পাক আকাশসীমায় ঢুকতে দেওয়া হবে না রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের বিমান: পাকিস্তান

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি এক বিবৃতিতে বলেছেন, “ভারতের আচরণের পরিপ্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।”

পাক আকাশসীমায় ঢুকতে দেওয়া হবে না রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের বিমান: পাকিস্তান

আইসল্যান্ড, সুইজারল্যান্ড ও স্লোভেনিয়া সফরে গিয়েছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ

নয়াদিল্লি:

পাকিস্তানের আকাশপথ দিয়ে বিমানে করে যেতে পারবেন না ভারতের রাষ্ট্রপতি (President Ram Nath Kovind)! ভারতের প্রতিবেশি এই দেশ শনিবার জানিয়েছে যে, দেশের প্রশাসনের তরফে পাক আকাশসীমা দিয়ে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের বিমান চলাচলের অনুমতি প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে। সংবাদ সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, জম্মু ও কাশ্মীর (Jammu and Kashmir) নিয়ে দুই পারমাণবিক অস্ত্রধারী দেশগুলির মধ্যে এক আলোচনার সময় চরম উত্তেজনার মুহূর্তে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি (Pakistani Foreign Minister Shah Mehmood Qureshi) এক বিবৃতিতে বলেছেন, “ভারতের আচরণের পরিপ্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।” ভারতের অবশ্য দাবি যে, জম্মু ও কাশ্মীরের বিষয়ে ভারতের সিদ্ধান্ত কঠোরভাবেই অভ্যন্তরীণ বিষয়, তাতে পাকিস্তানের প্রশ্ন করার অধিকার নেই।

রাম নাথ কোবিন্দ সোমবার থেকে আইসল্যান্ড, সুইজারল্যান্ড এবং স্লোভেনিয়া ত্রিদেশীয় সফরে যাবেন, এই সময়ে তিনি আন্তঃসীমান্ত সন্ত্রাসবাদের মতো বিষয়গুলিতে সেসব দেশের শীর্ষ নেতৃত্বদের সঙ্গেও আলোচনা করবেন বলে আশা করা হচ্ছে। মেহমুদ কুরেশির মতে, কাশ্মীর পরিস্থিতি মাথায় রেখেই দেশের আকাশসীমা ব্যবহারের জন্য রাষ্ট্রপতি কোবিন্দকে অনুমোদন না দেওয়ার সিদ্ধান্তটিকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানই শীলমোহর দিয়েছেন।

ফেব্রুয়ারিতে পুলওয়ামায় সন্ত্রাসী হামলার পর ইসলামাবাদ ও নয়াদিল্লির মধ্যে উত্তেজনা ছড়ানোয় পাকিস্তান ভারতীয় বিমান চলাচলের জন্য পাকিস্তানের আকাশসীমা বন্ধ করে দেয়। যদিও, জুলাই মাসে আকাশপথ আবার খুলে দেওয়া হয়। কয়েক মাসের বিধিনিষেধের ফলে আন্তর্জাতিক বিমান চলাচলে ব্যাপক প্রভাব পড়ে।

রাষ্ট্রপতি কোবিন্দ প্রথম ৯ সেপ্টেম্বর আইসল্যান্ডে পৌঁছবেন, সেখানে তিনি আইসল্যান্ডের রাষ্ট্রপতি গুডনি জোহেনসন এবং প্রধানমন্ত্রী ক্যাটরিন জ্যাকোবসডোটিয়ারের সঙ্গে আলোচনা করবেন। এরপরে তিনি ১১ থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর সুইজারল্যান্ডে যাবেন এবং সুইস রাষ্ট্রপতি ইউলি মুরার ও সুইস মন্ত্রিসভার সদস্যদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন।

Newsbeep

রাষ্ট্রপতি কোবিন্দের এই সফরের আগে, সুইস সরকার এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে যে, দেশের নেতৃত্বের সঙ্গে তাঁর আলাপচারিতার সময় কাশ্মীর পরিস্থিতিও আলোচ্য বিষয়গুলির মধ্যে থাকবে।