Congress Government

'Congress Government' - 42 News Result(s)

  • এখনই শচীন ও তাঁর দলবলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নয়, নির্দেশ রাজস্থান হাইকোর্টের
    Bengali | Edited by Indrani Halder | Friday July 24, 2020
    ফের স্বস্তি রাজস্থানের (Rajasthan Crisis ) শচীন শিবিরে। শুক্রবার রাজস্থান হাইকোর্ট তার রায়ে সাফ জানিয়ে দিল যে, আপাতত শচীন পাইলট এবং অন্যান্য বিক্ষুব্ধ কংগ্রেস নেতাদের বিরুদ্ধে কোনও শাস্তিমূলক পদক্ষেপ নেওয়া যাবে না। যেভাবে রাজস্থান বিধানসভার (Rajasthan Assembly) অধ্যক্ষ সিপি যোশী শচীন ও তাঁর অনুগামী বিধায়কদের অযোগ্য ঘোষণা করার নোটিশ পাঠিয়েছেন তারও সমালোচনা করে আদালত (Rajasthan High Court)। রাজস্থান হাইকোর্ট বলেছে, বিধায়ক হিসাবে অযোগ্য ঘোষণার নোটিশের বিরুদ্ধে শচীন (Sachin Pilot) ও তাঁর সঙ্গে থাকা বিক্ষুব্ধ কংগ্রেস বিধায়কদের আবেদনের বিষয়ে কোনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত না হওয়া পর্যন্ত রাজস্থান বিধানসভার অধ্যক্ষের দেওয়া নোটিসে "স্থগিতাদেশ" জারি থাকবে। একেবারে শেষ মূহুর্তে এসে শচীন পাইলটের তরফে করা আবেদনে কেন্দ্রকেও যুক্ত করার কথা বলা হলে মামলার রায় ঘোষণা করতে বেশ কিছুটা দেরি হয়। এদিকে বৃহস্পতিবারই সুপ্রিম কোর্ট পাইলট শিবিরকে সাময়িক স্বস্তি দিয়ে জানায় যে রাজস্থান হাইকোর্টের রায়ের উপর কোনও হস্তক্ষেপ করবে না তাঁরা। এপ্রসঙ্গে শীর্ষ আদালতের অন্যতম বিচারপতি এ কে মিশ্র বলেন, "ধরুন কোনও নেতার প্রতি বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়ে কয়েকজন প্রতিবাদ করেছেন। কিন্তু তবুও তাঁরা একই দলে থাকাকালীন তাঁদের বিধায়ক হিসাবে অযোগ্য ঘোষণা করা যাবে না। কেননা এরফলে পরবর্তী সময়ে এটা একটা রাজনৈতিক হাতিয়ার হয়ে উঠবে এবং কেউ কারোও বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে পারবে না। গণতন্ত্রে বিরুদ্ধ মতের কণ্ঠকে কখনোই এভাবে রোধ করা যায় না।" তারপরেই ওইদিন সন্ধেবেলাতেই রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করে মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট (Ashok Gehlot) ইঙ্গিত দেন যে তিনি আস্থা ভোটের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন।
  • "কংগ্রেস কি রাজস্থানের রাজনীতিবিদদের ফোন ট্যাপ করেছে?" প্রশ্ন বিজেপির
    Bengali | Edited by Indrani Halder | Sunday July 19, 2020
    রাজস্থানের (Rajasthan) কংগ্রেস সরকারকে পাল্টা চাল দিল ভারতীয় জনতা পার্টি। গেরুয়া (BJP) দলের অভিযোগ, ওই রাজ্যের রাজনীতিবিদদের ফোন অবৈধভাবে ট্যাপ করেছে গেহলট সরকার। শনিবার এই অভিযোগের ভিত্তিতে সিবিআই (CBI) তদন্তের দাবি তুলেছে বিজেপি। রীতিমতো "অসাংবিধানিক" পদক্ষেপ করে সরকার বাঁচানোর চেষ্টা করছে কংগ্রেস (Congress government), এমন কথাও বলছেন পদ্ম শিবিরের নেতারা।
  • ''এখনও কংগ্রেসেই আছি, বিজেপি-তে যাইনি'' এনডিটিভিকে জানালেন শচীন পাইলট
    Bengali | Edited by Sumana Chakraborty | Wednesday July 15, 2020
    Rajasthan Congress Crisis: দলের সঙ্গে পায়ে পা মিলিয়ে চলতে পারছেন না শচীন পাইলট (Sachin Pilot), তাই ক্রমাগত দল ছাড়ার কথা বলছেন
  • "কোষাগারের তালা খুলে দরিদ্রদের ত্রাণ দিন", কেন্দ্রকে পরামর্শ দিলেন সনিয়া গান্ধি
    Bengali | Edited by Indrani Halder | Thursday May 28, 2020
    করোনা ভাইরাস যখন গোটা দেশের কাছে চ্যালেঞ্জ হিসাবে দেখা দিয়েছে সেই সময়েই কেন্দ্রের শাসক দল বিজেপি (BJP) এবং দেশের সাধারণ মানুষের প্রতি এক ভিডিও বার্তা দিলেন কংগ্রেস (Congress) সভানেত্রী সনিয়া গান্ধি। টানা লকডাউনের (Lockdown) কারণে বিভিন্ন জায়গায় আটকা পড়ে যে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে দেশের পরিযায়ী শ্রমিকদের (Migrants Workers), তা নিয়েও কেন্দ্রীয় সরকারের (Central Government) দিকে রীতিমতো তোপ ছোঁড়েন তিনি (Sonia Gandhi)।
  • ডিএ বৃদ্ধি স্থগিতের সিদ্ধান্তে কেন্দ্রের সমালোচনায় মনমোহন সিং, রাহুল গান্ধি
    Bengali | Edited by Indrani Halder | Saturday April 25, 2020
    এমনিতেই দেশে করোনা সঙ্কটে (Coronavirus Crisis) বিপর্যস্ত সাধারণ মানুষ। তার উপর যেভাবে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের মহার্ঘ ভাতা (Dearness Allowance) বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত ২০২১ সালের জুলাই মাস পর্যন্ত স্থগিত রাখার ঘোষণা করা হয়েছে তা একেবারেই অমানবিক, এমনটাই মনে করে কংগ্রেস। শনিবার জুম কনফারেন্স কল মারফৎ একটি সাংবাদিক সম্মেলন করে কেন্দ্রের সমালোচনায় সরব হন দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং (Manmohan Singh), কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধি (Rahul Gandhi) ও কংগ্রেস আমলের অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরম।
  • শুক্রবার দুপুর দুটোয় দুই কমলের যুদ্ধ, আস্থা ভোটে মধ্যপ্রদেশ সরকার বনাম বিজেপি
    Bengali | Edited by Indrani Halder | Friday March 20, 2020
    দুই কমলের রাজনৈতিক যুদ্ধে এবার উত্তপ্ত হতে চলেছে মধ্যপ্রদেশ। আজ (শুক্রবার) দুপুর দুটোর সময় মধ্যপ্রদেশ বিধানসভায় আস্থা ভোট হওয়ার কথা। সেখানেই দেখা যাবে, ওই রাজ্যে (Madhya Pradesh) বর্তমানে পাল্লা ভারী কোন কমলের, মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথের নাকি কমল-প্রতীকের বিজেপির? গতকালই (বৃহস্পতিবার) শুক্রবার বিকেল ৫টার মধ্যে আস্থা ভোটের (Floor Test) মাধ্যমে কমল নাথ সরকারকে (Kamal Nath Government) নিজের সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণের নির্দেশ দেয় সুপ্রিম কোর্ট। বিজেপির করা এক মামলার পরিপ্রেক্ষিতে শীর্ষ আদালত জানায় যে মধ্যপ্রদেশের অনিশ্চয়তার পরিস্থিতি কাটাতে আস্থা ভোটের মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করা উচিত। এই প্রসঙ্গে আদালত (Supreme Court) সাতটি গাইডলাইন দিয়েছে যাতে ওই ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়াটি নিয়ম মেনে শান্তিপূর্ণ উপায়ে সম্পন্ন করা যায়। 
  • করোনা আতঙ্কে ১০ দিনের ছুটিতে কমল নাথ, সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ বিজেপি
    Bengali | Edited by Indrani Halder | Monday March 16, 2020
    কায়দা করে ১০ দিনের সময় বের করে নিল মধ্যপ্রদেশের কমল নাথ (Kamal Nath) সরকার, এমনটাই অভিযোগ করছে বিজেপি। সোমবারই রাজ্যপাল লালজি ট্যান্ডনের মিনিট খানেকের নাটকীয় ভাষণের পরে বিধানসভা অধিবেশন করোনা সংক্রমণ এড়াতে আগামী ২৬ মার্চ পর্যন্ত স্থগিত করার ঘোষণা হয়। এর ফলে মধ্য প্রদেশের কমল নাথের নেতৃত্বাধীন কংগ্রেস সরকার (Madhya Pradesh crisis) আস্থা ভোটের প্রস্তুতিতে অতিরিক্ত ১০ দিনের সময় পেল। রাজ্যপাল বিধানসভা অধিবেশনে মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) কংগ্রেস সরকারকে "সংবিধান মেনে চলার" জন্যে অনুরোধ করেন, তখনই বিধানসভায় জোর স্লোগান ওঠে আগে আপনি "বিধানসভাকে সম্মান করুন"। এরপরেই তিনি অধিবেশন থেকে বেরিয়ে যান।
  • বিধায়কদের আটকে রাখার অভিযোগ তুলে বিজেপির বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার হুঁশিয়ারি কংগ্রেসের
    Bengali | Written by Suryakan Pathak, Edited by Biswadip Dey | Thursday March 12, 2020
    বৃহস্পতিবার ভোপালে বিজেপির বিরুদ্ধে এমনই গুরুতর অভিযোগ তোলে কংগ্রেস। তাদের দাবি, তাদের বিধায়কদের মুক্তি না দেওয়া হলে তারা শীর্ষ আদালতে যাবে।
  • "মহারাজের সঙ্গেই আছি": মধ্যপ্রদেশের বিদ্রোহী বিধায়কদের বার্তায় অস্বস্তিতে কংগ্রেস
    Bengali | Edited by Indrani Halder | Thursday March 12, 2020
    জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া, মধ্যপ্রদেশ কংগ্রেসের একসময়ের অন্যতম স্তম্ভ, যিনি হাতের দল থেকে পদ্ম শিবিরে যাওয়ায় একরকম টালামাটাল পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে কমল নাথ সরকারের অন্দরে। কারণ কংগ্রেসের প্রাক্তন ওই জনপ্রিয় নেতার দল থেকে ইস্তফা দেওয়ার সময় বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দেন আরও ২১ জন। আপাতত এই বিধায়করা গেরুয়া দলে নাম না লেখালেও যে কোনও মুহূর্তে এমন কিছু ঘটতে পারে বলেও মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। যদিও জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া বিজেপিতে যোগদানের পরেই কংগ্রেস জানিয়েছিল যে সিন্ধিয়া-ঘনিষ্ঠ বিধায়করা যাচ্ছেন না গেরুয়া দলে। কিন্তু তাঁদের সেই দাবির মুখে চুনকালি লেপে দিয়ে বিদ্রোহী বিধায়কদের বার্তা "মহারাজের সঙ্গেই আছি", আর এতেই চরম অস্বস্তিতে মধ্যপ্রদেশ কংগ্রেস।
  • “নয়া শুরু”, বিজেপিতে যোগ একসময়ে গান্ধি পরিবার ঘনিষ্ঠ জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়ার: ১০টি তথ্য
    Bengali | Edited by Biren Bhattacharya | Wednesday March 11, 2020
    কংগ্রেসের সঙ্গে ১৮ বছরের সম্পর্ক ছিন্ন করে অবশেষে বিজেপিতে যোগ দিলেন জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া (Jyotiraditya Scindia) । দীর্ঘদিন কংগ্রেসে ছিলেন তাঁর বাবাও। ১৫ মাস আগে মধ্যপ্রদেশে (Madhyapradesh) ক্ষমতায় এসেছে কংগ্রেস, তারমধ্যেই ২১ জন বিধায়ক নিয়ে তাঁর দলত্যাগ কংগ্রেসকে বিপদে ফেলে দিল। দুপুর ১২.৩০টা নাগাদ বিজেপিতে যোগ দেওয়ার কথা ছিল জ্যোতিরাদিত্যের, তবে সূত্রের খবর, “রাহু কাল” এড়াতে তা পিছিয়ে দুপুর ২টো করা হয়। তাঁকে রাজ্যসভায় প্রার্থী করা হতে পারে, এবং খুব শীঘ্রই তা জানাতে পারে বিজেপি, পাশাপাশি কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভাতেও সামিল করা হতে পারে তাঁকে। মঙ্গলবার, দেশজুড়ে হোলির দিনেই, অমিত শাহের বাড়িতে যান জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া, সেখানেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাড়িতে যান তাঁরা। বৈঠকের কিছুক্ষণ পরেই, সানিয়া গান্ধিকে লেখা চিঠি ট্যুইট করেন তিনি, যেখানে “নতুন শুরু”র কথা জানান মধ্যপ্রদেশের এই তরুণ নেতা। আলিঙ্গন করে তাঁকে বিজেপির সদর দফতরে স্বাগত জানান, গত বছর বিজেডি ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া জয় পাণ্ডা।
  • ‘‘দলত্যাগী কংগ্রেস বিধায়কদের আমার সঙ্গে দেখা করতে হবে’’: মধ্যপ্রদেশের স্পিকার
    Bengali | Edited by Biswadip Dey | Wednesday March 11, 2020
    মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথ জানিয়েছেন, তিনি আত্মবিশ্বাসী তাঁর সরকার পূর্ণ মেয়াদই ক্ষমতায় থাকবে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তিনি বলেন, ‘‘এই নিয়ে উদ্বেগের কিছু নেই। আমরা সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করব।’’
  • খুব শিগগির বিজেপিতে যোগ দেবেন জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া: ১০ তথ্য
    Bengali | Edited by Indrani Halder | Wednesday March 11, 2020
    ২১ জন বিধায়ক সহ জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়ার কংগ্রেস ত্যাগে সঙ্কটের মুখে মধ্যপ্রদেশের কমল নাথ সরকার। একটি সূত্র NDTV-কে জানিয়েছে যে বুধবারই বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন ওই দুঁদে রাজনীতিক (Jyotiraditya Scindia)। সম্ভবত তাঁকে বিজেপির টিকিটে রাজ্যসভা মনোনীত প্রার্থী করা হবে। এমনকী একথাও শোনা যাচ্ছে যে, মোদি মন্ত্রিসভাতেও স্থান পেতে পারেন জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া। এমনিতেই সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্যে প্রয়োজনীয় বিধায়ক সংখ্যা থেকে মাত্র ৪ জন বিধায়ক বেশি নিয়ে মধ্যপ্রদেশে সরকার গড়েছিল কংগ্রেস। এবার জ্যোতিরাদিত্য অনুগামী বিধায়কদের ইস্তফা গৃহীত হলে সেই সংখ্যাগরিষ্ঠতাও হারাবে তাঁরা, ফলে পড়ে যাবে কমল নাথ সরকার (Madhya Pradesh Government Crisis)। এই সময় তাই বিধায়ক সংখ্যা একটা বড় ফ্যাক্টর দুই দলের কাছেই। সেই জন্যেই (Madhya Pradesh Crisis) বিজেপি এবং কংগ্রেস দলীয় বিধায়কদের আগলে রাখার জন্যে ইতিমধ্যেই মধ্যপ্রদেশের বাইরে নিয়ে গেছে বলে খবর। জানা গেছে, বিজেপি তাঁদের বিধায়কদের গুরগাঁওয়ের একটি পাঁচতারা রিসর্টে এনে রেখেছে, অন্যদিকে কংগ্রেস তাঁদের বিধায়কদের নিয়ে যাচ্ছে রাজস্থানের জয়পুরে।
  • "সময় হয়েছে এগিয়ে যাওয়ার," সনিয়াকে লেখা পদত্যাগ পত্রে উল্লেখ জ্যোতিরাদিত্যের
    Bengali | Edited by Joydeep Sen | Tuesday March 10, 2020
    এদিন সনিয়াকে পাঠানো চিঠিতে কাজ না করতে পারার কারণ দর্শিয়ে জ্যোতিরাদিত্য লিখেছেন, "আমি জাতীয় কংগ্রেসের প্রাথমিক সদস্যপদ থেকে পদত্যাগ করছি। গত ১৮ বছর ধরে আমি দলের অনুগত সৈনিক হিসেবে কাজ করেছি। কিন্তু এখন সময় এসেছে এগিয়ে যাওয়ার। আমার লক্ষ মানুষের জন্য কাজ করা। যা আমি গত সময়ে করে এসেছি, আগামী সময়েও করব। কিন্তু আমার মনে হয়েছে কংগ্রেসে থেকে সেই লক্ষ্যপূরণ করতে পারছি না।" এদিকে সেই পদত্যাগ পত্র প্রকাশ্যে আসার পরই তাঁকে দল থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত জানিয়ে টুইট করে কংগ্রেস। 
  • দিল্লি হাইকোর্টের বিচারপতির বদলি ‘নিয়মমাফিক’, বিতর্কের মধ্যেই জানাল সরকার
    Bengali | Edited by Biswadip Dey | Thursday February 27, 2020
    উস্কানিমূলক বক্তব্য রাখার অভিযোগে চার বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়েরের নির্দেশ দিয়েছিলেন ওই বিচারপতি। তাঁর বদলির নির্দেশ ঘিরে শুরু হয়েছে বিতর্ক।
  • কেন্দ্রের প্রকল্প রুপায়ণের কার্যকারিতার সমালোচনা! করোনা ভাইরাস প্রসঙ্গ টানলেন Shashi Tharoor
    Bengali | Edited by Joydeep Sen | Friday February 7, 2020
    কেন্দ্রীয় সরকারী প্রকল্পগুলোর রূপায়ণ প্রসঙ্গে নরেন্দ্র মোদির সরকারকে (Narendra Modi government) বিঁধতে গিয়ে করোনা ভাইরাস (Coronavirus) প্রসঙ্গ টানলেন শশী থারুর। এদিন তিনি (Sashi Tharoor) টুইট করে বলেন, "এটা নিশ্চিত সরকারের প্রকল্প রূপায়ণ এতটাই অকার্যকরী যে এগুলো সম্পূর্ণ কারো-না (এটা হয়ে গেছে) ভাইরাস প্রতিরোধী (Immune to Karo-Na Virus)।"

'Congress Government' - 42 News Result(s)

  • এখনই শচীন ও তাঁর দলবলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নয়, নির্দেশ রাজস্থান হাইকোর্টের
    Bengali | Edited by Indrani Halder | Friday July 24, 2020
    ফের স্বস্তি রাজস্থানের (Rajasthan Crisis ) শচীন শিবিরে। শুক্রবার রাজস্থান হাইকোর্ট তার রায়ে সাফ জানিয়ে দিল যে, আপাতত শচীন পাইলট এবং অন্যান্য বিক্ষুব্ধ কংগ্রেস নেতাদের বিরুদ্ধে কোনও শাস্তিমূলক পদক্ষেপ নেওয়া যাবে না। যেভাবে রাজস্থান বিধানসভার (Rajasthan Assembly) অধ্যক্ষ সিপি যোশী শচীন ও তাঁর অনুগামী বিধায়কদের অযোগ্য ঘোষণা করার নোটিশ পাঠিয়েছেন তারও সমালোচনা করে আদালত (Rajasthan High Court)। রাজস্থান হাইকোর্ট বলেছে, বিধায়ক হিসাবে অযোগ্য ঘোষণার নোটিশের বিরুদ্ধে শচীন (Sachin Pilot) ও তাঁর সঙ্গে থাকা বিক্ষুব্ধ কংগ্রেস বিধায়কদের আবেদনের বিষয়ে কোনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত না হওয়া পর্যন্ত রাজস্থান বিধানসভার অধ্যক্ষের দেওয়া নোটিসে "স্থগিতাদেশ" জারি থাকবে। একেবারে শেষ মূহুর্তে এসে শচীন পাইলটের তরফে করা আবেদনে কেন্দ্রকেও যুক্ত করার কথা বলা হলে মামলার রায় ঘোষণা করতে বেশ কিছুটা দেরি হয়। এদিকে বৃহস্পতিবারই সুপ্রিম কোর্ট পাইলট শিবিরকে সাময়িক স্বস্তি দিয়ে জানায় যে রাজস্থান হাইকোর্টের রায়ের উপর কোনও হস্তক্ষেপ করবে না তাঁরা। এপ্রসঙ্গে শীর্ষ আদালতের অন্যতম বিচারপতি এ কে মিশ্র বলেন, "ধরুন কোনও নেতার প্রতি বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়ে কয়েকজন প্রতিবাদ করেছেন। কিন্তু তবুও তাঁরা একই দলে থাকাকালীন তাঁদের বিধায়ক হিসাবে অযোগ্য ঘোষণা করা যাবে না। কেননা এরফলে পরবর্তী সময়ে এটা একটা রাজনৈতিক হাতিয়ার হয়ে উঠবে এবং কেউ কারোও বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে পারবে না। গণতন্ত্রে বিরুদ্ধ মতের কণ্ঠকে কখনোই এভাবে রোধ করা যায় না।" তারপরেই ওইদিন সন্ধেবেলাতেই রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করে মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট (Ashok Gehlot) ইঙ্গিত দেন যে তিনি আস্থা ভোটের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন।
  • "কংগ্রেস কি রাজস্থানের রাজনীতিবিদদের ফোন ট্যাপ করেছে?" প্রশ্ন বিজেপির
    Bengali | Edited by Indrani Halder | Sunday July 19, 2020
    রাজস্থানের (Rajasthan) কংগ্রেস সরকারকে পাল্টা চাল দিল ভারতীয় জনতা পার্টি। গেরুয়া (BJP) দলের অভিযোগ, ওই রাজ্যের রাজনীতিবিদদের ফোন অবৈধভাবে ট্যাপ করেছে গেহলট সরকার। শনিবার এই অভিযোগের ভিত্তিতে সিবিআই (CBI) তদন্তের দাবি তুলেছে বিজেপি। রীতিমতো "অসাংবিধানিক" পদক্ষেপ করে সরকার বাঁচানোর চেষ্টা করছে কংগ্রেস (Congress government), এমন কথাও বলছেন পদ্ম শিবিরের নেতারা।
  • ''এখনও কংগ্রেসেই আছি, বিজেপি-তে যাইনি'' এনডিটিভিকে জানালেন শচীন পাইলট
    Bengali | Edited by Sumana Chakraborty | Wednesday July 15, 2020
    Rajasthan Congress Crisis: দলের সঙ্গে পায়ে পা মিলিয়ে চলতে পারছেন না শচীন পাইলট (Sachin Pilot), তাই ক্রমাগত দল ছাড়ার কথা বলছেন
  • "কোষাগারের তালা খুলে দরিদ্রদের ত্রাণ দিন", কেন্দ্রকে পরামর্শ দিলেন সনিয়া গান্ধি
    Bengali | Edited by Indrani Halder | Thursday May 28, 2020
    করোনা ভাইরাস যখন গোটা দেশের কাছে চ্যালেঞ্জ হিসাবে দেখা দিয়েছে সেই সময়েই কেন্দ্রের শাসক দল বিজেপি (BJP) এবং দেশের সাধারণ মানুষের প্রতি এক ভিডিও বার্তা দিলেন কংগ্রেস (Congress) সভানেত্রী সনিয়া গান্ধি। টানা লকডাউনের (Lockdown) কারণে বিভিন্ন জায়গায় আটকা পড়ে যে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে দেশের পরিযায়ী শ্রমিকদের (Migrants Workers), তা নিয়েও কেন্দ্রীয় সরকারের (Central Government) দিকে রীতিমতো তোপ ছোঁড়েন তিনি (Sonia Gandhi)।
  • ডিএ বৃদ্ধি স্থগিতের সিদ্ধান্তে কেন্দ্রের সমালোচনায় মনমোহন সিং, রাহুল গান্ধি
    Bengali | Edited by Indrani Halder | Saturday April 25, 2020
    এমনিতেই দেশে করোনা সঙ্কটে (Coronavirus Crisis) বিপর্যস্ত সাধারণ মানুষ। তার উপর যেভাবে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের মহার্ঘ ভাতা (Dearness Allowance) বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত ২০২১ সালের জুলাই মাস পর্যন্ত স্থগিত রাখার ঘোষণা করা হয়েছে তা একেবারেই অমানবিক, এমনটাই মনে করে কংগ্রেস। শনিবার জুম কনফারেন্স কল মারফৎ একটি সাংবাদিক সম্মেলন করে কেন্দ্রের সমালোচনায় সরব হন দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং (Manmohan Singh), কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধি (Rahul Gandhi) ও কংগ্রেস আমলের অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরম।
  • শুক্রবার দুপুর দুটোয় দুই কমলের যুদ্ধ, আস্থা ভোটে মধ্যপ্রদেশ সরকার বনাম বিজেপি
    Bengali | Edited by Indrani Halder | Friday March 20, 2020
    দুই কমলের রাজনৈতিক যুদ্ধে এবার উত্তপ্ত হতে চলেছে মধ্যপ্রদেশ। আজ (শুক্রবার) দুপুর দুটোর সময় মধ্যপ্রদেশ বিধানসভায় আস্থা ভোট হওয়ার কথা। সেখানেই দেখা যাবে, ওই রাজ্যে (Madhya Pradesh) বর্তমানে পাল্লা ভারী কোন কমলের, মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথের নাকি কমল-প্রতীকের বিজেপির? গতকালই (বৃহস্পতিবার) শুক্রবার বিকেল ৫টার মধ্যে আস্থা ভোটের (Floor Test) মাধ্যমে কমল নাথ সরকারকে (Kamal Nath Government) নিজের সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণের নির্দেশ দেয় সুপ্রিম কোর্ট। বিজেপির করা এক মামলার পরিপ্রেক্ষিতে শীর্ষ আদালত জানায় যে মধ্যপ্রদেশের অনিশ্চয়তার পরিস্থিতি কাটাতে আস্থা ভোটের মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করা উচিত। এই প্রসঙ্গে আদালত (Supreme Court) সাতটি গাইডলাইন দিয়েছে যাতে ওই ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়াটি নিয়ম মেনে শান্তিপূর্ণ উপায়ে সম্পন্ন করা যায়। 
  • করোনা আতঙ্কে ১০ দিনের ছুটিতে কমল নাথ, সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ বিজেপি
    Bengali | Edited by Indrani Halder | Monday March 16, 2020
    কায়দা করে ১০ দিনের সময় বের করে নিল মধ্যপ্রদেশের কমল নাথ (Kamal Nath) সরকার, এমনটাই অভিযোগ করছে বিজেপি। সোমবারই রাজ্যপাল লালজি ট্যান্ডনের মিনিট খানেকের নাটকীয় ভাষণের পরে বিধানসভা অধিবেশন করোনা সংক্রমণ এড়াতে আগামী ২৬ মার্চ পর্যন্ত স্থগিত করার ঘোষণা হয়। এর ফলে মধ্য প্রদেশের কমল নাথের নেতৃত্বাধীন কংগ্রেস সরকার (Madhya Pradesh crisis) আস্থা ভোটের প্রস্তুতিতে অতিরিক্ত ১০ দিনের সময় পেল। রাজ্যপাল বিধানসভা অধিবেশনে মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) কংগ্রেস সরকারকে "সংবিধান মেনে চলার" জন্যে অনুরোধ করেন, তখনই বিধানসভায় জোর স্লোগান ওঠে আগে আপনি "বিধানসভাকে সম্মান করুন"। এরপরেই তিনি অধিবেশন থেকে বেরিয়ে যান।
  • বিধায়কদের আটকে রাখার অভিযোগ তুলে বিজেপির বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার হুঁশিয়ারি কংগ্রেসের
    Bengali | Written by Suryakan Pathak, Edited by Biswadip Dey | Thursday March 12, 2020
    বৃহস্পতিবার ভোপালে বিজেপির বিরুদ্ধে এমনই গুরুতর অভিযোগ তোলে কংগ্রেস। তাদের দাবি, তাদের বিধায়কদের মুক্তি না দেওয়া হলে তারা শীর্ষ আদালতে যাবে।
  • "মহারাজের সঙ্গেই আছি": মধ্যপ্রদেশের বিদ্রোহী বিধায়কদের বার্তায় অস্বস্তিতে কংগ্রেস
    Bengali | Edited by Indrani Halder | Thursday March 12, 2020
    জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া, মধ্যপ্রদেশ কংগ্রেসের একসময়ের অন্যতম স্তম্ভ, যিনি হাতের দল থেকে পদ্ম শিবিরে যাওয়ায় একরকম টালামাটাল পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে কমল নাথ সরকারের অন্দরে। কারণ কংগ্রেসের প্রাক্তন ওই জনপ্রিয় নেতার দল থেকে ইস্তফা দেওয়ার সময় বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দেন আরও ২১ জন। আপাতত এই বিধায়করা গেরুয়া দলে নাম না লেখালেও যে কোনও মুহূর্তে এমন কিছু ঘটতে পারে বলেও মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। যদিও জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া বিজেপিতে যোগদানের পরেই কংগ্রেস জানিয়েছিল যে সিন্ধিয়া-ঘনিষ্ঠ বিধায়করা যাচ্ছেন না গেরুয়া দলে। কিন্তু তাঁদের সেই দাবির মুখে চুনকালি লেপে দিয়ে বিদ্রোহী বিধায়কদের বার্তা "মহারাজের সঙ্গেই আছি", আর এতেই চরম অস্বস্তিতে মধ্যপ্রদেশ কংগ্রেস।
  • “নয়া শুরু”, বিজেপিতে যোগ একসময়ে গান্ধি পরিবার ঘনিষ্ঠ জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়ার: ১০টি তথ্য
    Bengali | Edited by Biren Bhattacharya | Wednesday March 11, 2020
    কংগ্রেসের সঙ্গে ১৮ বছরের সম্পর্ক ছিন্ন করে অবশেষে বিজেপিতে যোগ দিলেন জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া (Jyotiraditya Scindia) । দীর্ঘদিন কংগ্রেসে ছিলেন তাঁর বাবাও। ১৫ মাস আগে মধ্যপ্রদেশে (Madhyapradesh) ক্ষমতায় এসেছে কংগ্রেস, তারমধ্যেই ২১ জন বিধায়ক নিয়ে তাঁর দলত্যাগ কংগ্রেসকে বিপদে ফেলে দিল। দুপুর ১২.৩০টা নাগাদ বিজেপিতে যোগ দেওয়ার কথা ছিল জ্যোতিরাদিত্যের, তবে সূত্রের খবর, “রাহু কাল” এড়াতে তা পিছিয়ে দুপুর ২টো করা হয়। তাঁকে রাজ্যসভায় প্রার্থী করা হতে পারে, এবং খুব শীঘ্রই তা জানাতে পারে বিজেপি, পাশাপাশি কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভাতেও সামিল করা হতে পারে তাঁকে। মঙ্গলবার, দেশজুড়ে হোলির দিনেই, অমিত শাহের বাড়িতে যান জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া, সেখানেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাড়িতে যান তাঁরা। বৈঠকের কিছুক্ষণ পরেই, সানিয়া গান্ধিকে লেখা চিঠি ট্যুইট করেন তিনি, যেখানে “নতুন শুরু”র কথা জানান মধ্যপ্রদেশের এই তরুণ নেতা। আলিঙ্গন করে তাঁকে বিজেপির সদর দফতরে স্বাগত জানান, গত বছর বিজেডি ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া জয় পাণ্ডা।
  • ‘‘দলত্যাগী কংগ্রেস বিধায়কদের আমার সঙ্গে দেখা করতে হবে’’: মধ্যপ্রদেশের স্পিকার
    Bengali | Edited by Biswadip Dey | Wednesday March 11, 2020
    মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথ জানিয়েছেন, তিনি আত্মবিশ্বাসী তাঁর সরকার পূর্ণ মেয়াদই ক্ষমতায় থাকবে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তিনি বলেন, ‘‘এই নিয়ে উদ্বেগের কিছু নেই। আমরা সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করব।’’
  • খুব শিগগির বিজেপিতে যোগ দেবেন জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া: ১০ তথ্য
    Bengali | Edited by Indrani Halder | Wednesday March 11, 2020
    ২১ জন বিধায়ক সহ জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়ার কংগ্রেস ত্যাগে সঙ্কটের মুখে মধ্যপ্রদেশের কমল নাথ সরকার। একটি সূত্র NDTV-কে জানিয়েছে যে বুধবারই বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন ওই দুঁদে রাজনীতিক (Jyotiraditya Scindia)। সম্ভবত তাঁকে বিজেপির টিকিটে রাজ্যসভা মনোনীত প্রার্থী করা হবে। এমনকী একথাও শোনা যাচ্ছে যে, মোদি মন্ত্রিসভাতেও স্থান পেতে পারেন জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া। এমনিতেই সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্যে প্রয়োজনীয় বিধায়ক সংখ্যা থেকে মাত্র ৪ জন বিধায়ক বেশি নিয়ে মধ্যপ্রদেশে সরকার গড়েছিল কংগ্রেস। এবার জ্যোতিরাদিত্য অনুগামী বিধায়কদের ইস্তফা গৃহীত হলে সেই সংখ্যাগরিষ্ঠতাও হারাবে তাঁরা, ফলে পড়ে যাবে কমল নাথ সরকার (Madhya Pradesh Government Crisis)। এই সময় তাই বিধায়ক সংখ্যা একটা বড় ফ্যাক্টর দুই দলের কাছেই। সেই জন্যেই (Madhya Pradesh Crisis) বিজেপি এবং কংগ্রেস দলীয় বিধায়কদের আগলে রাখার জন্যে ইতিমধ্যেই মধ্যপ্রদেশের বাইরে নিয়ে গেছে বলে খবর। জানা গেছে, বিজেপি তাঁদের বিধায়কদের গুরগাঁওয়ের একটি পাঁচতারা রিসর্টে এনে রেখেছে, অন্যদিকে কংগ্রেস তাঁদের বিধায়কদের নিয়ে যাচ্ছে রাজস্থানের জয়পুরে।
  • "সময় হয়েছে এগিয়ে যাওয়ার," সনিয়াকে লেখা পদত্যাগ পত্রে উল্লেখ জ্যোতিরাদিত্যের
    Bengali | Edited by Joydeep Sen | Tuesday March 10, 2020
    এদিন সনিয়াকে পাঠানো চিঠিতে কাজ না করতে পারার কারণ দর্শিয়ে জ্যোতিরাদিত্য লিখেছেন, "আমি জাতীয় কংগ্রেসের প্রাথমিক সদস্যপদ থেকে পদত্যাগ করছি। গত ১৮ বছর ধরে আমি দলের অনুগত সৈনিক হিসেবে কাজ করেছি। কিন্তু এখন সময় এসেছে এগিয়ে যাওয়ার। আমার লক্ষ মানুষের জন্য কাজ করা। যা আমি গত সময়ে করে এসেছি, আগামী সময়েও করব। কিন্তু আমার মনে হয়েছে কংগ্রেসে থেকে সেই লক্ষ্যপূরণ করতে পারছি না।" এদিকে সেই পদত্যাগ পত্র প্রকাশ্যে আসার পরই তাঁকে দল থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত জানিয়ে টুইট করে কংগ্রেস। 
  • দিল্লি হাইকোর্টের বিচারপতির বদলি ‘নিয়মমাফিক’, বিতর্কের মধ্যেই জানাল সরকার
    Bengali | Edited by Biswadip Dey | Thursday February 27, 2020
    উস্কানিমূলক বক্তব্য রাখার অভিযোগে চার বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়েরের নির্দেশ দিয়েছিলেন ওই বিচারপতি। তাঁর বদলির নির্দেশ ঘিরে শুরু হয়েছে বিতর্ক।
  • কেন্দ্রের প্রকল্প রুপায়ণের কার্যকারিতার সমালোচনা! করোনা ভাইরাস প্রসঙ্গ টানলেন Shashi Tharoor
    Bengali | Edited by Joydeep Sen | Friday February 7, 2020
    কেন্দ্রীয় সরকারী প্রকল্পগুলোর রূপায়ণ প্রসঙ্গে নরেন্দ্র মোদির সরকারকে (Narendra Modi government) বিঁধতে গিয়ে করোনা ভাইরাস (Coronavirus) প্রসঙ্গ টানলেন শশী থারুর। এদিন তিনি (Sashi Tharoor) টুইট করে বলেন, "এটা নিশ্চিত সরকারের প্রকল্প রূপায়ণ এতটাই অকার্যকরী যে এগুলো সম্পূর্ণ কারো-না (এটা হয়ে গেছে) ভাইরাস প্রতিরোধী (Immune to Karo-Na Virus)।"
Your search did not match any documents
A few suggestions
  • Make sure all words are spelled correctly
  • Try different keywords
  • Try more general keywords
Check the NDTV Archives:https://archives.ndtv.com