“বড় দরজা খুলে গিয়েছে”… রাফায়েল নিয়ে বললেন রাহুল গান্ধি

রাফাল চুক্তি নিয়ে সরকারকে ক্লিনচিট দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট, সেই পুনর্বিবেচনার আর্জি খারিজ করে দেয় শীর্ষ আদালত

“বড় দরজা খুলে গিয়েছে”… রাফায়েল নিয়ে বললেন রাহুল গান্ধি

বিচারপতি জোসেফের পর্যবেক্ষণ তুলে ধরে ট্যুইট করেন রাহুল গান্ধি

নয়াদিল্লি:

রাফাল (Rafale case) নিয়ে “চৌকিদার চোর হ্যায়”, বলার জন্য ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন রাহুল গান্ধি (Rahul Gandhi), তারপরেই অবমাননার অভিযোগ থেকে মুক্ত হন তিনি, এদিন শীর্ষ আদালতের রায়ের পরেই তিনি বলেন, রাফাল মামলা নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের রায় “তদন্তের জন্য অনেক বড় দরজা খুলে দিয়েছে”, ফ্রান্স থেকে ৩৬টি যুদ্ধবিমান কেনা নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছে তারা। তদন্তের দাবি সুপ্রিম কোর্ট খারিজ করে দেওয়ার পরেই, বিজেপির আক্রমণের মুখে, “রাফাল দুর্নীতি” (Rafale scam) নিয়ে সর্বদলীয় সংসদীয় তদন্তের দাবি করেন রাহুল গান্ধি। রাফাল চুক্তি নিয়ে সরকারকে ক্লিনচিট দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট, সেই পুনর্বিবেচনার আর্জি খারিজ করে দেয় শীর্ষ আদালত। পাশাপাশি আদালত জানায়, “আমরা মনে কির কোনও এফআইআর করার প্রয়োজন নেই, অথবা আবারও তদন্তের কোনও প্রয়োজন নেই”।

রাফাল প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ নিয়ে প্রশ্ন তোলেন সরকারি সমঝোতাকারীরাইঃ রিপোর্ট

বিদায়ী প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ, বিচারপতি এসকে কৌল এবং বিচারপতি কুরিয়েন জোসেফের বেঞ্চ ১৪ ডিসেম্বরের রায় বহাল রাখে, যে, জেট চুক্তির যে পদ্ধতিতে করা হয়েছে তা নিয়ে সন্দেহের কোনও অবকাশ নেই। বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে রাফাল চুক্তিতে ৫৯,০০০ কোটি টাকার দু্র্নীতির অভিযোগ তুলেছে কংগ্রেস।

রাহুল গান্ধি ট্যুইটে লেখেন, “রাফাল কেলেঙ্কারিতে তদন্তের বড় দরজা খুলে দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি জোসেফ। পুরোপুরিভাবে এখন অবশ্যই প্রয়োজন তদন্তের। এই দুর্নীতির প্রমাণে অবশ্যই একটি যৌথ সংসদীয় কমিটি গঠন করতে হবে”। বিচারপতি জোসেফের পর্যবেক্ষণ উল্লেখ করে ট্যুইট করেন তিনি। 

রাফাল থেকে প্রধানমন্ত্রী রেহাই পাবেন না, সিবিআই মামলার রায় উল্লেখ করে মন্তব্য রাহুলের

প্রধান বিচারপতি এবং বিচারপতি এসকে কৌল বলেন, রাফায়েল চুক্তিতে সিবিআইকে এফআইআর দায়ের করার নির্দেশ দেওয়ার কোনও প্রয়োজন নেই, যা “শুধুমাত্র মামলাকারীদের সন্দেহের জন্য, রাফায়েল চুক্তির মূল্য নির্ধারণ করা আদালতের কাজ নয়”।

আলাদা একটি রায়ে বিচারপতি জোসেফ, প্রধানবিচারপতি এবং বিচারপতি কৌলের সঙ্গে একমত হয়ে বলেন, “মামলাকারীরা এফআইআর দায়ের করার জন্য সিবিআইয়ের কাছে যেতে পারেন, যা দুর্নীতি দমন আইনে সরকারের থেকে পেয়েছে সিবিআই”।

কংগ্রেসের দাবি, এটি একটি নিশ্চিতকরণ, যে, সিবিআই তদন্তের দরজা খোলা রেখেছে আদালত এবং বলে, বিজেপি “মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছিল”, যে তারা সমস্ত ভুল কাজ থেকে মুক্তি পেয়েছে। কংগ্রেস মুখপাত্র রণদীপ সিং সুরজেওয়ালা বলেন, “বিজেপির উদযাপন বন্ধ করা উচিত, এবং যেহেতু রাফাল চুক্তি নিয়ে আদালত দরজা খুলে দিয়েছে, সেইজন্য তাদের তদন্তে মনযোগ দেওয়া উচিত”।

সম্পূর্ণ মিথ্যা বলছেন নির্মলা, হ্যাল নিয়ে প্রতিরক্ষামন্ত্রীর বিবৃতি প্রসঙ্গে দাবি রাহুলের

লোকসভা নির্বাচনে দলের পরাজয়ের পর, কংগ্রেস সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দেন রাহুল গান্ধি, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে তোলা “চৌকিদার চোর হ্যায়” স্লোগান তুললেও, ভোটবাক্সে তার কোনও প্রভাব পড়েনি। প্রচারে অভিযোগ তোলা হয়, অনিল আম্বানির নতুন সংস্থাকে অফসেট সংস্থার বরাত পাইয়ে দিতে, বেশী দামে চুক্তি সাক্ষর করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সমস্ত অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছে সরকার।

আজকের গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি দেখতে ক্লিক করুন: 

কেন্দ্রীয়মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ বলেন, এদিনের রায় রাহুল গান্ধির তৃতীয় পরাজয়, এছাড়াও তার আগে সুপ্রিম কোর্টের প্রথম রায় এবং ভোটে পরাজয়।

হাইলাইটস

  • প্রধানমন্ত্রীকে “চৌকিদার চোর হ্যায়” বলে তোপ দেগেছিলেন রাহুল গান্ধি
  • ক্ষমা চাওয়ার পর, অবমাননার অভিযোগ থেকে মুক্ত হন তিনি
  • তিনি বলেন, “তদন্তে বড় দরজা খুলে দিয়েছে রাফাল মামলা”
More News