দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় একজন মেকানিক ছিলেন রানি এলিজাবেথ; ডোনাল্ড ট্রাম্প

বাকিংহাম প্যালেসে মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প উল্লেখ করলেন দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় তাঁর দেখা ব্রিটিশ রাজ পরিবারের দৃঢ়তার কথা।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় একজন মেকানিক ছিলেন রানি এলিজাবেথ; ডোনাল্ড ট্রাম্প

এলিজাবেথ ট্রাক মেকানিক ও চালক হিসেবে যোগ দেন দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ চলাকালীন।


হাইলাইটস

  1. এলিজাবেথ ট্রাক মেকানিক ও চালক হিসেবে যোগ দেন দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে।
  2. ১৯৪৫-এর ফেব্রুয়ারিতে যুদ্ধ তখনও চলছে, এলিজাবেথ ১৮-এ পা দেন।
  3. মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প উল্লেখ করলেন সেই ঘটনার কথা।

সোমবার বাকিংহাম প্যালেসে (Buckingham Palace) এক রাজকীয় ব্যাঙ্কোয়েটের সময় মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প  (Donald Trump) উল্লেখ করলেন ৭৫তম ডি-ডে এবং দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় তাঁর দেখা ব্রিটিশ রাজ পরিবারের দৃঢ়তার কথা। তিনি বলেন, ‘‘১৯৪৫-এর এপ্রিলে খবরের কাগজে ছবি বেরিয়েছিল, মহারানি আর্মির মহিলা শাখা পরিদর্শনে গিয়েছেন। তিনি লক্ষ করছেন এক তরুণী একটি মিলিটারি ট্রাক ইঞ্জিন সারাচ্ছেন। সেই তরুণ মেকানিকই ছিলেন ভবিষ্যতের রানি— একজন মহীয়সী, মহীয়সী রমণী।'' ওয়াশিংটন পোস্টের গ্লেন কেসলার জানাচ্ছেন, অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ট্রাম্প এসব ক্ষেত্রে সঠিক দাবি করতে পারেন না। কিন্তু এক্ষেত্রে তিনি একেবারে ঠিক বলেছেন।  ১৯৩৯ সালে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হলে রাজ পরিবারের ঘনিষ্ঠরা চেয়েছিলেন, রানি ও তাঁর দুই মেয়ে এলিজাবেথ ও মার্গারেট, যাঁদের বয়স তখন ১৩ ও ৯, তাঁরা সবাই দেশ ছেড়ে কানাডায় আশ্রয় নিন। কিন্তু রানি দেশ ছাড়তে রাজি হননি। যুদ্ধের সময় তিনি বাকিংহাম প্যালেসে ছিলেন। সেখানে নাগাড়ে বোমা পড়া শুরু হয়। রাজপ্রাসাদ অঞ্চলের অনেক জায়গাই ধূলিসাৎ হয়। শেষ পর্যন্ত রানিকে উইন্ডসর প্রাসাদে নিয়ে যাওয়া হয়। 

সমলিঙ্গে স্বীকৃতির ৫০-এ পা, উদযাপনে গুগল ডুডলস

১৯৪৫-এর ফেব্রুয়ারিতে যুদ্ধ তখনও চলছে, এলিজাবেথ ১৮-এ পা দেন। রয়্যাল কালেকশন ট্রাস্ট সূত্রে জানা যাচ্ছে, সেই সময় এলিজাবেথ ট্রাক মেকানিক ও চালক হিসেবে প্রশিক্ষণ নেন Auxiliary Territorial Service-এ যোগ দিয়ে।

এবং ট্রাম্প যা বলছেন, তা একদমই ঠিক। রানি সেই সময় মেয়েকে দেখতে গিয়েছিলেন। সঙ্গে ছিলেন এলিজাবেথের বাবা ষষ্ঠ জর্জ।

ওই বছরের শেষ দিকে যুদ্ধ শেষ হয়। এলিজাবেথ জুনিয়র কমান্ডার পদে উন্নীত হন। এখনও পর্যন্ত তিনিই রাজ পরিবারের একমাত্র মহিলা সদস্য যিনি সেনায় যোগ দিয়েছিলেন।

বিবিসি সূত্রে জানা যাচ্ছে, তিনিই দেশের একমাত্র জীবিত প্রতিনিধি যিনি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে অংশ নিয়েছিলেন।

 নিখোঁজ বায়ুসেনা বিমান এএন-৩২-র বিপদ-সংকেত জ্ঞাপক যন্ত্র ১৪ বছরের পুরনো

নেটফ্লিক্সের ‘দ্য ক্রাউন' শোয়ে এলিজাবেথ ও ফিলিপ মাউন্টব্যাটেনের বাগদান দিয়ে শুরু হয়েছিল। তাঁদের বিয়ে হয় ১৯৪৭-এ। কাজেই যাঁরা ভাবছেন, কেন ওই শোয়ে এটা কেন দেখানো হয়নি, তাঁরা বুঝতে পারবেন।

প্রথম এপিসোডে অবশ্য দেখানো হয়েছিল এলিজাবেথ ও ফিলিপ একসঙ্গে গাড়ি করে কেনিয়া যাচ্ছিলেন। তখন গাড়ি খারাপ হয়ে গেলে এলিজাবেথ গাড়ি থেকে নেমে এসে বলে দেন গাড়িতে কোন সমস্যা হয়েছে, ও সেটা কীভাবে ঠিক করতে হবে।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)


পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................