‘জাতীয়তাবাদ’ শব্দটি এড়িয়ে চলুন, এটা নাৎসিবাদকে মনে করায়: মোহন ভাগবত

মোহন ভাগবত বলেন, ‘‘জাতি বলুন চলবে, জাতীয় বলুন চলবে, জাতীয়তা বলুন চলবে। জাতীয়তাবাদ বলবেন না। জাতীয়তাবাদ মানে দাঁড়িয়ে যায় হিটলার, নাৎসিবাদ।’’

‘জাতীয়তাবাদ’ শব্দটি এড়িয়ে চলুন, এটা নাৎসিবাদকে মনে করায়: মোহন ভাগবত

৬৯ বছরের প্রবীণ নেতা বলেন, ‘‘দেশে অশান্তি চলছে মৌলবাদের কারণে। (ফাইল)

হাইলাইটস

  • আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবত ‘জাতীয়তাবাদ’ শব্দটি ব্যবহার না করার আর্জি জানান
  • আরএসএস কর্মীদের তিনি বলেন, এই শব্দটি থেকে নাৎসিবাদের কথা মনে পড়ে যায়
  • তিন‌ি জানান, ‘‘ভারতকে বিশ্বনেতা হতে হবে’’
রাঁচি, ঝাড়খণ্ড:

‘জাতীয়তাবাদ' শব্দটি ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দিলেন আরএসএস (RSS) প্রধান মোহন ভাগবত (Mohan Bhagwat)। তাঁর মতে, এই শব্দটি থেকে মানুষের মনে চলে আসছে অ্যাডলফ হিটলারের নাৎসিবাদের কথা। রাঁচিতে আরএসএস-এর এক অনুষ্ঠানে মোরাবাদির মুখার্জি বিশ্ববিদ্যালয়ে একথা বলেন তিনি। ব্রিটেনের এক আরএসএস কর্মীর সঙ্গে কথা বলার প্রসঙ্গ উত্থাপন করে মোহন ভাগবত বলেন, ‘‘জাতীয়তাবাদ শব্দটা ব্যবহার করবেন না। জাতি বলুন চলবে, জাতীয় বলুন চলবে, জাতীয়তা বলুন চলবে। জাতীয়তাবাদ বলবেন না। জাতীয়তাবাদ মানে দাঁড়িয়ে যায় হিটলার, নাৎসিবাদ।''

৬৯ বছরের প্রবীণ নেতা আরও বলেন, ‘‘দেশে অশান্তি চলছে মৌলবাদের কারণে। ভারতের নীতি হল না নিজে দাস হব, না কাউকে দাস বানাব। সকলকে এক করার ক্ষমতা রয়েছে ভারতের। ভারতীয় সংস্কৃতি হল হিন্দু সংস্কৃতি। বৈচিত্র সত্ত্বেও ভারতের প্রতিটি নাগরিক অন্যের সঙ্গে যুক্ত।''

তিনি আরও বলেন, ভারতকে বিশ্বনেতা বানানোর পথে লক্ষ্যে আরও প্রসারিত হচ্ছে আরএসএস।

তিনি বলেন, দেশ এগোলে সঙ্ঘও হিন্দুত্বের অ্যাজেন্ডা নিয়ে এগোবে। এর ফলে দেশের মধ্যে সংযোগ বাড়বে। তিন‌ি জানান, ‘‘ভারতকে বিশ্বনেতা হতে হবে। ভারত দেশ হিসেবে অগ্রসর হলে তা সারা পৃথিবীকে সাহায্য করবে।''

Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com