অবশেষে 'খাঁটি সাহেব' প্রফেসর শঙ্কু, সৌজন্যে সত্যজিৎ জন্মশতবার্ষিকী

তিনি থাকলে ২ মে অর্থাৎ আজ তাঁর জন্মশতবার্ষিকীতে অনুরাগীদের তরফ থেকে প্রশ্নবাণ ধেয়ে আসতেই পারত, প্রফেসর শঙ্কু কোথায় লুকিয়ে ফেললেন নিজেকে?

অবশেষে 'খাঁটি সাহেব' প্রফেসর শঙ্কু, সৌজন্যে সত্যজিৎ জন্মশতবার্ষিকী

স্রষ্টার জন্মদিনে সৃষ্টির নবরূপে আত্মপ্রকাশ

কলকাতা:

তিনি থাকলে ২ মে অর্থাৎ আজ তাঁর জন্মশতবার্ষিকীতে (Ray''s 99th birthday) অনুরাগীদের তরফ থেকে প্রশ্নবাণ ধেয়ে আসতেই পারত, প্রফেসর শঙ্কু (Prof Shonku) কোথায় লুকিয়ে ফেললেন নিজেকে? স্রষ্টা নেই। তাই সেই উত্তরের দায় বোধহয় সৃষ্টির নিজের। সেই তাগিদেই শঙ্কুর শেষ অভিযানের যেটুকু সত্যজিৎ রায় লিখে যেতে পেরেছিলেন তারই ইংরেজি সংস্করণ উত্তর হতে ফিরে এল সত্যজিৎ এবং শঙ্কুপ্রেমীদের কাছে। জন্মদিনে "ফাইনাল অ্যাডভেঞ্চারস অফ প্রফেসর শঙ্কু" (The Final Adventures of Professor Shonku) নাম নিয়ে ই-বুক হিসাবে।

জন্ম শতবর্ষে ১০০ স্কুলের সত্যজিৎ স্মরণ ‘ইস্কুলে বায়োস্কোপ'-এ

অনুবাদ ইংরেজিতে এই প্রথম অনুদিত হয়ে আক্ষরিক অর্থেই যেন খাঁটি সাহেব হয়ে উঠলেন প্রফেসর। শঙ্কু অ্যাডভেঞ্চারের মূল সংগ্রহ থেকে এই প্রথম ইংরেজিতে তাঁকে কাগজে-কলমে সাহেব বানালেন ইন্দ্রাণী মজুমদার। শেষ খণ্ডের গল্পও আগেরগুলোর মতোই মজাদার, কল্পবিজ্ঞানের রসে জারিত এবং রহস্য-রোমাঞ্চে ভরপুর। যা আগের মতোই ছয় থেকে ছিয়াত্তরকে আকৃষ্ট করবে।

prd7nsro

প্রকাশকদের আরও দাবি, ইংরেজিতে অনুদিত হওয়ায় প্রফেসর শঙ্কু এবার পাল্লা দেবেন ইংরেজির অন্যান্য সেরা কল্পবিজ্ঞান "Diary of a Space Traveller and Other Stories", "The Unicorn Expedition and Other Stories" এবং "The Mystery of Munroe Island and Other Stories"-র সঙ্গে। শঙ্কুর অনুবাদ নিয়ে ইন্দ্রাণী উবাচ, বড় হয়েছি শঙ্কু পড়তে পড়তে। সেই গল্পের অনুবাদক হয়ে ভীষণ ভালো লাগছে। যদিও প্রফেসরের শেষ খণ্ড তাঁর পড়া ছিল না। পড়তে পড়তে তাই যতটা রোমাঞ্চিত হয়েছেন লিখতে বসেও ততটাই। ন'টি অ্যাডভেঞ্চার গল্প নিয়ে চতুর্থ তথা শেষ খণ্ডের ইংরেজি অনুবাদ করলেন তিনি। এই খণ্ডের সূত্রপাতও প্রফেসরের গিরিডির বাড়ি থেকে। শেষ হয়েছে লন্ডনের বার্লিনে।

‘লকডাউনেও বাবা ব্যস্ত থাকতেন ইনডোর গেমস, গল্প লেখায়': ললিতা রায়

পেঙ্গুইন ইন্ডিয়ার প্রকাশক (শিশু বিভাগ) সোহিনী মিত্রের মতে, "ইংরেজিতে অনুবাদ হওয়ায় প্রফেসর শঙ্কু এবার সত্যিই সর্বজনীন। দেশের বেড়া ডিঙিয়ে এবার তিনি অনায়াসে বিচরণ করবেন বিদেশের মাটিতে। এই প্রজন্মের কাছে। আরও একবার আন্তর্জাতিক হল সত্যজিৎ রায়ের অমর সৃষ্টি।"



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)