শুধু একটা বোতল উত্তরাধিকার সূত্রে রিয়া সুশান্তের থেকে পেয়েছেন, দাবি অভিনেত্রীর

সেই নোটবইয়ে জীবনের সাতটি প্রাপ্তির নাম উল্লেখ করেছেন সুশান্ত সিং রাজপুত

সুশান্তের থেকে নেওয়া একটা থার্মোফ্লাস্ক রিয়ার কাছে রয়েছে। এমনটাই পোস্ট করেছেন তিনি।

মুম্বই:

একমাত্র জিনিস, যা সুশান্তের থেকে তিনি পেয়েছেন। শনিবার একটা বোতলের ছবি পোস্ট করে এই দাবি করেছেন অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী। শুক্রবার প্রায় নয় ঘণ্টা আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিহীন মামলায় তাঁকে জেরা করেছে ইডি। তারপরের দিন রিয়ার এই পোস্ট তাৎপর্যপূর্ণ। তাঁর পোস্ট করা সেই ফ্লাস্কের ছবিতে চিচোঁড়ে খোদাই করা। এই বোতলের সঙ্গেই সুশান্তের হাতে লেখা একটা নোটবইয়ের পাতা সোশাল মাধ্যমে পোস্ট করেছেন রিয়া। সেই নোটবইয়ে জীবনের সাতটি প্রাপ্তির নাম উল্লেখ করেছেন সুশান্ত সিং রাজপুত।

সেই নোটে লেখা, "আমি কৃতজ্ঞ জীবনের জন্য। লিলুর জন্য, বেবুর জন্য, স্যারের জন্য, মামের জন্য আর হাজার জন্য।" এই নোট প্রসঙ্গে লিখতে গিয়ে রিয়া লিখেছেন, "এটা সুশান্তের লেখা। লিলু আমার ভাই শৌভিক, বেবু আমি। স্যার আমার বাবা আর মাম আমার মা এবং ফাজ ওর পোষ্য।"

pd8itieg

রিয়া চক্রবর্তী বলেছেন, এই নোট সুশান্তের লেখা।

এদিকে, একরকম চাপে পড়েই এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরটের কার্যালয়ে উপস্থিত হয়েছিলেন অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী।জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হতে আরও সময় দেওয়া যাবে না, শুক্রবার সাতসকালেই রিয়া চক্রবর্তীর আবেদন নাকচ করে দেয় ইডি। যদি রিয়া তলবের পরেও সাড়া না দেন তবে ফের তাঁকে সমন পাঠানো হয়, জানানো হয় একথাও। এরপরেই অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্ত মামলায় সেদিন এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটে হাজিরা দিলেন দিয়েছিলেন রিয়া। এর আগে ইডির  জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হওয়ার জন্য আরও কিছুটা সময় চেয়েছিলেন তিনি। তাঁর আবেদনে বলা হয়, বর্তমানে সুপ্রিম কোর্টের করা তাঁর মামলার শুনানির কারণে ব্যস্ত রয়েছেন অভিনেত্রী, তাই ইডিতে হাজিরা দেওয়ার সময়সীমা বাড়ানো হোক। রিয়া চক্রবর্তীর আইনজীবী সতীশ মানেশিন্দে বলেন, "সুপ্রিম কোর্টের শুনানির কারণে তিনি আপাতত তাঁর বয়ান রেকর্ডের দিন স্থগিতের জন্য অনুরোধ করেছেন।" সূত্রের খবর, রিয়ার আইনজীবীর এই আবেদন খারিজ করে দিয়েছে ইডি।

রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের পরিবার একটি এফআইআর দায়ের করে। সেখানে অভিযোগ করা হয় যে, সুশান্তের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে প্রচুর টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন রিয়া। তাছাড়া অভিনেতাকে মানসিকভাবে নির্যাতন করতেন তিনি, এমন অভিযোগও করেছেন সুশান্তের বাবা। গত ১৪ জুন ওই বলিউড অভিনেতাকে তাঁর বাড়িতে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। প্রাথমিক তদন্তের পর মুম্বই পুলিশ জানায় যে, সুশান্ত আত্মহত্যা করেছেন।

সুশান্তের বাবা কে কে সিং তাঁর ছেলের অ্যাকাউন্ট থেকে ১৫ কোটি টাকা তছরুপের অভিযোগ তুললে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে আর্থিক দুর্নীতির মামলা করে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। বৃহস্পতিবার মুম্বইয়ে ইডি-র দফতরে রিয়ার চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন ইডি আধিকারিকরা। গত সোমবার তাঁরা কথা বলেছিলেন সুশান্তের চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট সন্দীপ শ্রীধরের সঙ্গেও। পাশাপাশি রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে করা ১৫ কোটি টাকার "সন্দেহজনক লেনদেন"-এর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাঁকে আজই (শুক্রবার) হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দেয় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট।

এদিকে সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু তদন্তের ভার হাতে নিয়েছে সিবিআই। অভিনেতার অস্বাভাবিক মৃত্যুতে নতুন করে এফআইআর দায়ের করে তদন্ত শুরু করল কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থাটি। এফআইআরে সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচনা, অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র, চুরি, প্রতারণা, জোর করে আটকে রাখা ও ভয় দেখানোর মতো নানা অভিযোগ আনা হয়েছে। রিয়া ছাড়াও অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে আরও চার জনের নামে। তাঁরা হলেন, রিয়ার ভাই শৌভিক চক্রবর্তী, শ্রুতি মোদী, স্যামুয়েল মিরান্দা এবং ইন্দ্রজিৎ চক্রবর্তী।