This Article is From Dec 17, 2019

দেশদ্রোহিতা মামলায় মৃত্যুদণ্ড পারভেজ মুশারফের: পাকিস্তান সংবাদমাধ্যম

দেশদ্রোহিতা মামলায় মৃত্যুদণ্ড পারভেজ মুশারফের। রায় দিয়েছে পাকিস্তানের বিশেষ আদালত।

দেশদ্রোহিতা মামলায় মৃত্যুদণ্ড পারভেজ মুশারফের: পাকিস্তান সংবাদমাধ্যম

বিশ্বাসঘাতকতার মামলায় মৃত্যুদণ্ড পারভেজ মুশারফের।

দেশদ্রোহিতার অভিযোগে মামলায় মৃত্যুদণ্ড প্রাক্তন পাক রাষ্ট্রপতি পারভেজ মুশারফের (Pervez Musharraf)। পাকিস্তান (Pakistan) সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানাল সংবাদ সংস্থা এএনআই। এই রায় (Pervez Musharraf Sentenced To Death) দিয়েছে পাকিস্তানের বিশেষ আদালতের তিন সদস্যের বেঞ্চ। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ মুশারফের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার অভিযোগ এনে মামলা করেন। অভিযোগ, ২০০৭ সালে দেশে জরুরি অবস্থায় দায়ের করেছিলেন তিনি। ২০১৩ সাল থেকে মামলাটি ঝুলে ছিল। অবশেষে মঙ্গলবার লাহোরদের বিশেষ আদালত ৭৬ বছরের মুশারফের বিবৃতি রেকর্ডের নির্দেশ দেয় গত ৫ ডিসেম্বর।

২০১৬ সালের মার্চ মাসে চিকিৎসা করাতে পাকিস্তান ছাড়েন তিনি। পরে শারীরিক অবস্থা ও স্বাস্থ্যের কারণ দেখিয়ে আর দেশে ফেরেননি তিনি। গত মার্চে তিনি দুবাইয়ের এক হাসপাতালে ভর্তি হন। মুশারফ বিশেষ আদালতের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে লাহোর হাইকোর্টকে আবেদন করেন, তিনি সুস্থ হয়ে আদালতে হাজিরা দিতে না পারা পর্যন্ত মামলার রায়দান স্থগিত রাখতে। 

বারবার শমন পাঠানোর পরেও প্রাক্তন পাক রাষ্ট্রপতিকে ফেরার ঘোষণা করে আদালত। পাকিস্তানের এফআইএ-কে মুশারফকে গ্রেফতারের নির্দেশ দেয় আদালত।

নওয়াজ শরিফের কন্যা মারিয়াম নওয়াজ জানিয়েছেন, তাঁর বাবার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র শুরু হয় তিনি পারভেজ মুশারফের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার অভিযোগ আনার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর থেকেই।

নওয়াজ শরিফ বর্তমানে লন্ডনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এক দুর্নীতি মামলায় চিকিৎসার কারণে তাঁকে জামিন দেওয়া হয়। ওই মামলায় সাত বছরের জন্য কারাদণ্ডে দণ্ডিত তিনি।

(তথ্যসূত্র: পিটিআই)