৮ নভেম্বর Kartarpur Corridor উদ্বোধন করবেন মোদি: হরসিমরত কৌর

ভারত-পাকিস্তান, দুই দেশের সম্পর্ক যেমনই হোক, আগামী ৮ নভেম্বর উদ্বোধন হবে কর্তারপুর করিডর। এবং উদ্বোধন করবেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

৮ নভেম্বর Kartarpur Corridor উদ্বোধন করবেন মোদি: হরসিমরত কৌর

কর্তারপুর গুরুদ্বার শিখদের অন্যতম পবিত্র তীর্থস্থান (ফাইল চিত্র)

New Delhi:

ভারত-পাকিস্তান দুই দেশের সম্পর্ক যেমনই হোক, গুরু নানকজির ৫৫০ তম জন্মদিনের আগেই আগামী ৮ নভেম্বর উদ্বোধন হবে কর্তারপুর করিডর (Kartarpur corridor)। এবং উদ্বোধন করবেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। শনিবার টুইটে এই কথা জানালেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হরসিমরত কৌর (Harsimrat Kaur Badal)। তাঁর দাবি, এই করিডর উদ্বোধন হলে ধর্মীয় আদানপ্রদান আরও সহজ হবে দু-দেশের মধ্যে। কারণ, এই করিডর দিয়ে যুক্ত হবে পা়ঞ্জাবের গুরুদাসপুর জেলার গুরুদ্বার এবং পাকিস্তানের কার্তারপুর জেলার গুরুদ্বার দুটি। এবং এই করিডর দিয়ে যাতায়াতের জন্য কোনও ভিসা লাগবে। অবাধ এই যাতায়াত যে দুই দেশের সম্পর্ককে আরও সুদৃঢ় করবে এমনটাই আশা দুই তরফের রাজনৈতিক মহলের।

টুইটে হরসিমরত আরও বলেন, অবশেষে বাস্তবায়িত হতে চলেছে দীর্ঘদিনের পরিকল্পনা। দুই দেশের শিখ ধর্মাবলম্বীরা দুই দেশের অন্যতম পবিত্র তীর্থস্থানে আসতে পারবেন অবাধ ভাবে। দর্শন করতে পারবেন গুরু নানকজির। দেখুন সেই টুইট---

প্রসঙ্গত, সমস্ত শিখ ধর্মাবলম্বীদের কাছে কার্তারপুরের এই গুরুদ্বার সবচেয়ে পবিত্রতম স্থান। কারণ, গ্রন্থ সাহেবে বলা হয়েছে এখানেই গুরু নানকজি শেষসময় কাটিয়েছেন। প্রসঙ্গত, গত মাসেই পাক রাজনৈতিক মহল থেকে জানানো হয়েছিল, আগামী ৯ নভেম্বর খুলে দেওয়া হবে কার্তারপুর করিডর। পাক বিদেশ মন্ত্রক থেকে জানানো হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান কথা দিয়েছেন নির্দিষ্ট সময়েই করিডর তৈরির কাজ শেষ হবে। খুলে দেওয়া হবে সর্বসাধারণের জন্য। তবে সেই শুভদিন কবে, এখনই নির্দিষ্ট করে কিছু বলা যাচ্ছে না।

এদিকে সংবাদসূত্রে খবর, পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরেন্দ্র সিং সমস্ত রাজনৈতিক দলকে একসঙ্গে নিয়ে পবিত্র গুরুদ্বারের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করবেন ৯ নভেম্বর। এই গুরুদ্বার ছাড়াও সুলতানপুর লোধিতেও পা রাখবেন তাঁরা। ১২ নভেম্বর ওখানেই ধর্মগুরুর ৫৫০ তম জন্মদিন সাড়ম্বরে পালিত হবে।

উল্লেখ্য, পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী আরও জানিয়েছেন, কর্তারপুর করিডর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সম্ভবত অংশ নিতে দেখা যাবে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দকেও। তবে তাঁর দল এই অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন না। তাঁরা শুধুই গুরুদ্বারে যাবেন। 

সংবাদ মাধ্যম সূত্রে খবর, ভারতের গুরুদাসপুর জেলা থেকে পাকিস্তানের করতারপুরের গুরুদ্বার দরবার সাহেব পর্যন্ত বিস্তৃত এই করিডর দিয়ে প্রতিদিন ৫০ হাজার শিখ দর্শনার্থী দুই দেশে প্রবেশের অনুমতি পাবেন।

হাইলাইটস

  • হরসিমরত কৌর বাদল জানিয়ছেন ৮ নভেম্বর কার্তারপুর করিডর উদ্বোধন করবেন মোদি
  • পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরেন্দ্র সিং সর্বদলীয় দলের নেতৃত্ব দেবেন
  • প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং-ও ঘুরে দেখবেন পুণ্যভূমি
More News