Reported By Maya Sharma


'Reported By Maya Sharma' - 11 News Result(s)

  • করোনা আতঙ্কে পুরসভা থেকে বাড়ি সিল করার সময় ভিতরেই রয়ে গেলেন বাসিন্দারা!

    করোনা আতঙ্কে পুরসভা থেকে বাড়ি সিল করার সময় ভিতরেই রয়ে গেলেন বাসিন্দারা!

    করোনার (Coronavirus) ভূত যেন তাড়া করে বেড়াচ্ছে সবাইকে। আর সেই আতঙ্কেই বেঙ্গালুরুতে (Bengaluru) যা ঘটলো তাতে হাড় হিম হওয়ার জোগাড়। সেখানকার একটি অ্যাপার্টমেন্টে করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় দুটো ফ্ল্যাটের দরজা পুরোপুরি সিল করে দেন স্থানীয় পুরসভার কর্মীরা। অথচ তাড়াহুড়োতে তাঁরা খেয়ালই করেননি যে ওই দুই ফ্ল্যাটের বাসিন্দারা রয়ে গেছেন ঘরের ভিতরেই। ডোমমালুর কাছে দুটি ফ্ল্যাটের দরজা সিল করার পর জানা যায় যে, ভিতরে জীবন্ত অবস্থায় আটকা পড়েছেন এক বৃদ্ধ দম্পতি ও  দুই শিশু। খবর পাওয়ার পর যদিও তড়িঘড়ি তাঁদের সেই বন্ধ ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার করা হয়।

  • "ওরা কি নথিভুক্ত শ্রমিক?": পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরাতে বাছবিচার কর্নাটকের

    "ওরা কি নথিভুক্ত শ্রমিক?": পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরাতে বাছবিচার কর্নাটকের

    রাজ্যের সমস্ত পরিযায়ী শ্রমিকদের গ্যাঁটের কড়ি খরচ করে ফেরাতে রাজি নয় কর্নাটক সরকার। করোনা ভাইরাসকে (Coronavirus) এড়াতে লকডাউনের কারণে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে আটকে পড়া (Lockdown) শ্রমিকদের ফেরাতে বিশেষ ১১৯ টি ট্রেন চালাচ্ছে কেন্দ্র। কিন্তু সেই শ্রমিক ট্রেনে (Shramik Train) করে নিজেদের রাজ্যের সব শ্রমিকদের কর্নাটকে ফেরানোর পরিকল্পনা বাতিল করে দিল বিএস ইয়েদুরাপ্পা সরকার (BS Yeddyurappa)। কর্নাটক সরকারের এই সিদ্ধান্তে রাজ্য জুড়ে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। কর্নাটকের বিরোধী দল কংগ্রেস বলেছে যে এতদিন পর্যন্ত সরকার শ্রমিকদের বিভিন্ন জায়গায় "আটকে" রেখে এখন বলছে যে ওই শ্রমিকরা "চুক্তিবদ্ধ শ্রমিক" নয়, তাই তাঁদের রাজ্যে ফেরাতেও দায়বদ্ধ নয় রাজ্য সরকার।

  • সামাজিক দূরত্ব বজায়ের বিধিকে লবডঙ্কা দেখিয়ে বিয়ে সারলেন দেবেগৌড়ার নাতি

    সামাজিক দূরত্ব বজায়ের বিধিকে লবডঙ্কা দেখিয়ে বিয়ে সারলেন দেবেগৌড়ার নাতি

    করোনা সংক্রমণ এড়াতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন, কেন্দ্রের এই বার্তাকে লবডঙ্কা দেখিয়ে জাঁকজমক করে বিয়ে সারলেন কর্নাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর ছেলে (HD Kumaraswamy's Son Wedding)। আজ্ঞে হ্যাঁ, এই লকডাউনের মধ্যেই দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এইচডি দেবেগৌড়ার (HD Deve Gowda) নাতি নিখিল কুমারাস্বামী বেঙ্গালুরু থেকে প্রায় ২৮ কিলোমিটার দূরের একটি ফার্মহাউসে বিয়ে করলেন কর্নাটকের প্রবীণ কংগ্রেস নেতা এম কৃষ্ণাপ্পার নাতনী রেবতীকে। আর সেই ছবি প্রকাশ্যে আসার পর তা দেখে থ গোটা ভারত।

  • "দেশবিরোধী স্লোগান উঠলেই গুলি চালান," NDTV-কে বললেন কর্নাটকের মন্ত্রী

    "দেশবিরোধী স্লোগান উঠলেই গুলি চালান," NDTV-কে বললেন কর্নাটকের মন্ত্রী

    এদিকে, কানহাইয়া কুমারের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার ধারায় মামলা চালিয়ে যেতে দিল্লি পুলিশকে অনুমতি দিল আপ সরকার। দীর্ঘ প্রায় এক বছর এই সিদ্ধান্ত ঝুলিয়ে রেখেছিল সে রাজ্যের আম আদমি সরকার। বিজেপির অভিযোগ ছিল, জেএনইউ'র ওই প্রাক্তন ছাত্র নেতাকে বাঁচাচ্ছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু সেই মামলায় ইতিমধ্যে চার্জশিট দাখিল হলেও, এক ফোঁটাও এগোয়নি শুনানির কাজ।

  • মা’কে খুনের পর ভাইকেও ছুরি মেরে বেড়াতে গেলেন দিদি, আটক আন্দামানে

    মা’কে খুনের পর ভাইকেও ছুরি মেরে বেড়াতে গেলেন দিদি, আটক আন্দামানে

    পুলিশ জানিয়েছে, ওই যুবতী পাঁচদিনের ছুটি নিয়ে আন্দামানে বেড়াতে চলে যান। সঙ্গে ছিলেন তাঁর বন্ধু শ্রীধর রাও। বন্ধুর বাইকে করে বিমানবন্দরে পৌঁছে ভোর সাড়ে ছ’টার উড়ান ধরে অম্রুতা চলে যান আন্দামানে।

  • কর্ণাটকের উপনির্বাচনে গেরুয়া ঝড়, কমেছে হাতের শক্তি: ১০ তথ্য

    কর্ণাটকের উপনির্বাচনে গেরুয়া ঝড়, কমেছে হাতের শক্তি: ১০ তথ্য

    কর্ণাটকের উপনির্বাচনের (Karnataka Bypolls) ভোটগণনা যতই এগোচ্ছে ততই যেন সে রাজ্যে স্পষ্ট হচ্ছে গেরুয়া রঙ। সোমবার ভোটগণনার সময় (Karnataka bypoll results) দেখা গেছে সে রাজ্যে ক্রমশই বিরোধী শক্তিকে পিছনে ফেলে এগিয়ে গেছে ক্ষমতাসীন বিজেপি। গত সপ্তাহেই কর্ণাটকের ১৫টি আসনে উপনির্বাচন হয়। মাত্র ৪ মাসেই কামাল দেখিয়েছে মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পার (BS Yediyurappa) সরকার, আর তাই বোধহয় জনগণ ভরসা রাখতে চাইছে গেরুয়া দলের উপরেই, ভোটগণনার প্রাথমিক ফল সেদিকেই ইঙ্গিত দিচ্ছে। ১৫টির মধ্যে ১২ টি আসনে এগিয়ে রয়েছে বিজেপি। বাকিগুলোয় এগিয়ে রয়েছে কংগ্রেস এবং জেডিএস । কর্ণাটকের কংগ্রেস নেতা ডি কে শিবকুমার বলেন, "এই ১৫ টি নির্বাচনীকেন্দ্রের ভোটারদের জনাদেশ আমাদের মেনে নিতেই হবে। জনগণ তাঁদের চাইছে। আমরা হার স্বীকার করছি। তবে আমার মনে হয় না যে এতে আমাদের হতাশ হওয়া উচিত।" কংগ্রেস-জনতা দল সেকুলারের (জেডিএস) জোট সরকার ভেঙে যাওয়ার পর ক্ষমতায় আসে বিজেপি। গত জুলাই মাসে কর্ণাটকে যে বিধায়করা পদত্যাগ করেছিলেন তাঁদের ছেড়ে যাওয়া ১৭টি বিধানসভা আসনের মধ্যে ১৫ টিতে গত বৃহস্পতিবার উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণ হয়। বিজেপিকে বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনের জন্য কমপক্ষে ৭টি আসনে জিততেই হবে, কেননা তা হলেই উপ-নির্বাচনের পরে (Karnataka bypoll result 2019) তাঁদের কাছে ২২২ জন বিধায়কের সমর্থন থাকবে। যদিও দুটি আসন এখনও শূন্য রয়েছে। বিজেপির কাছে বর্তমানে ১০৫ জন বিধায়ক এবং একজন নির্দল প্রার্থীর সমর্থন রয়েছে, ওদিকে কংগ্রেসের কাছে রয়েছে ৬৬ এবং জেডিএসের কাছে আছে ৩৪ জন বিধায়কের সমর্থন।

  • রহস্যজনকভাবে নিরুদ্দেশ ক্যাফে কফি ডে-র প্রতিষ্ঠাতা এবং এসএম কৃষ্ণার জামাই, চলছে সন্ধান

    রহস্যজনকভাবে নিরুদ্দেশ ক্যাফে কফি ডে-র প্রতিষ্ঠাতা এবং এসএম কৃষ্ণার জামাই, চলছে সন্ধান

    পুলিশ জানিয়েছে, কর্নাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এস এম কৃষ্ণার জামাই তথা জনপ্রিয় ক্যাফে কফি ডে-র (Cafe Coffee Day) প্রতিষ্ঠাতা ভি জি সিদ্ধার্থ কর্নাটকের মেঙ্গালুরু থেকে নিরুদ্দেশ হয়ে যান। তথ্য অনুসারে, তাঁকে মেঙ্গালুরুর নেত্রাবতী নদীর উপরের সেতুতে নিজের গাড়ি থেকে নেমে হেঁটে এগিয়ে যেতে দেখা যায়।

  • কর্নাটকে সরকার গঠনের দাবি জানাবেন বিএস ইয়েদুরাপ্পা, আরএসএসের "আশীর্বাদ"-এর অপেক্ষায় তিনি

    কর্নাটকে সরকার গঠনের দাবি জানাবেন বিএস ইয়েদুরাপ্পা, আরএসএসের "আশীর্বাদ"-এর অপেক্ষায় তিনি

    কর্নাটকে কংগ্রেস-জেডিএস সরকারের পতনের পর এবার সরকার গড়ার অনুমতি চাইবে বিজেপি। সূত্রের খবর, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ এবং বিজেপির কার্যনির্বাহী সভাপতি জে পি নাড্ডার সঙ্গে আলোচনা করতে দিল্লি উড়ে যাচ্ছেন সে রাজ্যের বিজেপি প্রধান বি এস ইয়েদুরাপ্পা।

  • আপাত স্বস্তি জোটের ,নিয়ম মেনে ইস্তফা দেওয়া হয় নি,বললেন কর্নাটক স্পিকার

    আপাত স্বস্তি জোটের ,নিয়ম মেনে ইস্তফা দেওয়া হয় নি,বললেন কর্নাটক স্পিকার

    কর্ণাটকের কংগ্রেস-জনতা দল (সেক্যুলার) জোট সরকার তাঁদের ১৪ জন বিধায়কের পরপর ইস্তফার কারণে যখন সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারানো আশঙ্কায় ভুগছিল (Karnataka Political Crisis)তখনই তাঁদের স্বস্তির খবর শোনালেন বিধানসভার অধ্যক্ষ। স্পিকার রমেশ কুমার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন যে, যথাযথ নিয়ম মেনে বিধায়করা ইস্তফা না দেওয়ায় ওই ইস্তফাগুলি গ্রহণ করবেন না তিনি।এ ব্যাপারে রাজ্যপালকে চিঠিতে তিনি জানিয়েছেন, একজন বিধায়কও তাঁর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন নি।তবে ওই ১৪ বিধায়কের ইস্তফা স্পিকার গ্রহণ না করায় কিছুটা হলেও হাতে সময় পেল শাসক জোট।তবে আশঙ্কার কথা এই যে মঙ্গলবারের এক বৈঠকে সমস্ত বিধায়কের উপস্থিতি বাধ্যতামূলক করা সত্ত্বেও এক ডজন কংগ্রেস বিধায়ক উপস্থিত হন নি, তাঁদের মধ্যে ৩ জন অসুস্থতার দোহাই দিয়েছেন।

  • গডসে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য, তিন নেতাকে কারণ ব্যাখ্যার নির্দেশ দিলেন অমিত

    গডসে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য, তিন নেতাকে কারণ ব্যাখ্যার নির্দেশ দিলেন অমিত

    সাধ্বী ঠাকুর এবার ভোপাল কেন্দ্র থেকে বিজেপির হয়ে লড়াই করছেন। একদিন আগে তিনি বলেছিলেন নাথুরাম গডসে একজন দেশপ্রেমিক। অন্যদিকে বিজেপি সাংসদ রাজীব গান্ধীর সঙ্গে গডসের তুলনা করেন।

  • ‘মারমারি’ করে হাসপাতালে ভর্তি কর্নাটকের দলীয় বিধায়ক, বুকে ব্যথা অভিযোগ উড়িয়ে দাবি কংগ্রেসের

    ‘মারমারি’ করে হাসপাতালে ভর্তি কর্নাটকের দলীয় বিধায়ক, বুকে ব্যথা অভিযোগ উড়িয়ে দাবি কংগ্রেসের

    দল ভাঙানোর ভয়ে আপাতত বেঙ্গালুরুর একটি রিসর্টে বিধায়কদের রেখেছে  কংগ্রেস। সেখানেই এই ঘটনাটি ঘটেছে। স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম এমন দাবি করলেও তা খারিজ করে দিয়েছে কংগ্রেস। তাদের দাবি বুকে ব্যথা হওয়াতেই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন আনন্দ। কর্নাটক  কংগ্রেসের পরিচিত নেতা ডি কে শিবকুমার মারামারির বিষয়টি অস্বীকার করেছেন।

'Reported By Maya Sharma' - 11 News Result(s)

  • করোনা আতঙ্কে পুরসভা থেকে বাড়ি সিল করার সময় ভিতরেই রয়ে গেলেন বাসিন্দারা!

    করোনা আতঙ্কে পুরসভা থেকে বাড়ি সিল করার সময় ভিতরেই রয়ে গেলেন বাসিন্দারা!

    করোনার (Coronavirus) ভূত যেন তাড়া করে বেড়াচ্ছে সবাইকে। আর সেই আতঙ্কেই বেঙ্গালুরুতে (Bengaluru) যা ঘটলো তাতে হাড় হিম হওয়ার জোগাড়। সেখানকার একটি অ্যাপার্টমেন্টে করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় দুটো ফ্ল্যাটের দরজা পুরোপুরি সিল করে দেন স্থানীয় পুরসভার কর্মীরা। অথচ তাড়াহুড়োতে তাঁরা খেয়ালই করেননি যে ওই দুই ফ্ল্যাটের বাসিন্দারা রয়ে গেছেন ঘরের ভিতরেই। ডোমমালুর কাছে দুটি ফ্ল্যাটের দরজা সিল করার পর জানা যায় যে, ভিতরে জীবন্ত অবস্থায় আটকা পড়েছেন এক বৃদ্ধ দম্পতি ও  দুই শিশু। খবর পাওয়ার পর যদিও তড়িঘড়ি তাঁদের সেই বন্ধ ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার করা হয়।

  • "ওরা কি নথিভুক্ত শ্রমিক?": পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরাতে বাছবিচার কর্নাটকের

    "ওরা কি নথিভুক্ত শ্রমিক?": পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরাতে বাছবিচার কর্নাটকের

    রাজ্যের সমস্ত পরিযায়ী শ্রমিকদের গ্যাঁটের কড়ি খরচ করে ফেরাতে রাজি নয় কর্নাটক সরকার। করোনা ভাইরাসকে (Coronavirus) এড়াতে লকডাউনের কারণে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে আটকে পড়া (Lockdown) শ্রমিকদের ফেরাতে বিশেষ ১১৯ টি ট্রেন চালাচ্ছে কেন্দ্র। কিন্তু সেই শ্রমিক ট্রেনে (Shramik Train) করে নিজেদের রাজ্যের সব শ্রমিকদের কর্নাটকে ফেরানোর পরিকল্পনা বাতিল করে দিল বিএস ইয়েদুরাপ্পা সরকার (BS Yeddyurappa)। কর্নাটক সরকারের এই সিদ্ধান্তে রাজ্য জুড়ে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। কর্নাটকের বিরোধী দল কংগ্রেস বলেছে যে এতদিন পর্যন্ত সরকার শ্রমিকদের বিভিন্ন জায়গায় "আটকে" রেখে এখন বলছে যে ওই শ্রমিকরা "চুক্তিবদ্ধ শ্রমিক" নয়, তাই তাঁদের রাজ্যে ফেরাতেও দায়বদ্ধ নয় রাজ্য সরকার।

  • সামাজিক দূরত্ব বজায়ের বিধিকে লবডঙ্কা দেখিয়ে বিয়ে সারলেন দেবেগৌড়ার নাতি

    সামাজিক দূরত্ব বজায়ের বিধিকে লবডঙ্কা দেখিয়ে বিয়ে সারলেন দেবেগৌড়ার নাতি

    করোনা সংক্রমণ এড়াতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন, কেন্দ্রের এই বার্তাকে লবডঙ্কা দেখিয়ে জাঁকজমক করে বিয়ে সারলেন কর্নাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর ছেলে (HD Kumaraswamy's Son Wedding)। আজ্ঞে হ্যাঁ, এই লকডাউনের মধ্যেই দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এইচডি দেবেগৌড়ার (HD Deve Gowda) নাতি নিখিল কুমারাস্বামী বেঙ্গালুরু থেকে প্রায় ২৮ কিলোমিটার দূরের একটি ফার্মহাউসে বিয়ে করলেন কর্নাটকের প্রবীণ কংগ্রেস নেতা এম কৃষ্ণাপ্পার নাতনী রেবতীকে। আর সেই ছবি প্রকাশ্যে আসার পর তা দেখে থ গোটা ভারত।

  • "দেশবিরোধী স্লোগান উঠলেই গুলি চালান," NDTV-কে বললেন কর্নাটকের মন্ত্রী

    "দেশবিরোধী স্লোগান উঠলেই গুলি চালান," NDTV-কে বললেন কর্নাটকের মন্ত্রী

    এদিকে, কানহাইয়া কুমারের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার ধারায় মামলা চালিয়ে যেতে দিল্লি পুলিশকে অনুমতি দিল আপ সরকার। দীর্ঘ প্রায় এক বছর এই সিদ্ধান্ত ঝুলিয়ে রেখেছিল সে রাজ্যের আম আদমি সরকার। বিজেপির অভিযোগ ছিল, জেএনইউ'র ওই প্রাক্তন ছাত্র নেতাকে বাঁচাচ্ছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু সেই মামলায় ইতিমধ্যে চার্জশিট দাখিল হলেও, এক ফোঁটাও এগোয়নি শুনানির কাজ।

  • মা’কে খুনের পর ভাইকেও ছুরি মেরে বেড়াতে গেলেন দিদি, আটক আন্দামানে

    মা’কে খুনের পর ভাইকেও ছুরি মেরে বেড়াতে গেলেন দিদি, আটক আন্দামানে

    পুলিশ জানিয়েছে, ওই যুবতী পাঁচদিনের ছুটি নিয়ে আন্দামানে বেড়াতে চলে যান। সঙ্গে ছিলেন তাঁর বন্ধু শ্রীধর রাও। বন্ধুর বাইকে করে বিমানবন্দরে পৌঁছে ভোর সাড়ে ছ’টার উড়ান ধরে অম্রুতা চলে যান আন্দামানে।

  • কর্ণাটকের উপনির্বাচনে গেরুয়া ঝড়, কমেছে হাতের শক্তি: ১০ তথ্য

    কর্ণাটকের উপনির্বাচনে গেরুয়া ঝড়, কমেছে হাতের শক্তি: ১০ তথ্য

    কর্ণাটকের উপনির্বাচনের (Karnataka Bypolls) ভোটগণনা যতই এগোচ্ছে ততই যেন সে রাজ্যে স্পষ্ট হচ্ছে গেরুয়া রঙ। সোমবার ভোটগণনার সময় (Karnataka bypoll results) দেখা গেছে সে রাজ্যে ক্রমশই বিরোধী শক্তিকে পিছনে ফেলে এগিয়ে গেছে ক্ষমতাসীন বিজেপি। গত সপ্তাহেই কর্ণাটকের ১৫টি আসনে উপনির্বাচন হয়। মাত্র ৪ মাসেই কামাল দেখিয়েছে মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পার (BS Yediyurappa) সরকার, আর তাই বোধহয় জনগণ ভরসা রাখতে চাইছে গেরুয়া দলের উপরেই, ভোটগণনার প্রাথমিক ফল সেদিকেই ইঙ্গিত দিচ্ছে। ১৫টির মধ্যে ১২ টি আসনে এগিয়ে রয়েছে বিজেপি। বাকিগুলোয় এগিয়ে রয়েছে কংগ্রেস এবং জেডিএস । কর্ণাটকের কংগ্রেস নেতা ডি কে শিবকুমার বলেন, "এই ১৫ টি নির্বাচনীকেন্দ্রের ভোটারদের জনাদেশ আমাদের মেনে নিতেই হবে। জনগণ তাঁদের চাইছে। আমরা হার স্বীকার করছি। তবে আমার মনে হয় না যে এতে আমাদের হতাশ হওয়া উচিত।" কংগ্রেস-জনতা দল সেকুলারের (জেডিএস) জোট সরকার ভেঙে যাওয়ার পর ক্ষমতায় আসে বিজেপি। গত জুলাই মাসে কর্ণাটকে যে বিধায়করা পদত্যাগ করেছিলেন তাঁদের ছেড়ে যাওয়া ১৭টি বিধানসভা আসনের মধ্যে ১৫ টিতে গত বৃহস্পতিবার উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণ হয়। বিজেপিকে বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনের জন্য কমপক্ষে ৭টি আসনে জিততেই হবে, কেননা তা হলেই উপ-নির্বাচনের পরে (Karnataka bypoll result 2019) তাঁদের কাছে ২২২ জন বিধায়কের সমর্থন থাকবে। যদিও দুটি আসন এখনও শূন্য রয়েছে। বিজেপির কাছে বর্তমানে ১০৫ জন বিধায়ক এবং একজন নির্দল প্রার্থীর সমর্থন রয়েছে, ওদিকে কংগ্রেসের কাছে রয়েছে ৬৬ এবং জেডিএসের কাছে আছে ৩৪ জন বিধায়কের সমর্থন।

  • রহস্যজনকভাবে নিরুদ্দেশ ক্যাফে কফি ডে-র প্রতিষ্ঠাতা এবং এসএম কৃষ্ণার জামাই, চলছে সন্ধান

    রহস্যজনকভাবে নিরুদ্দেশ ক্যাফে কফি ডে-র প্রতিষ্ঠাতা এবং এসএম কৃষ্ণার জামাই, চলছে সন্ধান

    পুলিশ জানিয়েছে, কর্নাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এস এম কৃষ্ণার জামাই তথা জনপ্রিয় ক্যাফে কফি ডে-র (Cafe Coffee Day) প্রতিষ্ঠাতা ভি জি সিদ্ধার্থ কর্নাটকের মেঙ্গালুরু থেকে নিরুদ্দেশ হয়ে যান। তথ্য অনুসারে, তাঁকে মেঙ্গালুরুর নেত্রাবতী নদীর উপরের সেতুতে নিজের গাড়ি থেকে নেমে হেঁটে এগিয়ে যেতে দেখা যায়।

  • কর্নাটকে সরকার গঠনের দাবি জানাবেন বিএস ইয়েদুরাপ্পা, আরএসএসের "আশীর্বাদ"-এর অপেক্ষায় তিনি

    কর্নাটকে সরকার গঠনের দাবি জানাবেন বিএস ইয়েদুরাপ্পা, আরএসএসের "আশীর্বাদ"-এর অপেক্ষায় তিনি

    কর্নাটকে কংগ্রেস-জেডিএস সরকারের পতনের পর এবার সরকার গড়ার অনুমতি চাইবে বিজেপি। সূত্রের খবর, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ এবং বিজেপির কার্যনির্বাহী সভাপতি জে পি নাড্ডার সঙ্গে আলোচনা করতে দিল্লি উড়ে যাচ্ছেন সে রাজ্যের বিজেপি প্রধান বি এস ইয়েদুরাপ্পা।

  • আপাত স্বস্তি জোটের ,নিয়ম মেনে ইস্তফা দেওয়া হয় নি,বললেন কর্নাটক স্পিকার

    আপাত স্বস্তি জোটের ,নিয়ম মেনে ইস্তফা দেওয়া হয় নি,বললেন কর্নাটক স্পিকার

    কর্ণাটকের কংগ্রেস-জনতা দল (সেক্যুলার) জোট সরকার তাঁদের ১৪ জন বিধায়কের পরপর ইস্তফার কারণে যখন সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারানো আশঙ্কায় ভুগছিল (Karnataka Political Crisis)তখনই তাঁদের স্বস্তির খবর শোনালেন বিধানসভার অধ্যক্ষ। স্পিকার রমেশ কুমার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন যে, যথাযথ নিয়ম মেনে বিধায়করা ইস্তফা না দেওয়ায় ওই ইস্তফাগুলি গ্রহণ করবেন না তিনি।এ ব্যাপারে রাজ্যপালকে চিঠিতে তিনি জানিয়েছেন, একজন বিধায়কও তাঁর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন নি।তবে ওই ১৪ বিধায়কের ইস্তফা স্পিকার গ্রহণ না করায় কিছুটা হলেও হাতে সময় পেল শাসক জোট।তবে আশঙ্কার কথা এই যে মঙ্গলবারের এক বৈঠকে সমস্ত বিধায়কের উপস্থিতি বাধ্যতামূলক করা সত্ত্বেও এক ডজন কংগ্রেস বিধায়ক উপস্থিত হন নি, তাঁদের মধ্যে ৩ জন অসুস্থতার দোহাই দিয়েছেন।

  • গডসে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য, তিন নেতাকে কারণ ব্যাখ্যার নির্দেশ দিলেন অমিত

    গডসে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য, তিন নেতাকে কারণ ব্যাখ্যার নির্দেশ দিলেন অমিত

    সাধ্বী ঠাকুর এবার ভোপাল কেন্দ্র থেকে বিজেপির হয়ে লড়াই করছেন। একদিন আগে তিনি বলেছিলেন নাথুরাম গডসে একজন দেশপ্রেমিক। অন্যদিকে বিজেপি সাংসদ রাজীব গান্ধীর সঙ্গে গডসের তুলনা করেন।

  • ‘মারমারি’ করে হাসপাতালে ভর্তি কর্নাটকের দলীয় বিধায়ক, বুকে ব্যথা অভিযোগ উড়িয়ে দাবি কংগ্রেসের

    ‘মারমারি’ করে হাসপাতালে ভর্তি কর্নাটকের দলীয় বিধায়ক, বুকে ব্যথা অভিযোগ উড়িয়ে দাবি কংগ্রেসের

    দল ভাঙানোর ভয়ে আপাতত বেঙ্গালুরুর একটি রিসর্টে বিধায়কদের রেখেছে  কংগ্রেস। সেখানেই এই ঘটনাটি ঘটেছে। স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম এমন দাবি করলেও তা খারিজ করে দিয়েছে কংগ্রেস। তাদের দাবি বুকে ব্যথা হওয়াতেই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন আনন্দ। কর্নাটক  কংগ্রেসের পরিচিত নেতা ডি কে শিবকুমার মারামারির বিষয়টি অস্বীকার করেছেন।

Your search did not match any documents
A few suggestions
  • Make sure all words are spelled correctly
  • Try different keywords
  • Try more general keywords
Check the NDTV Archives:https://archives.ndtv.com

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com