সমস্যাদীর্ণ পিএমসি ব্যাঙ্কে জমা ৯০ লক্ষ টাকা, উৎকণ্ঠায় মৃত্যু ব্যক্তির

মৃত সঞ্জয় গুলাটি ওই PMC Bank-এ তাঁর জমা অর্থ নিয়ে বেশ উৎকণ্ঠায় ভুগছিলেন। তিনি ওই মিছিলে যোগ দেন। পরে বাড়ি ফিরে নৈশভোজের টেবিলে তিনি লুটিয়ে পড়েন।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গ্রাহকরা একটি মোমবাতি মিছিলের পরিকল্পনা করেছেন।

মুম্বই:

মুম্বইয়ের (Mumbai) সমস্যাদীর্ণ পাঞ্জাব মহারাষ্ট্র কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্কে (PMC Bank) ৯০ লক্ষ টাকা জমা রাখা এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে সোমবার। তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন। তার আগে মুম্বই আদালতের বাইরে ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের এক প্রতিবাদ মিছিলে অংশ নিয়েছিলেন তিনি। মৃতের নাম সঞ্জয় গুলাটি। বয়স হয়েছিল ৫১। সোমবার সকালে তিনি ওই মিছিলে অংশ নেন। প্রতিবাদীদের অন্যতম মানালি নার্কার জানিয়েছেন, মৃত সঞ্জয় গুলাটি ওই ব্যাঙ্কে তাঁর জমা অর্থ নিয়ে বেশ উৎকণ্ঠায় ভুগছিলেন। ওশিওয়ারার বাসিন্দা সঞ্জয় তাঁর ৮০ বছরের বাবার সঙ্গে ওই মিছিলে যোগ দেন। পরে বাড়ি ফিরে নৈশভোজের টেবিলে তিনি লুটিয়ে পড়েন। সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে ওশিওয়ারা থানার এক বর্ষীয়ান আধিকারিক এই কথা জানিয়েছেন।

শ্রীনগরে বিক্ষোভ দেখাতে গিয়ে আটক ফারুক আবদুল্লার মেয়ে এবং বোন

সঞ্জয় ছিলেন জেট এয়ারওয়েজের ইঞ্জিনিয়ার। পরে ওই বিমান সংস্থা বন্ধ হয়ে গেলে তাঁর চাকরি চলে যায়। তাঁর স্ত্রী ও দুই সন্তান রয়েছে। এর মধ্যে এক সন্তান বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন।

সঞ্জয়ের মৃত্যুর পর তাঁর বন্ধু ও পরিবারের সদস্যরা বাড়ির বাইরে জমায়েত হন। NDTV-কে তাঁর এক প্রতিবেশী জানান, ‘‘আমাদের যে কারও সঙ্গে এমনটা হতে পারে। আমার পরিবারের ছ'জনের ওই ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্ট রয়েছে।''

আর এক মহিলা, যাঁর পরিবারের তিনজনের অ্যাকাউন্ট রয়েছে ওই ব্যাঙ্কে, তিনি প্রশ্ন তোলেন, ‘‘কবে সরকার ও আরবিআই জেগে উঠবে?''

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গ্রাহকরা একটি মোমবাতি মিছিলের পরিকল্পনা করেছেন।

এই কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্কে সমস্যার মূলে রয়েছে এইচডিআইএল ৪,৩৫৫ কোটি টাকা ঋণ নিয়ে শোধ না করার ফলে। গত মাস থেকে আরবিআইয়ের নির্দেশের অধীনে এসেছে ওই ব্যাঙ্ক। এর ফলে আমানতকারীরা কেউ তাঁদের টাকা তুলতে সমস্যায় পড়ছেন। সোমবার টাকা তোলার পরিমাণ আগের ২৫,০০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৪০,০০০ টাকা করা হয়েছে।

নির্বাচনের প্রচারে এসে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিশ জানিয়েছেন, তিনি কেন্দ্রকে অনুরোধ করবেন গ্রাহকরা যাতে তাঁদের জমাকৃত অর্থ ফেরত পান সে ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য। তিনি জানান, তিনি ব্যক্তিগত ভাবে বিষয়টি দেখবেন।

এই ব্যাঙ্কে গ্রাহকদের মোট ১১,০০০ কোটি টাকা জমা রয়েছে। তাঁরা টাকা ফেরতের দাবি তুলে মুম্বই জুড়ে প্রতিবাদ করে চলেছেন। গত সপ্তাহে অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের সাংবাদিক সম্মেলনের সামনে বিক্ষোভ দেখান। পরে তাঁরা অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেন। তিনি রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নরকে বিষয়টি দেখতে বলেন।

ব্যাঙ্কের প্রাক্তন চেয়ারম্যান ও প্রাক্তন ম্যানেজিং ডিরেক্টরকে গ্রেফতার করা হয়েছে সাম্প্রতিক ব্যাঙ্ক কারচুপিতে জড়িত থাকার অভিযোগে।

এইচডিআইএল-এর চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর রাকেশ ওয়াধান ও তাঁর ছেলে সরং ওয়াধানের নাম রয়েছে পুলিশের অভিযোগে। ইডি মুম্বইয়ের বিভিন্ন তল্লাশি চালিয়েছে।

দেখুন ভিডিও

হাইলাইটস

  • মৃত সঞ্জয় গুলাটি ওই ব্যাঙ্কে তাঁর জমা অর্থ নিয়ে বেশ উৎকণ্ঠায় ভুগছিলেন
  • তাঁর ৮০ বছরের বাবার সঙ্গে প্রতিবাদ মিছিলে যোগ দেন
  • বাড়ি ফিরে নৈশভোজের টেবিলে তিনি লুটিয়ে পড়েন
More News