This Article is From Jul 16, 2019

আকাশপথ খুলে দিল পাকিস্তান, বালাকোট হামলার পর থেকে বায়ুপথ বন্ধ রাখে তাঁরা

এর ফলে সুবিধা হল ভারতীয় বিমানসংস্থাগুলির, কেননা পাকিস্তানের আকাশপথ বন্ধ থাকার কারণে আন্তর্জাতিক বিমানগুলিকে ঘুরপথে নিয়ে যেতে হচ্ছিল তাঁদের

আকাশপথ খুলে দিল পাকিস্তান, এর ফলে সুবিধা হল ভারতীয় বিমানসংস্থাগুলির

হাইলাইটস

  • গত ২৬ ফেব্রুয়ারি নিজেদের আকাশপথ পুরোপুরি বন্ধ করে দেয় পাকিস্তান
  • মঙ্গলবার সকালেই সমস্ত অসামরিক বিমান পরিবহনের জন্যে আকাশপথ খুলে দেয় তাঁরা
  • ১১ ফেব্রুয়ারি থেকে মাত্র ২টি আকাশপথ খুলে রেখেছিল পাকিস্তান
নয়া দিল্লি:

মঙ্গলবার সকালে ভারতের সমস্ত অসামরিক বিমান যাতায়াতের জন্যে নিজেদের আকাশপথ উন্মুক্ত (Pakistan Opens Airspace) করে দিল পাকিস্তান। গত ফেব্রুয়ারিতে বালাকোটে (Balakot air strikes) ভারতের বায়ুসেনার হামলা চালানোর পর থেকে ভারতীয় বিমানগুলির (Air India) জন্যে নিজেদের আকাশপথ বন্ধ রেখেছিল ইমরান খানের দেশ। এই সিদ্ধান্তের ফলে ভারতীয় বিমানসংস্থাগুলির সুবিধা হল, কেননা পাকিস্তানের আকাশপথ (Pak Airspace) বন্ধ থাকার কারণে আন্তর্জাতিক বিমানগুলিকে ঘুরপথে নিয়ে যেতে হচ্ছিল তাঁদের। আধিকারিকরা জানান, “পাকিস্তানের বিমান সংস্থাগুলি সোমবার রাত ১২ টা ৪১ মিনিট থেকেই তাঁদের আকাশপথ (Pak Airspace opened) ব্যবহার করে উড়ানের অনুমতি দিয়েছে। ফলে ভারতীয় বিমান সংস্থাগুলি খুব তাড়াতাড়ি পাকিস্তানের আকাশপথের মাধ্যমে স্বাভাবিক রুট ব্যবহার শুরু করবে”।

কোন কোন মন্ত্রী সংসদে অনুপস্থিত তার তালিকা চাইলেন প্রধানমন্ত্রী: সূত্র

পাকিস্তানের অসামরিক বিমান পরিবহন সংস্থার তরফে রাত ১২:৪১ মিনিট নাগাদ একটি নোটিস জারি করে বলা হয়, "এটিএস (বিমান ট্রাফিক পরিষেবা) অনুযায়ী অবিলম্বে পাকিস্তানের আকাশপথ সবধরণের অসামরিক বিমান যাতায়াতের জন্যে খুলে দেওয়া হচ্ছে"। গত ২৬ ফেব্রুয়ারি ভারতীয় বিমান বাহিনী (আইএএফ) বালাকোটে জইশ-ই-মহম্মদ জঙ্গিগোষ্ঠীর প্রশিক্ষণ ক্যাম্পে হামলা চালানোর পরেই নিজেদের আকাশপথ ভারতীয় বিমানগুলির ব্যবহারের জন্যে বন্ধ করে দেয় পাকিস্তান। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামা হামলার প্রতিবাদেই পালটা বালাকোট হামলা চালায় ভারতীয় বায়ু সেনা।

তারপর থেকেই,  শুধুমাত্র দক্ষিণ অঞ্চলে যাতায়াতের জন্যে দুটি আকাশপথ খোলা রেখেছিল প্রতিবেশী দেশটি।

গত ৩১ মে আইএএফ ঘোষণা করে যে বালাকোট পর থেকে ভারতীয় বিমানের উপর যে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল পাকিস্তান তাঁর সবটাই তুলে নিয়ে তাঁদের আকাশপথ আংশিক খুলে দেওয়া হয়েছে। তবে পাকিস্তানের আকাশপথ সম্পূর্ণ খুলে দেওয়ার ঘোষণার জন্যেই অপেক্ষা করছিল বাণিজ্যিক বিমানসংস্থাগুলি। পাকিস্তানের সাম্প্রতিক ঘোষণায় তাই মুখে হাসি ফুটল তাঁদের।

Partial Lunar Eclipse 2019: জেনে নিন আজকের চন্দ্রগ্রহণ সম্পর্কে বিশদ সব তথ্য

বিমান হামলার পর থেকেই,  ইউরোপীয় ও মার্কিন শহরগুলির সঙ্গে ভারতকে সংযুক্ত করে এমন অনেক আন্তর্জাতিক বিমানকে ঘুরপথে চালাতে হচ্ছিল, কতগুলিকে সাময়িকভাবে স্থগিতও করা হয়েছিল।

পাকিস্তানি আকাশপথ বন্ধ হওয়ার কারণে গত ২ জুলাই পর্যন্ত দেশের জাতীয় বিমানসংস্থাটির ক্ষতি হয়েছে ৪৯১ কোটি টাকা। বেসরকারি বিমান সংস্থা স্পাইসজেট, ইন্ডিগো ও গো এয়ার যথাক্রমে ৩০.৭৩ কোটি, ২৫.১ কোটি এবং ২.১ কোটি টাকার ক্ষতির সম্মুখিন হয়েছে। গত ৩ জুলাই রাজ্যসভায় অসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রী হরদীপ সিং এক পরিসংখ্যান দিয়ে জানান এ কথা।