This Article is From Jun 08, 2020

সংক্রমণ পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে ১৫ অগস্টের পর স্কুল-কলেজ খোলার সম্ভাবনা: মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রক

ইতিমধ্যে টানা লকডাউন আবহে একাধিক স্কুল অনলাইন ক্লাসের ব্যবস্থা করেছিল। সরকারি তরফে তেমন অনুমোদন দেওয়া ছিল

সংক্রমণ পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে ১৫ অগস্টের পর স্কুল-কলেজ খোলার সম্ভাবনা: মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রক

দেশজুড়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো ১৬ মার্চ থেকে বন্ধ।

হাইলাইটস

  • সংক্রমণ পরিস্থিতি খতিয়ে ১৫ অগস্টের পর স্কুল-কলেজ খোলার সিদ্ধান্ত
  • সোমবার এমন দাবি করেছে মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের একটি সূত্র
  • পড়ুয়া ও শিক্ষাকর্মীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করে খুলবে প্রতিষ্ঠান
নয়াদিল্লি:

১৫ অগস্টে পর দেশব্যাপী খুলতে পারে স্কুল-কলেজ (School-College reopening)। তবে বিষয়টি পর্যালোচনা নির্ভর। সংক্রমণ (Covid-19) পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে নেওয়া হবে সিদ্ধান্ত। সোমবার এমন কথা জানিয়েছে মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রক (HRD Ministry)। ১৬ মার্চ থেকে দেশে করোনা প্রকোপ বাড়ায় বন্ধ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো। থমকে একাধিক পরীক্ষার সূচি। কবে সব স্বাভাবিক হবে, কবে পরীক্ষা আয়োজন সম্ভব হবে, এই প্রশ্নের উত্তর নেই মন্ত্রকের কাছেও। তবে মন্ত্রক সূত্রে খবর; স্বাস্থ্য মন্ত্রকের অনুমোদন পেলেই এবিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। জানা গিয়েছে, যবেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা হোক, পড়ুয়া ও শিক্ষাকর্মীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। 

ইতিমধ্যে টানা লকডাউন আবহে একাধিক স্কুল অনলাইন ক্লাসের ব্যবস্থা করেছিল। সরকারি তরফে তেমন অনুমোদন দেওয়া ছিল। তবে স্কুল ফি নিয়ে একটা বিতর্ক দানা বেঁধেছে। অভিভাবকদের অভিযোগ, স্কুল বন্ধ থাকলেও নানা খাতে টাকা দাবি করেছে কর্তৃপক্ষ। চাওয়া হয়েছে চড়া হারে স্কুল ফি-ও। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে, রাজ্যস্তরে শিক্ষা দপ্তর বেসরকারি স্কুলগুলোককে আবেদন করেছে; ফি মকুবের।

এদিকে; গত মে মাসে এনডিটিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল নিশাঙ্ক বলেছিলেন; সংক্রমণ পরিস্থিতি পর্যালোচনা করেই স্কুল খোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। জুলাই ১-১৫ স্থগিত বোর্ড পরীক্ষাগুলো আয়োজন করা হবে। তারপরে স্কুল খোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

(PTI থেকে সংগৃহীত)