকে "আশীর্বাদধন্য" মনে করছেন রাজ্যপাল

    ক্রমশই যখন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর ও রাজ্য সরকারের মধ্যে সম্পর্ক উত্তপ্ত হয়ে উঠছিল, ঠিক সেই সময় যেন রাজনীতির আঙিনায় সৌহার্দ্যের বন্ধন তৈরি করে দিল উৎসব। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়ির কালীপুজোয় সস্ত্রীক অংশ নিলেন রাজ্যপাল। কালীপুজো উপলক্ষে রাজ্যপাল (West Bengal governor) জগদীপ ধনকরকে নিজের বাড়িতে আমন্ত্রণ জানান তৃণমূল নেত্রী (Mamata Banerjee) এবং সেই আমন্ত্রণ রক্ষা করে ধনকর কালীঘাটে গেলে তাঁকে (Jagdeep Dhankhar) আন্তরিক অভ্যর্থনা জানান মমতা। সস্ত্রীক রাজ্যপালকে মিষ্টিমুখও করান মুখ্যমন্ত্রী।

  • কথা রেখে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির পুজোয় সস্ত্রীক রাজ্যপাল

    কথা রেখে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির পুজোয় সস্ত্রীক রাজ্যপাল

    পূর্ব নির্ধারিত সেই কথা রেখে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে পা রাখলেন সস্ত্রীক রাজ্যপাল জগদীপ ধনকার। ধর্মে যে রাজনীতির জায়গা নেই সেই কথাই যেন আরও একবার স্মরণ করালেন তিনি।

  • মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়ির কালীপুজোয় যোগ দিচ্ছেন রাজ্যপাল

    মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়ির কালীপুজোয় যোগ দিচ্ছেন রাজ্যপাল

    উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার বারাসতের একটি ক্লাবে কালীপুজোর উদ্বোধন করার সময় ধনকর (West Bengal Governor) জানান যে ১৯৭৮ সাল থেকে প্রতিবছর নিজের বাড়িতে কালীপুজো করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার মুখ্যমন্ত্রীর কালীঘাটের বাসভবনে এই পুজোয় (Kali puja) যাওয়ার জন্য আমন্ত্রণ পেয়ে তিনি দারুণ খুশি হয়েছেন। "ভাইফোঁটা উপলক্ষে, আমি আমার স্ত্রীকে নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাসভবনে উপস্থিত থাকতে চেয়েছিলাম।মুখ্যমন্ত্রী (CM Mamata Banerjee) তার উত্তরবঙ্গ সফর থেকে ফিরে এসে আমাকে এবং আমার স্ত্রীকে তাঁর বাড়ির কালীপুজোয় আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। 

  • মনে হচ্ছে বাংলায় কোনও নিয়ন্ত্রণ নেই: রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর

    মনে হচ্ছে বাংলায় কোনও নিয়ন্ত্রণ নেই: রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর

    জেলার আধিকারিরকরা তাঁর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে অনীহা প্রকাশ করায় রীতিমতো ক্ষুব্ধ রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। তিনি মনে করেন যেভাবে তাঁর ডাকা বৈঠকে যোগ দিতে অস্বীকার করেছেন ওই জেলা প্রশাসনের আধিকারিকরা, তা এককথায় "অসাংবিধানিক"। উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার জেলা প্রশাসন থেকে জানানো হয় যে, মুখ্যমন্ত্রীর চলমান প্রশাসনিক সফরের কারণে তাঁরা রাজ্যপালের (Jagdeep Dhankhar) ডাকা বৈঠকে যোগ দিতে সক্ষম হবেন না। গত সপ্তাহেই জগদীপ ধনকর জেলা শাসক, আমলা এবং উত্তর ও দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলার নির্বাচিত প্রতিনিধিদের সাথে বৈঠক করার ইচ্ছা প্রকাশ করেন। তবে, সোমবার সন্ধ্যায় রাজ্যপালের কার্যালয়ে দুটি জেলার জেলা শাসকদের কাছ থেকে চিঠি যায়। রাজভবন সূত্রে জানা গেছে যে ওই চিঠিতে বলা হয়, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উত্তরবঙ্গ সফরে ব্যস্ত থাকায় প্রশাসনের আধিকারিকরা তাঁর (West Bengal Governor) বৈঠকে অংশ নিতে পারবেন না।

  • উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার সাংসদ, বিধায়ক এবং আমলাদের সঙ্গে সাক্ষাতে ইচ্ছুক রাজ্যপাল

    উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার সাংসদ, বিধায়ক এবং আমলাদের সঙ্গে সাক্ষাতে ইচ্ছুক রাজ্যপাল

    আগামী ২২ অক্টোবর উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা সফরে যাবেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। তবে আগামী  সপ্তাহে তাঁর ওই নির্ধারিত সফরে তিনি (Jagdeep Dhankhar) দুই জেলার ম্যাজিস্ট্রেট, সরকারি আমলা এবং নির্বাচিত  জন প্রতিনিধি অর্থাৎ বিধায়কদের সঙ্গে বৈঠক করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন তিনি। শনিবার রাজ্য সরকারের একজন প্রবীণ আধিকারিক মাননীয় রাজ্যপালের (West Bengal Governor) এই ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন।

  • পশ্চিমবঙ্গের নয়া রাজ্যপাল হিসাবে শপথ নিলেন জগদীপ ধনকর

    পশ্চিমবঙ্গের নয়া রাজ্যপাল হিসাবে শপথ নিলেন জগদীপ ধনকর

    পশ্চিমবঙ্গের নয়া রাজ্যপাল হিসাবে শপথ নিলেন জগদীপ ধনকর

  • বিদায়ের দিন উপস্থিত থাকবেন মুখ্যমন্ত্রী, আশা ছিল কেশরী নাথ ত্রিপাঠীর

    বিদায়ের দিন উপস্থিত থাকবেন মুখ্যমন্ত্রী, আশা ছিল কেশরী নাথ ত্রিপাঠীর

    তুষ্টিকরণের রাজনীতি করছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Chief Minister Mamata Banerjee),  সদ্য প্রাক্তন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী এমন বিতর্কিত মন্তব্য করে রাজ্য সরকার তথা তৃণমূল কংগ্রেসের বিরাগভাজন হলেও, তাঁর বিদায়ের দিন রাজভবনে (Raj Bhavan) উপস্থিত থাকবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, এমনটাই আশা করেছিলেন বিদায়ী রাজ্যপাল । রবিবার ত্রিপাঠী তাঁর ঘনিষ্ঠ মহলে এ নিয়ে ক্ষোভও ব্যক্ত করেছেন বলে সূত্রের খবর। "মাননীয় রাজ্যপাল ভেবেছিলেন রাজ্য ছাড়ার আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁকে বিদায় জানানোর জন্য আসবেন... ত্রিপাঠীজি মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর কাছ থেকে এই সৌজন্যতার রাজনীতিটুকু আগে আশা করেছিলেন রাজ্যপাল, কেননা তিনি এই রাজ্যে ৫ বছর কাটিয়েছেন", ওই সূত্রটি পিটিআইকে জানিয়েছে এ কথা।

  • শহরে এলেন রাজ্যের নয়া রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর

    শহরে এলেন রাজ্যের নয়া রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর

    কলকাতায় এলেন পশ্চিমবঙ্গের নয়া রাজ্যপাল জগদীপ ধানকার। কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর পর রাজ্যের ২৮ তম রাজ্যপাল হিসাবে শপথ নিতে চলা ধানকারকে (Governor Jagdeep Dhankar) সোমবার নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বোস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে স্বাগত জানাতে উপস্থিত ছিলেন শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়, ব্রাত্য বসু সহ রাজ্যের বেশ কয়েকজন মন্ত্রী।

'West Bengal Governor' - 20 News Result(s)

  • রাজ্যপালের মন্তব্যকে মানুষ পছন্দ করছেন না, সৌজন্যের অভাব রয়েছে তাঁর: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

    রাজ্যপালের মন্তব্যকে মানুষ পছন্দ করছেন না, সৌজন্যের অভাব রয়েছে তাঁর: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

    টিভিতে মুখ দেখাতে আগ্রহী রাজ্যপাল, কীভাবে প্রচারে থাকবেন তার সুযোগ খুঁজতে থাকেন তিনি (Governor Jagdeep Dhankhar) , এভাবেই রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়কে আক্রমণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি (Mamata Banerjee) আরও বলেন যে, রাজ্যের (West Bengal) মানুষ তাঁর এই ধরণের "উক্তি এবং সৌজন্যতার অভাব" মোটেই পছন্দ করেন না।

  • মুখ্যমন্ত্রী মমতা আমাকে 'তু চিজ বড়ি হ্যায় মস্ত মস্ত' বলেছেন: রাজ্যপাল জগদীপ ধনখর

    মুখ্যমন্ত্রী মমতা আমাকে 'তু চিজ বড়ি হ্যায় মস্ত মস্ত' বলেছেন: রাজ্যপাল জগদীপ ধনখর

    পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে একাধিক টুইট করে বলেন যে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাকে ‘তু চিজ বড়ি হ্যায় মস্ত মস্ত’ হিসাবে উল্লেখ করেছেন। একটি টুইটে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখর একটি বাংলা দৈনিকের ভিডিও ক্লিপিং পোস্ট করেন যেখানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যপাল সম্পর্কে কথা বলার সময় তার নাম উল্লেখ না করেই ১৯৯৪ সালের বিখ্যাত বলিউডি চলচ্চিত্র ‘মোহরা’ র এই জনপ্রিয় গানের প্রথম লাইনটি উল্লেখ করেন।

  • রাজ্য সরকারকে পার্শ্ব শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনায় বসার আহ্বান জানালেন রাজ্যপাল

    রাজ্য সরকারকে পার্শ্ব শিক্ষকদের  সঙ্গে আলোচনায় বসার আহ্বান জানালেন রাজ্যপাল

    রাজ্যের (West Bengal) পার্শ্ব শিক্ষকদের দাবি দাওয়া নিয়ে তাঁদের সঙ্গে আলোচনায় বসুক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার, এমনটাই চান রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। বেতন বৃদ্ধির দাবিতে অনির্দিষ্টকালীন অনশনে বসেছেন রাজ্যের পার্শ্ব শিক্ষকরা। সেই অনশন চলাকালীনই শুক্রবার রাজ্য সরকারকে সমস্যার সমাধানের লক্ষ্যে তাঁদের (Para-Teacher) সঙ্গে আলোচনায় বসার আহ্বান জানালেন রাজ্যপাল । তিনি (Governor Jagdeep Dhankhar) টুইট করে বলেন, "@ মমতাঅফিশিয়াল। আমি দেখছি যে গত ১১ নভেম্বর থেকে এক হাজারেরও বেশি পার্শ্ব শিক্ষক আন্দোলন করছেন এবং তাঁদের মধ্যে ৩৭ জন শুক্রবার থেকে অনির্দিষ্টকালের উপবাসে রয়েছেন। আমি এ বিষয়ে সবপক্ষকেই আলোচনায় বসার আহ্বান জানাচ্ছি"।

  • ‘‘লক্ষ্মণরেখা অতিক্রম করা উচিত নয়’’, আবারও রাজ্য সরকারকে বিঁধলেন রাজ্যপাল

    ‘‘লক্ষ্মণরেখা অতিক্রম করা উচিত নয়’’, আবারও রাজ্য সরকারকে বিঁধলেন রাজ্যপাল

    গত জুলাই মাসে রাজ্যের রাজ্যপাল হন জগদীপ ধনখড়। তারপর থেকে রাজ্য সরকারের সঙ্গে প্রায়ই কথার লড়াইয়ে জড়িয়ে পড়তে দেখা গিয়েছে তাঁকে।

  • শ্রদ্ধেয় শিক্ষকদের বকেয়া পাওনা মিটিয়ে দেওয়া উচিত: রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়

    শ্রদ্ধেয় শিক্ষকদের বকেয়া পাওনা মিটিয়ে দেওয়া উচিত: রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়

    সম্প্রতি যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির (Jadavpur University Teachers' Association JUTA) প্রতিনিধি দল রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে ইউজিসির সংশোধিত বেতন কাঠামোর বাস্তবায়ন বিষয়ে আলোচনা করেন। আর তারপরেই শিক্ষকদের হয়ে মন্তব্য করলেন রাজ্যপাল (Jagdeep Dhankhar)।

  • স্বাস্থ্য নিয়ে রাজনীতি করা উচিত নয়, বললেন রাজ্যপাল

    স্বাস্থ্য নিয়ে রাজনীতি করা উচিত নয়, বললেন রাজ্যপাল

    কেন্দ্রের স্বাস্থ্য প্রকল্প আয়ুষ্মান ভারত যোজনা (Ayushman Bharat Yojana) থেকে বঞ্ছিত এরাজ্যের মানুষ, বৃহস্পতিবার এমনই মন্তব্য করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর (Jagdeep Dhankhar), পাশাপাশি জোর দিয়ে বললেন “এই ধরণের বিষয় নিয়ে রাজনীতি করা উচিত নয়”। রাজ্যপালের দাবি, সত্ত্বর স্বাস্থ্য সহায়তার জন্য রাজ্যজুড়ে ৩,০০০ আবেদনপত্র পেয়েছেন।

  • সন্ত্রাসের নিন্দা করুন, তবে এতে রাজনীতির রং দেবেন না,অনুরোধ রাজ্যপালের

    সন্ত্রাসের নিন্দা করুন, তবে এতে রাজনীতির রং দেবেন না,অনুরোধ রাজ্যপালের

    সন্ত্রাসের নিন্দা অবশ্যই করুন কিন্তু দয়া করে এটা নিয়ে রাজনীতি করবেন না. রাজ্যের রাজনৈতির দলগুলির উদ্দেশে এমন বার্তাই দিতে শোনা গেল রাজ্যপাল জগদীপ ধনকরকে। রাজ্যপালের (Jagdeep Dhankhar) কাছে জম্মু ও কাশ্মীরের (Jammu and Kashmir) কুলগামে সন্ত্রাসহানায় রাজ্যের ৫ শ্রমিকের মৃত্যুর প্রসঙ্গে জানতে চাওয়া হলে ওই বার্তা দেন তিনি। রাজ্যপাল বলেন যে "যে কোনও জায়গায়, স্থানীয় বা অন্য কোথাও" হিংসার ঘটনা অবশ্যই নিন্দনীয়। "স্থানীয় বা অন্য কোথাও হওয়া যে কোনও হিংসার ঘটনার নিন্দা করা উচিত। আমরা যদি সর্দার প্যাটেলের মন্ত্রে বিশ্বাস করি তবে আমাদের কখনোই হিংসার ঘটনা নিয়ে রাজনীতি করা উচিত নয়", বলেন ধনকর। "এটা অত্যন্ত নিন্দনীয় ঘটনা, আমার হৃদয়ও এই ঘটনায় রক্তাক্ত হয়েছে", বলেন রাজ্যপাল।

  • মুখ্যমন্ত্রীর কালীপুজোয় অংশ নিতে পেরে নিজেকে "আশীর্বাদধন্য" মনে করছেন রাজ্যপাল

    মুখ্যমন্ত্রীর কালীপুজোয় অংশ নিতে পেরে নিজেকে "আশীর্বাদধন্য" মনে করছেন রাজ্যপাল

    ক্রমশই যখন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর ও রাজ্য সরকারের মধ্যে সম্পর্ক উত্তপ্ত হয়ে উঠছিল, ঠিক সেই সময় যেন রাজনীতির আঙিনায় সৌহার্দ্যের বন্ধন তৈরি করে দিল উৎসব। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়ির কালীপুজোয় সস্ত্রীক অংশ নিলেন রাজ্যপাল। কালীপুজো উপলক্ষে রাজ্যপাল (West Bengal governor) জগদীপ ধনকরকে নিজের বাড়িতে আমন্ত্রণ জানান তৃণমূল নেত্রী (Mamata Banerjee) এবং সেই আমন্ত্রণ রক্ষা করে ধনকর কালীঘাটে গেলে তাঁকে (Jagdeep Dhankhar) আন্তরিক অভ্যর্থনা জানান মমতা। সস্ত্রীক রাজ্যপালকে মিষ্টিমুখও করান মুখ্যমন্ত্রী।

  • কথা রেখে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির পুজোয় সস্ত্রীক রাজ্যপাল

    কথা রেখে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির পুজোয় সস্ত্রীক রাজ্যপাল

    পূর্ব নির্ধারিত সেই কথা রেখে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে পা রাখলেন সস্ত্রীক রাজ্যপাল জগদীপ ধনকার। ধর্মে যে রাজনীতির জায়গা নেই সেই কথাই যেন আরও একবার স্মরণ করালেন তিনি।

  • মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়ির কালীপুজোয় যোগ দিচ্ছেন রাজ্যপাল

    মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়ির কালীপুজোয় যোগ দিচ্ছেন রাজ্যপাল

    উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার বারাসতের একটি ক্লাবে কালীপুজোর উদ্বোধন করার সময় ধনকর (West Bengal Governor) জানান যে ১৯৭৮ সাল থেকে প্রতিবছর নিজের বাড়িতে কালীপুজো করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার মুখ্যমন্ত্রীর কালীঘাটের বাসভবনে এই পুজোয় (Kali puja) যাওয়ার জন্য আমন্ত্রণ পেয়ে তিনি দারুণ খুশি হয়েছেন। "ভাইফোঁটা উপলক্ষে, আমি আমার স্ত্রীকে নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাসভবনে উপস্থিত থাকতে চেয়েছিলাম।মুখ্যমন্ত্রী (CM Mamata Banerjee) তার উত্তরবঙ্গ সফর থেকে ফিরে এসে আমাকে এবং আমার স্ত্রীকে তাঁর বাড়ির কালীপুজোয় আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। 

  • মনে হচ্ছে বাংলায় কোনও নিয়ন্ত্রণ নেই: রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর

    মনে হচ্ছে বাংলায় কোনও নিয়ন্ত্রণ নেই: রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর

    জেলার আধিকারিরকরা তাঁর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে অনীহা প্রকাশ করায় রীতিমতো ক্ষুব্ধ রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। তিনি মনে করেন যেভাবে তাঁর ডাকা বৈঠকে যোগ দিতে অস্বীকার করেছেন ওই জেলা প্রশাসনের আধিকারিকরা, তা এককথায় "অসাংবিধানিক"। উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার জেলা প্রশাসন থেকে জানানো হয় যে, মুখ্যমন্ত্রীর চলমান প্রশাসনিক সফরের কারণে তাঁরা রাজ্যপালের (Jagdeep Dhankhar) ডাকা বৈঠকে যোগ দিতে সক্ষম হবেন না। গত সপ্তাহেই জগদীপ ধনকর জেলা শাসক, আমলা এবং উত্তর ও দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলার নির্বাচিত প্রতিনিধিদের সাথে বৈঠক করার ইচ্ছা প্রকাশ করেন। তবে, সোমবার সন্ধ্যায় রাজ্যপালের কার্যালয়ে দুটি জেলার জেলা শাসকদের কাছ থেকে চিঠি যায়। রাজভবন সূত্রে জানা গেছে যে ওই চিঠিতে বলা হয়, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উত্তরবঙ্গ সফরে ব্যস্ত থাকায় প্রশাসনের আধিকারিকরা তাঁর (West Bengal Governor) বৈঠকে অংশ নিতে পারবেন না।

  • উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার সাংসদ, বিধায়ক এবং আমলাদের সঙ্গে সাক্ষাতে ইচ্ছুক রাজ্যপাল

    উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার সাংসদ, বিধায়ক এবং আমলাদের সঙ্গে সাক্ষাতে ইচ্ছুক রাজ্যপাল

    আগামী ২২ অক্টোবর উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা সফরে যাবেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। তবে আগামী  সপ্তাহে তাঁর ওই নির্ধারিত সফরে তিনি (Jagdeep Dhankhar) দুই জেলার ম্যাজিস্ট্রেট, সরকারি আমলা এবং নির্বাচিত  জন প্রতিনিধি অর্থাৎ বিধায়কদের সঙ্গে বৈঠক করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন তিনি। শনিবার রাজ্য সরকারের একজন প্রবীণ আধিকারিক মাননীয় রাজ্যপালের (West Bengal Governor) এই ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন।

  • পশ্চিমবঙ্গের নয়া রাজ্যপাল হিসাবে শপথ নিলেন জগদীপ ধনকর

    পশ্চিমবঙ্গের নয়া রাজ্যপাল হিসাবে শপথ নিলেন জগদীপ ধনকর

    পশ্চিমবঙ্গের নয়া রাজ্যপাল হিসাবে শপথ নিলেন জগদীপ ধনকর

  • বিদায়ের দিন উপস্থিত থাকবেন মুখ্যমন্ত্রী, আশা ছিল কেশরী নাথ ত্রিপাঠীর

    বিদায়ের দিন উপস্থিত থাকবেন মুখ্যমন্ত্রী, আশা ছিল কেশরী নাথ ত্রিপাঠীর

    তুষ্টিকরণের রাজনীতি করছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Chief Minister Mamata Banerjee),  সদ্য প্রাক্তন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী এমন বিতর্কিত মন্তব্য করে রাজ্য সরকার তথা তৃণমূল কংগ্রেসের বিরাগভাজন হলেও, তাঁর বিদায়ের দিন রাজভবনে (Raj Bhavan) উপস্থিত থাকবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, এমনটাই আশা করেছিলেন বিদায়ী রাজ্যপাল । রবিবার ত্রিপাঠী তাঁর ঘনিষ্ঠ মহলে এ নিয়ে ক্ষোভও ব্যক্ত করেছেন বলে সূত্রের খবর। "মাননীয় রাজ্যপাল ভেবেছিলেন রাজ্য ছাড়ার আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁকে বিদায় জানানোর জন্য আসবেন... ত্রিপাঠীজি মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর কাছ থেকে এই সৌজন্যতার রাজনীতিটুকু আগে আশা করেছিলেন রাজ্যপাল, কেননা তিনি এই রাজ্যে ৫ বছর কাটিয়েছেন", ওই সূত্রটি পিটিআইকে জানিয়েছে এ কথা।

  • শহরে এলেন রাজ্যের নয়া রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর

    শহরে এলেন রাজ্যের নয়া রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর

    কলকাতায় এলেন পশ্চিমবঙ্গের নয়া রাজ্যপাল জগদীপ ধানকার। কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর পর রাজ্যের ২৮ তম রাজ্যপাল হিসাবে শপথ নিতে চলা ধানকারকে (Governor Jagdeep Dhankar) সোমবার নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বোস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে স্বাগত জানাতে উপস্থিত ছিলেন শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়, ব্রাত্য বসু সহ রাজ্যের বেশ কয়েকজন মন্ত্রী।

Your search did not match any documents
A few suggestions
  • Make sure all words are spelled correctly
  • Try different keywords
  • Try more general keywords
Check the NDTV Archives:https://archives.ndtv.com

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................