This Article is From Mar 02, 2019

আরএসএস স্বেচ্ছাসেবকের পরাক্রমেই ভারতে ফিরেছেন অভিনন্দন; স্মৃতি ইরানী

স্মৃতি ইরানী বলেন, “আজকে, এই সংঘ খুবই গর্বিত। এই দলের স্বেচ্ছাসেবককের (RSS volunteer) পরাক্রমের কারণেই ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ভারতে ফিরে আসছেন এই দেশের সন্তান!” উল্লেখ্য, বিজেপিতে যোগ দেওয়ার আগে মোদি ছিলেন আরএসএস কর্মী। 

আরএসএস স্বেচ্ছাসেবকের পরাক্রমেই ভারতে ফিরেছেন অভিনন্দন; স্মৃতি ইরানী

বিজেপি নেতা সুধাংশু মিত্তলের বই প্রকাশের অনুষ্ঠানে স্মৃতি ইরানী

নিউ দিল্লি:

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানী (Union Minister Smriti Irani) শুক্রবার আটক হওয়ার ঠিক ২ মাথায় ভারতীয় বিমান বাহিনীর পাইলট অভিনন্দন বর্তমানের ফিরে আসার পুরো কৃতিত্ব দিলেন ‘আরএসএসের স্বেচ্ছাসেবীর বীরত্বকে'। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নামোল্লেখের প্রেক্ষিতে তিনি এই কৃতিত্বের কথা জানান। সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানায়, বিজেপি নেতা সুধাংশু মিত্তলের (Sudhanshu Mittal) বই ‘আরএসএস: বিল্ডিং ইন্ডিয়া থ্রু সেবা'র (RSS: Building India Through Sewa) প্রকাশ অনুষ্ঠানে এসে মন্ত্রী স্মৃতি ইরানী বলেন, “আজকে, এই সংঘ খুবই গর্বিত। এই দলের স্বেচ্ছাসেবককের (RSS volunteer) পরাক্রমের কারণেই ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ভারতে ফিরে আসছেন এই দেশের সন্তান!” উল্লেখ্য, বিজেপিতে যোগ দেওয়ার আগে মোদি ছিলেন আরএসএস কর্মী। 

"প্রকৃত ভারতরত্ন", অভিনন্দন বর্তমানকে স্বাগত জানিয়ে বললেন দেশের নেতারা

স্মৃতি ইরানীর বক্তব্য নিয়ে স্বাভাবিকভাবেই বিরোধী দলগুলোর মধ্যে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। বরাবরই বিরোধীরা পুলওয়ামা সন্ত্রাসী হামলার রাজনীতিকরণ এবং লোকসভা নির্বাচনে লাভের জন্য বায়ু হামলার ঘটনার সঙ্গে রাজনীতিকে যুক্ত করার অভিযোগ তুলেছে সরকারের বিরুদ্ধে। ২১ টি বিরোধী দলের নেতারা বুধবার বলেছেন যে, ভারত-পাকিস্তান সংঘাতের পিছনে সশস্ত্র বাহিনীকে তাঁরা সমর্থন করলেও খানিক সন্দেহ ছিলই। ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের এই বিষয়টির রাজনীতিকরণের অনুমোদন তাঁরা দেননি।

 "অভিনন্দন দিবস", দেশের নতুন 'নায়ক'-কে নিয়ে উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়ল টুইটার

পিটিআই সূত্রের খবর, আরএসএসের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দত্তাত্রেয় হোসাবোলে (Dattatreya Hosabole) বলছেন যে, সমগ্র দেশ উইং কমান্ডার বর্তমানের সঙ্গে। পাকিস্তান ও ভারতীয় যুদ্ধ বিমানের মধ্যে লড়াইয়ের সময় পাকিস্তানের হাতে বন্দি হন তিনি। এবং এর পরেই সারা দেশের ‘দেশপ্রেমের উত্থান' আরও তীব্র হয়ে ওঠে।

বইটির লেখক সুধাংশু মিত্তল জানান, তাঁর এই বইটিতে আরএসএস এবং এই দলের নানা ঘটনা ও প্রচেষ্টার বিষয়ে তথ্য রয়েছে। যদিও এই সংগঠনটি প্রায়ই নানা সমালোচনার মুখোমুখি হয়েছে যদিও, তাঁর দাবি এটি আসলে বৃহত্তম ‘জাতি গঠনকারী সত্ত্বা'।