This Article is From Feb 06, 2020

তামিল সুপারস্টার বিজয়কে জেরা, ফিল্ম-লগ্নিকারীর কাছ থেকে উদ্ধার ৬৫ কোটি

তামিল ফিল্ম জগতের এক শক্তিশালী লগ্নিকারীর কাছ থেকে তল্লাশি চালিয়ে ৬৫ কোটি টাকা উদ্ধার করলেন আয়কর দফতরের আধিকারিকরা।

তামিল সুপারস্টার বিজয়কে জেরা, ফিল্ম-লগ্নিকারীর কাছ থেকে উদ্ধার ৬৫ কোটি

বুধবার জেরা করা হয় তামিল সুপারস্টার বিজয়কে।

হাইলাইটস

  • লগ্নিকারীর কাছ থেকে উদ্ধার ৬৫ কোটি টাকা
  • তল্লাশি চালায় আয়কর আধিকারিকরা
  • বুধবার তাঁরা জেরা করেন বিজয়কে
চেন্নাই:

তামিল ফিল্ম জগতের এক শক্তিশালী লগ্নিকারীর কাছ থেকে তল্লাশি চালিয়ে ৬৫ কোটি টাকা উদ্ধার করলেন আয়কর দফতরের (Income Tax Officers) আধিকারিকরা। সূত্রানুসারে, বুধবার তাঁরা জেরা করেছিলেন তামিল সুপারস্টার বিজয়কে (Actor Vijay)। আয়কর আধিকারিকরা মাদুরাইয়ে এজিএস সিনেমার সম্পত্তি ও চলচ্চিত্র-লগ্নিকারী আনবু চেলিয়ানের বাড়ি তল্লাশি চালান। জেরা করা হয় বিজয়কে। তল্লাশি চালানো হয় বিজয়ের চেন্নাইয়ের বাড়িও। এক আধিকারিক জানাচ্ছেন, গণনা এখনও চলছে। এবং মোট কত টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত হল তা পরে জানানো হবে।

আয়কর দফতরের দাবি, বিজয় ও আনবুর মধ্যে বেহিসাবি আদানপ্রদানের বিষয়টি সামনে আসার পরে অভিনেতা বিজয়ের চেন্নাইয়ের বাড়িতে তল্লাশি চালানো হয়। বিজয়কে বৃহস্পতিববারও জেরা করা হয়েছে। এজিএস সিনেমা বিজয় অভিনীত ছবি ‘বিগিল'-এর প্রযোজনা করেছিল।

কর ফাঁকির মামলায় আয়কর দফতরের জেরার মুখে তামিল সুপারস্টার বিজয় 

বর্ষীয়ান চিত্র পরিচালক এসএ চন্দ্রশেখরের পুত্র বিজয় রাজনীতিতে আসতে পারেন বলেও শোনা গিয়েছে।

২০১৭ সালের অক্টোবরে বিজয় অভিনীত ‘মার্শাল' ছবিটির বিরোধিতা করেছিল বিজেপি। তাদের দাবি ছিল, ছবির সংলাপে জিএসটি ও নোটবন্দির বিরুদ্ধে কটাক্ষ রয়েছে। সমালোচনা করে হয়েছিল ডিজিটাল ইন্ডিয়া কর্মসূচিরও। বিজেপি চেয়েছিল ছবি থেকে সেই সব সংলাপ বাদ দেওয়া হোক। কেননা ওতে অসত্য পরিবেশিত হয়েছে সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলির সম্পর্কে।

জিএসটি লাগু হওয়ার পর তামিলনাডুতে প্রায় ১,০০০ সিনেমা হল বন্ধ রাখা হয় বহু দিন। তাদের প্রতিবাদ ছিল জিএসটির সঙ্গে স্থানীয় করও চাপিয়ে দেওয়ার বিরুদ্ধে।