রাফাল চুক্তিঃ পারিকরের মন্তব্যকে হাতিয়ার করে কংগ্রেসকে আক্রমণ করলেন নির্মলা

২০১৫ সালের ২৪ নভেম্বর তারিখের ওই নোটটি তৎকালীন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী মনোহর পারিকরকে পাঠানো হয়েছিল। তাতে লেখা ছিল এ ব্যাপারে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক যে  পদক্ষেপ করছে তার উল্টো পথে হাঁটছে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর।

রাফাল চুক্তিঃ পারিকরের মন্তব্যকে হাতিয়ার করে কংগ্রেসকে আক্রমণ করলেন নির্মলা

পারিকর বলেছিলেন শান্ত থাকুন, চিন্তিত হওয়ার কিছু নেই।

হাইলাইটস

  • পারিকরের মন্তব্যকে হাতিয়ার করে কংগ্রেসকে আক্রমণ করলেন নির্মলা
  • পারিকর বলেছিলেন শান্ত থাকুন, চিন্তিত হওয়ার কিছু নেই
  • প্রতিরক্ষা সচিবের নোটের উপর কয়েকটি লাইন নিজের হাতে লেখেন মনোহর
নিউ দিল্লি:

রাফাল যুদ্ধ বিমান কেনা সম্পর্কিত চুক্তি নিয়ে নতুন করে জলঘোলা হতে শুরু করেছে। দ্য হিন্দু পত্রিকায় প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী মনোহর পারিকরকে চিঠি লিখে মন্ত্রকের সচিব বলেন এই যুদ্ধ বিমান কেনা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর যে হস্তক্ষেপ করছে তা কাম্য নয়।   

২০১৫ সালের ২৪ নভেম্বর তারিখের ওই নোটটি তৎকালীন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী মনোহর পারিকরকে পাঠানো হয়েছিল। তাতে লেখা ছিল এ ব্যাপারে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক যে  পদক্ষেপ করছে তার উল্টো পথে হাঁটছে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর। প্রতিরক্ষা সচিব জি মোহনের লেখা সেই নোটে  বলা হয়েছে  যুদ্ধ বিমান  কেনা  সংক্রান্ত আলোচনা  থেকে বাইরে  থাকা উচিত  প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের।

1e9from

মনোহর পারিকরের প্রতিবেদন।

এই প্রতিবেদনকে কেন্দ্র করেই গোলমাল দানা বেঁধেছে। এ নিয়ে সরকারকে নতুন করে আক্রমণ করেছে কংগ্রেস। পাশাপাশি কংগ্রেসকে আক্রমণ করেছেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী  নির্মলা সীতারমণ। এই প্রতিবেদনকে দায়িত্ব জ্ঞান হীন অ্যাখা দেন তিনি।

তাঁর আরও অভিযোগ এই নোট নিয়ে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী  কী প্রতিক্রিয়া দিয়েছিলেন তা ওই  প্রতিবেদনে তুলে  ধরা  হয়নি। পারিকর বলেছিলেন শান্ত থাকুন, চিন্তিত হওয়ার কিছু নেই।

 

প্রতিরক্ষা সচিবের নোটের উপর কয়েকটি লাইন নিজের  হাতে লেখেন মনোহর। তাতে তৎকালীন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী তথা বর্তমানে গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী লেখেন দু'দেশের মধ্যে  হওয়া  সম্মেলনে আলোচনার ভিত্তিতেই প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর রাফাল নিয়ে খোঁজ খবর করছে। পারিকর বলেছিলেন শান্ত থাকুন, চিন্তিত হওয়ার কিছু নেই। এ নিয়ে মাত্রাতিরক্ত প্রতিক্রিয়া  দেওয়া হচ্ছে।   

প্রতিরক্ষা মন্ত্রী মনে  করেন সত্য তুলে ধরার অভিপ্রায় থাকলে সংবাদপত্রের তরফে তৎকালীন প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর নোটের কথাও লিখত।