Lk Advani


'Lk Advani' - 21 News Result(s)

  • ‘‘মনমোহন সিংহও শরণার্থী ছিলেন’’: নাগরিকত্ব বিল প্রসঙ্গে অমিত শাহ

    ‘‘মনমোহন সিংহও শরণার্থী ছিলেন’’: নাগরিকত্ব বিল প্রসঙ্গে অমিত শাহ

    তিনি জানান মনমোহন সিংহও একজন শরণার্থী। তিনি ১৯৪৭ সালের দেশভাগের পর এদেশে এসেছেন। তাঁকে ভারতের নাগরিকত্ব দেওয়া হয়।

  • "আপনার পরিশ্রমই বিজেপিকে সংগঠিত করেছে": আদবানির জন্মদিনে মোদির শুভেচ্ছা

    "আপনার পরিশ্রমই বিজেপিকে সংগঠিত করেছে":  আদবানির জন্মদিনে মোদির শুভেচ্ছা

    আজ (শুক্রবার) রাজনীতির "লৌহপুরুষ" এল কে আদবানির জন্মদিন (LK Advani's Birthday)। বিজেপির প্রবীণ নেতার জন্মদিনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি টুইটে তাঁকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। এল কে আদবানিকে "পণ্ডিত এবং ভারতের অন্যতম মহান নেতা" বলে বর্ণনা করেছেন  প্রধানমন্ত্রী। তিনি (Narendra Modi) প্রাক্তন উপ-প্রধানমন্ত্রীকে ভারতের রাজনীতিতে একজন প্রভাবশালী খেলোয়াড় হিসাবেও বর্ণনা করেছেন এবং ভারতীয় রাজনীতিতে বিজেপির উত্থানের নেপথ্যেও তাঁকে (LK Advani) কৃতিত্ব দিয়েছেন।

  • জটিল সমস্যার সমাধান করতেন, ভাল রেস্তোঁরার নাম দিতেন, স্মৃতিচারণ আদবানির

    জটিল সমস্যার সমাধান করতেন, ভাল রেস্তোঁরার নাম দিতেন, স্মৃতিচারণ আদবানির

    প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির (Arun Jaitely) প্রয়াণে গভীর শোকপ্রকাশ করে স্মৃতিচারণ করলেন লালকৃষ্ণ আদবানি (LK Advani)। তিনি বলেন, গভীর বিশ্লেষাত্মক মননের এমন একজন মানুষ, যিনি বিজেপিকে অনেক জটিল সমস্যা থেকে মুক্তির রাস্তা দেখিয়েছেন। শনিবার দুপুরে নয়াদিল্লির AIIMS হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির।

  • জেটলিকে দেখতে এইমসে আদবানি, মুক্তার আব্বাস নাকভিরা

    জেটলিকে দেখতে এইমসে আদবানি, মুক্তার আব্বাস নাকভিরা

    সঙ্কটজনক প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অরুণ জেটলির (Arun Jaitley) শারীরিক অবস্থা। এখনও এইমসে লাইফ সাপোর্টে (life support) রয়েছেন তিনি। গত কয়েকদিন ধরে অরুণ জেটলিকে (Arun Jaitley) দেখতে দিল্লির ওই হাসপাতালে যাচ্ছেন বিজেপি সহ বিভিন্ন দলের নেতা নেত্রীরা। দল ও মন্ত্রিসভার প্রাক্তন সহকর্মীর শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিতে সোমবার এইমসে (AIIMS) যান প্রবীণ লালকৃষ্ণ আডবানি (LK Advani)। এছাড়াও গিয়েছিলেন উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত (Trivendra Singh Rawat)। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মুক্তার আব্বাস নাকভি ও বিজেপির জাতীয় সম্পাদক অরুণ সিংও এদিন দলের আইজীবী নেতাকে এইমসে দেখে আসেন।

  • সুষমা স্বরাজের শেষকৃত্যে শোকবিহ্বল মোদী ও আদবানির বিরল মুহূর্ত

    সুষমা স্বরাজের শেষকৃত্যে শোকবিহ্বল মোদী ও আদবানির বিরল মুহূর্ত

    তাঁর একগাল হাসিমুখ সবসময়ে সেতুবন্ধনের কাজ করেছে। যা দেখে বিবাদ ভুলে মুহূর্তে এক হয়ে যেতেন শাসক বিরোধী রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা। শেষ যাত্রাতেও সুষমা স্বরাজ (Sushma Swaraj) মিলিয়ে দিলেন, দলের অভ্যন্তরে পরস্পর বিরোধী বলে পরিচিত মোদী (PM Modi) ও লালকৃষ্ণ আদবানিকে (LK Advani)। বিকেলে লোধি রোড শশ্মানে শোকের ছায়া। সেখান থেকে বেরিয়ে আসার সময় দেখা গেল এর বিরল চিত্র। বর্ষিয়ান আদবানির বাঁ হাত ধরে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। আরেক পাশে রাজনাথ সিং (Rajnath Sing)। দলের অভ্যন্তরে ‘লৌহ পুরুষ’ আদবানি ঘনিষ্ট বলে পরিচিত ছিলেন সুষমা স্বরাজ  (Sushma Swaraj)। প্রিয় মানুষের প্রয়াণে তাই ভেঙে পড়েছেন নবতিপর মানুষটি। বারে বারেই চোখের জল মুছেছেন। 

  • রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সুষমা স্বরাজের শেষকৃত্য, উপস্থিত প্রধানমন্ত্রীসহ শীর্ষনেতারা

    রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সুষমা স্বরাজের শেষকৃত্য, উপস্থিত প্রধানমন্ত্রীসহ শীর্ষনেতারা

    Sushma Swaraj Death: সুষমা স্বরাজের প্রয়াণের পর তাঁর বাসভবনে শেষশ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়লেন প্রবীণ বিজেপি নেতা লালকৃষ্ণ আদবানি। জনপ্রিয় এই নেত্রীর সম্বন্ধে স্মৃতিচারণও করতে শোনা যায় বিজেপির লৌহপুরুষকে। শুধু আদবানি নন, সুষমার বাসভবনে তাঁর সঙ্গে যাওয়া মেয়ে প্রতিভাও নিজের শোক সামলাতে না পেরে কান্নায় ভেঙে পড়েন। সুষমা স্বরাজের মেয়ে বাঁশুরিকে জড়িয়ে ধরে কেঁদে ফেলেন তিনি। ৯১ বছরের আদবানি স্মৃতিচারণ করে বলেন যে তাঁর এমন একটি জন্মদিনও যায়নি যখন সুষমা স্বরাজ তাঁর জন্যে চকলেট কেক আনেননি।

  • ৩৭০ ধারা বাতিল কেন্দ্রের "সাহসী পদক্ষেপ", বলছেন এলকে আদবানি

    ৩৭০ ধারা বাতিল কেন্দ্রের "সাহসী পদক্ষেপ", বলছেন এলকে আদবানি

    হওয়ায় বলিষ্ঠ পদক্ষেপ করা হয়নি তাঁর। কালের নিয়মে মোদি-শাহ জমানায় মার্গ দর্শকের ভূমিকায় বর্ষীয়ান লালকৃষ্ণ আদবানি (LK Advani)। তাঁর গান্ধীনগর আসন থেকে জিতেই এবার লোকসভায় গিয়েছেন অমিত শাহ (Amit Shah)। হয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। সেই অমিত শাহের হাত ধরেই বাতিল হয়েছে এতদিন সংবিধান প্রদত্ত জম্মু-কাশ্মীরের (Jammu and Kashmir) বিশেষ অধিকার ৩৭০ ধারা (Article 370)। ‘এক ভারত, এক সংবিধানে’র আওয়াজ তুলেছে বিজেপি।

  • বিরাট জয়ের পর দিন আদবানী এবং যোশীর সঙ্গে দেখা করলেন মোদী

    বিরাট জয়ের পর দিন আদবানী এবং যোশীর সঙ্গে  দেখা করলেন মোদী

    জয়ের পর একে একে দু;জনের সঙ্গে দেখা করলেন প্রধানমন্ত্রী। নিজেই সে কথা জানালেন টুইটারে।  প্রথম টুইটে তিনি লেখেন আদবানীজির সঙ্গে দেখা করলাম। এরপর মুরলী মনোহর যোশীর সঙ্গে সাক্ষাতের বিষয়টি ও টুইটারে তুলে ধরেন মোদী।

  • এই পাঁচটি কারণে লোকসভা নির্বাচনের তৃতীয় দফাটি বিশেষ

    এই পাঁচটি কারণে লোকসভা নির্বাচনের তৃতীয় দফাটি বিশেষ

    Election 2019 Phase 3: লোকসভা নির্বাচনের দিন ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গেই বোঝা গিয়েছিল তৃতীয় দফা সবদিক থেকে বিশেষ হতে চলেছে। এরপর প্রার্থী ঘোষণার পর্ব সম্পন্ন হতেই সেই উত্তেজনা আরও বাড়ে। আজ দেশের ১১৭ টি আসনে ভোট নেওয়া হচ্ছে। ভোট দিচ্ছেন প্রায় ১৮ কোটি ভোটার। এই সংখ্যাটি ব্রিটেনের জনসংখ্যার প্রায় তিন গুণ। শুধু তাই নয় দেশের দুটি জাতীয় দলের সভাপতি আজ প্রার্থী। গুজরাটের গান্ধীনগর কেন্দ্র থেকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। আবার কেরালার ওয়ানড কেন্দ্র থেকে লড়ছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। উত্তরপ্রদেশের পাশাপাশি এখান থেকে লড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন রাহুল।। এছাড়া ভোট- সমীকরণের দিক থেকেও এই নির্বাচন বিশেষ। গতবার একার ক্ষমতায় সরকার করলেও কয়েকটি জায়গায় বিজেপির ফল আশাপ্রদ হয়নি। আজ সেই সমস্ত কেন্দ্রেই নির্বাচন হচ্ছে। পাঁচ বছর সরকার চালানো বিজেপি এই চ্যালেঞ্জের মোকাবিলা কীভাবে করে তা নিয়ে রাজনৈতিক মহলে চর্চা শুরু হয়েছে।

  • আদবানীকে কোনও চিঠি লেখেননি দাবি যোশীর, কমিশনে অভিযোগ দায়ের

    আদবানীকে কোনও চিঠি লেখেননি দাবি যোশীর, কমিশনে অভিযোগ দায়ের

    তাঁর নাম করে যে চিঠি ছড়িয়ে পড়েছে  তা তিনি লেখেননি। এমনই দাবি বিজেপির প্রবীণ নেতা  মুরলী মনোহর যোশীর।

  • 'কে দেশবিরোধী', এই প্রশ্নে আদবানির সঙ্গে সহমত নীতিন গড়করি

    'কে দেশবিরোধী', এই প্রশ্নে আদবানির সঙ্গে সহমত নীতিন গড়করি

    নীতিন গডকরি বলেন, যাঁরা আমদের সঙ্গে নেই, তাঁদেরই দেশবিরোধী বলতে চাই না আমরা। প্রত্যেকেরই মতপ্রকাশের অধিকার রয়েছে। তা নিয়ে আমাদের কোনও সমস্যা নেই।

  • আদবানী এবং মুরলী মনোহর যোশীর সঙ্গে দেখা করলেন অমিত শাহ

    আদবানী এবং মুরলী মনোহর যোশীর সঙ্গে দেখা করলেন অমিত শাহ

    সোমবার দলের ইস্তেহার প্রকাশের পর এই দুই প্রবীণ নেতার সঙ্গে দেখা করেন বিজেপির জাতীয় সভাপতি অমিত শাহ। প্রসঙ্গত, মোদী-শাহ জুটি তাঁদের 'গুরু'দের একঘরে করে দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছিল বিরোধী দলগুলির পক্ষ থেকে।

  • আদবানীর মতো মহান মানুষ বিজেপিকে শক্তিশালী করেছেন গর্ব হচ্ছেঃ মোদী

    আদবানীর মতো মহান মানুষ বিজেপিকে শক্তিশালী করেছেন গর্ব হচ্ছেঃ মোদী

    নানা জল্পনার মাঝে টুইট করলেন প্রধানমন্ত্রী। তাতে তিনি লেখেন, আদবানীজি দারুণ  ভাবে বিজেপির মূল মন্ত্রটি তুলে ধরেছেন । বিজেপি বিশ্বাস করে সবার আগে দেশ, তারপর দল আর নিজের কথা আসে সবচেয়ে পরে। এই বিজেপির সদস্য হতে পেরে আমি গর্বিত। আর আদবানীর মতো  মানুষ  বিজেপিকে শক্তিশালী করার কাজ করেছেন ভেবেও গর্ব হচ্ছে ।  

  • 'দলের মধ্যে গণতন্ত্র' নিয়ে নিজের ব্লগে বিজেপিকে তোপ লালকৃষ্ণ আদবানির

    'দলের মধ্যে গণতন্ত্র' নিয়ে নিজের ব্লগে বিজেপিকে তোপ লালকৃষ্ণ আদবানির

    Lal Krishna Advani: আদবানির ব্লগটি প্রকাশের পরেই তা নিয়ে হইচই শুরু হয়েছে। বিরোধী শিবিরের মতে, এই প্রবীণ রাজনীতিবিদ এই কথাগুলির মাধ্যমে আসলে মোদী-শাহ জুটিকেই তুলোধনা করলেন।

  • গান্ধীনগরের প্রার্থী বদল, ‘ঘনিষ্ঠ মহলে ক্ষোভ প্রকাশ’ আদবানীর

    গান্ধীনগরের প্রার্থী বদল, ‘ঘনিষ্ঠ মহলে ক্ষোভ প্রকাশ’ আদবানীর

    য়স ৭৫ বা তার বেশি এমন দশ জন প্রবীণ নেতাকে এবার টিকিট দেয়নি বিজেপি। সেই কারণেই আদবানীকে  বাদ দেওয়া হয়েছে।

'Lk Advani' - 21 News Result(s)

  • ‘‘মনমোহন সিংহও শরণার্থী ছিলেন’’: নাগরিকত্ব বিল প্রসঙ্গে অমিত শাহ

    ‘‘মনমোহন সিংহও শরণার্থী ছিলেন’’: নাগরিকত্ব বিল প্রসঙ্গে অমিত শাহ

    তিনি জানান মনমোহন সিংহও একজন শরণার্থী। তিনি ১৯৪৭ সালের দেশভাগের পর এদেশে এসেছেন। তাঁকে ভারতের নাগরিকত্ব দেওয়া হয়।

  • "আপনার পরিশ্রমই বিজেপিকে সংগঠিত করেছে": আদবানির জন্মদিনে মোদির শুভেচ্ছা

    "আপনার পরিশ্রমই বিজেপিকে সংগঠিত করেছে":  আদবানির জন্মদিনে মোদির শুভেচ্ছা

    আজ (শুক্রবার) রাজনীতির "লৌহপুরুষ" এল কে আদবানির জন্মদিন (LK Advani's Birthday)। বিজেপির প্রবীণ নেতার জন্মদিনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি টুইটে তাঁকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। এল কে আদবানিকে "পণ্ডিত এবং ভারতের অন্যতম মহান নেতা" বলে বর্ণনা করেছেন  প্রধানমন্ত্রী। তিনি (Narendra Modi) প্রাক্তন উপ-প্রধানমন্ত্রীকে ভারতের রাজনীতিতে একজন প্রভাবশালী খেলোয়াড় হিসাবেও বর্ণনা করেছেন এবং ভারতীয় রাজনীতিতে বিজেপির উত্থানের নেপথ্যেও তাঁকে (LK Advani) কৃতিত্ব দিয়েছেন।

  • জটিল সমস্যার সমাধান করতেন, ভাল রেস্তোঁরার নাম দিতেন, স্মৃতিচারণ আদবানির

    জটিল সমস্যার সমাধান করতেন, ভাল রেস্তোঁরার নাম দিতেন, স্মৃতিচারণ আদবানির

    প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির (Arun Jaitely) প্রয়াণে গভীর শোকপ্রকাশ করে স্মৃতিচারণ করলেন লালকৃষ্ণ আদবানি (LK Advani)। তিনি বলেন, গভীর বিশ্লেষাত্মক মননের এমন একজন মানুষ, যিনি বিজেপিকে অনেক জটিল সমস্যা থেকে মুক্তির রাস্তা দেখিয়েছেন। শনিবার দুপুরে নয়াদিল্লির AIIMS হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির।

  • জেটলিকে দেখতে এইমসে আদবানি, মুক্তার আব্বাস নাকভিরা

    জেটলিকে দেখতে এইমসে আদবানি, মুক্তার আব্বাস নাকভিরা

    সঙ্কটজনক প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অরুণ জেটলির (Arun Jaitley) শারীরিক অবস্থা। এখনও এইমসে লাইফ সাপোর্টে (life support) রয়েছেন তিনি। গত কয়েকদিন ধরে অরুণ জেটলিকে (Arun Jaitley) দেখতে দিল্লির ওই হাসপাতালে যাচ্ছেন বিজেপি সহ বিভিন্ন দলের নেতা নেত্রীরা। দল ও মন্ত্রিসভার প্রাক্তন সহকর্মীর শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিতে সোমবার এইমসে (AIIMS) যান প্রবীণ লালকৃষ্ণ আডবানি (LK Advani)। এছাড়াও গিয়েছিলেন উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত (Trivendra Singh Rawat)। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মুক্তার আব্বাস নাকভি ও বিজেপির জাতীয় সম্পাদক অরুণ সিংও এদিন দলের আইজীবী নেতাকে এইমসে দেখে আসেন।

  • সুষমা স্বরাজের শেষকৃত্যে শোকবিহ্বল মোদী ও আদবানির বিরল মুহূর্ত

    সুষমা স্বরাজের শেষকৃত্যে শোকবিহ্বল মোদী ও আদবানির বিরল মুহূর্ত

    তাঁর একগাল হাসিমুখ সবসময়ে সেতুবন্ধনের কাজ করেছে। যা দেখে বিবাদ ভুলে মুহূর্তে এক হয়ে যেতেন শাসক বিরোধী রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা। শেষ যাত্রাতেও সুষমা স্বরাজ (Sushma Swaraj) মিলিয়ে দিলেন, দলের অভ্যন্তরে পরস্পর বিরোধী বলে পরিচিত মোদী (PM Modi) ও লালকৃষ্ণ আদবানিকে (LK Advani)। বিকেলে লোধি রোড শশ্মানে শোকের ছায়া। সেখান থেকে বেরিয়ে আসার সময় দেখা গেল এর বিরল চিত্র। বর্ষিয়ান আদবানির বাঁ হাত ধরে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। আরেক পাশে রাজনাথ সিং (Rajnath Sing)। দলের অভ্যন্তরে ‘লৌহ পুরুষ’ আদবানি ঘনিষ্ট বলে পরিচিত ছিলেন সুষমা স্বরাজ  (Sushma Swaraj)। প্রিয় মানুষের প্রয়াণে তাই ভেঙে পড়েছেন নবতিপর মানুষটি। বারে বারেই চোখের জল মুছেছেন। 

  • রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সুষমা স্বরাজের শেষকৃত্য, উপস্থিত প্রধানমন্ত্রীসহ শীর্ষনেতারা

    রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সুষমা স্বরাজের শেষকৃত্য, উপস্থিত প্রধানমন্ত্রীসহ শীর্ষনেতারা

    Sushma Swaraj Death: সুষমা স্বরাজের প্রয়াণের পর তাঁর বাসভবনে শেষশ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়লেন প্রবীণ বিজেপি নেতা লালকৃষ্ণ আদবানি। জনপ্রিয় এই নেত্রীর সম্বন্ধে স্মৃতিচারণও করতে শোনা যায় বিজেপির লৌহপুরুষকে। শুধু আদবানি নন, সুষমার বাসভবনে তাঁর সঙ্গে যাওয়া মেয়ে প্রতিভাও নিজের শোক সামলাতে না পেরে কান্নায় ভেঙে পড়েন। সুষমা স্বরাজের মেয়ে বাঁশুরিকে জড়িয়ে ধরে কেঁদে ফেলেন তিনি। ৯১ বছরের আদবানি স্মৃতিচারণ করে বলেন যে তাঁর এমন একটি জন্মদিনও যায়নি যখন সুষমা স্বরাজ তাঁর জন্যে চকলেট কেক আনেননি।

  • ৩৭০ ধারা বাতিল কেন্দ্রের "সাহসী পদক্ষেপ", বলছেন এলকে আদবানি

    ৩৭০ ধারা বাতিল কেন্দ্রের "সাহসী পদক্ষেপ", বলছেন এলকে আদবানি

    হওয়ায় বলিষ্ঠ পদক্ষেপ করা হয়নি তাঁর। কালের নিয়মে মোদি-শাহ জমানায় মার্গ দর্শকের ভূমিকায় বর্ষীয়ান লালকৃষ্ণ আদবানি (LK Advani)। তাঁর গান্ধীনগর আসন থেকে জিতেই এবার লোকসভায় গিয়েছেন অমিত শাহ (Amit Shah)। হয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। সেই অমিত শাহের হাত ধরেই বাতিল হয়েছে এতদিন সংবিধান প্রদত্ত জম্মু-কাশ্মীরের (Jammu and Kashmir) বিশেষ অধিকার ৩৭০ ধারা (Article 370)। ‘এক ভারত, এক সংবিধানে’র আওয়াজ তুলেছে বিজেপি।

  • বিরাট জয়ের পর দিন আদবানী এবং যোশীর সঙ্গে দেখা করলেন মোদী

    বিরাট জয়ের পর দিন আদবানী এবং যোশীর সঙ্গে  দেখা করলেন মোদী

    জয়ের পর একে একে দু;জনের সঙ্গে দেখা করলেন প্রধানমন্ত্রী। নিজেই সে কথা জানালেন টুইটারে।  প্রথম টুইটে তিনি লেখেন আদবানীজির সঙ্গে দেখা করলাম। এরপর মুরলী মনোহর যোশীর সঙ্গে সাক্ষাতের বিষয়টি ও টুইটারে তুলে ধরেন মোদী।

  • এই পাঁচটি কারণে লোকসভা নির্বাচনের তৃতীয় দফাটি বিশেষ

    এই পাঁচটি কারণে লোকসভা নির্বাচনের তৃতীয় দফাটি বিশেষ

    Election 2019 Phase 3: লোকসভা নির্বাচনের দিন ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গেই বোঝা গিয়েছিল তৃতীয় দফা সবদিক থেকে বিশেষ হতে চলেছে। এরপর প্রার্থী ঘোষণার পর্ব সম্পন্ন হতেই সেই উত্তেজনা আরও বাড়ে। আজ দেশের ১১৭ টি আসনে ভোট নেওয়া হচ্ছে। ভোট দিচ্ছেন প্রায় ১৮ কোটি ভোটার। এই সংখ্যাটি ব্রিটেনের জনসংখ্যার প্রায় তিন গুণ। শুধু তাই নয় দেশের দুটি জাতীয় দলের সভাপতি আজ প্রার্থী। গুজরাটের গান্ধীনগর কেন্দ্র থেকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। আবার কেরালার ওয়ানড কেন্দ্র থেকে লড়ছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। উত্তরপ্রদেশের পাশাপাশি এখান থেকে লড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন রাহুল।। এছাড়া ভোট- সমীকরণের দিক থেকেও এই নির্বাচন বিশেষ। গতবার একার ক্ষমতায় সরকার করলেও কয়েকটি জায়গায় বিজেপির ফল আশাপ্রদ হয়নি। আজ সেই সমস্ত কেন্দ্রেই নির্বাচন হচ্ছে। পাঁচ বছর সরকার চালানো বিজেপি এই চ্যালেঞ্জের মোকাবিলা কীভাবে করে তা নিয়ে রাজনৈতিক মহলে চর্চা শুরু হয়েছে।

  • আদবানীকে কোনও চিঠি লেখেননি দাবি যোশীর, কমিশনে অভিযোগ দায়ের

    আদবানীকে কোনও চিঠি লেখেননি দাবি যোশীর, কমিশনে অভিযোগ দায়ের

    তাঁর নাম করে যে চিঠি ছড়িয়ে পড়েছে  তা তিনি লেখেননি। এমনই দাবি বিজেপির প্রবীণ নেতা  মুরলী মনোহর যোশীর।

  • 'কে দেশবিরোধী', এই প্রশ্নে আদবানির সঙ্গে সহমত নীতিন গড়করি

    'কে দেশবিরোধী', এই প্রশ্নে আদবানির সঙ্গে সহমত নীতিন গড়করি

    নীতিন গডকরি বলেন, যাঁরা আমদের সঙ্গে নেই, তাঁদেরই দেশবিরোধী বলতে চাই না আমরা। প্রত্যেকেরই মতপ্রকাশের অধিকার রয়েছে। তা নিয়ে আমাদের কোনও সমস্যা নেই।

  • আদবানী এবং মুরলী মনোহর যোশীর সঙ্গে দেখা করলেন অমিত শাহ

    আদবানী এবং মুরলী মনোহর যোশীর সঙ্গে দেখা করলেন অমিত শাহ

    সোমবার দলের ইস্তেহার প্রকাশের পর এই দুই প্রবীণ নেতার সঙ্গে দেখা করেন বিজেপির জাতীয় সভাপতি অমিত শাহ। প্রসঙ্গত, মোদী-শাহ জুটি তাঁদের 'গুরু'দের একঘরে করে দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছিল বিরোধী দলগুলির পক্ষ থেকে।

  • আদবানীর মতো মহান মানুষ বিজেপিকে শক্তিশালী করেছেন গর্ব হচ্ছেঃ মোদী

    আদবানীর মতো মহান মানুষ বিজেপিকে শক্তিশালী করেছেন গর্ব হচ্ছেঃ মোদী

    নানা জল্পনার মাঝে টুইট করলেন প্রধানমন্ত্রী। তাতে তিনি লেখেন, আদবানীজি দারুণ  ভাবে বিজেপির মূল মন্ত্রটি তুলে ধরেছেন । বিজেপি বিশ্বাস করে সবার আগে দেশ, তারপর দল আর নিজের কথা আসে সবচেয়ে পরে। এই বিজেপির সদস্য হতে পেরে আমি গর্বিত। আর আদবানীর মতো  মানুষ  বিজেপিকে শক্তিশালী করার কাজ করেছেন ভেবেও গর্ব হচ্ছে ।  

  • 'দলের মধ্যে গণতন্ত্র' নিয়ে নিজের ব্লগে বিজেপিকে তোপ লালকৃষ্ণ আদবানির

    'দলের মধ্যে গণতন্ত্র' নিয়ে নিজের ব্লগে বিজেপিকে তোপ লালকৃষ্ণ আদবানির

    Lal Krishna Advani: আদবানির ব্লগটি প্রকাশের পরেই তা নিয়ে হইচই শুরু হয়েছে। বিরোধী শিবিরের মতে, এই প্রবীণ রাজনীতিবিদ এই কথাগুলির মাধ্যমে আসলে মোদী-শাহ জুটিকেই তুলোধনা করলেন।

  • গান্ধীনগরের প্রার্থী বদল, ‘ঘনিষ্ঠ মহলে ক্ষোভ প্রকাশ’ আদবানীর

    গান্ধীনগরের প্রার্থী বদল, ‘ঘনিষ্ঠ মহলে ক্ষোভ প্রকাশ’ আদবানীর

    য়স ৭৫ বা তার বেশি এমন দশ জন প্রবীণ নেতাকে এবার টিকিট দেয়নি বিজেপি। সেই কারণেই আদবানীকে  বাদ দেওয়া হয়েছে।

Your search did not match any documents
A few suggestions
  • Make sure all words are spelled correctly
  • Try different keywords
  • Try more general keywords
Check the NDTV Archives:https://archives.ndtv.com

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................