পাকিস্তান আগে সন্ত্রাস থামাক তারপর কথা, চিনের রাষ্ট্রপতি শি জিনপিংকে জানালেন নরেন্দ্র মোদী

শি জিনপিং পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গেও দেখা করতে পারেন। ইমরানও ওই শীর্ষ বৈঠকে যোগ দিতে সেদেশে গিয়েছেন।

পাকিস্তান আগে সন্ত্রাস থামাক তারপর কথা, চিনের রাষ্ট্রপতি শি জিনপিংকে জানালেন নরেন্দ্র মোদী

আজ চি‌নের রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং-এর সঙ্গে আলোচনায় বসেন মোদী।

হাইলাইটস

  • চি‌নের রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং-এর সঙ্গে আলোচনায় বসেন মোদী।
  • সন্ত্রাস না বন্ধ করলে পাকিস্তানের সঙ্গে কথা বলবে না ভারত।
  • চিনকে আজ সেকথা জানান মোদী।
বিশকেক:

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) আবারও জানালেন পাকিস্তান (Pakistan) যতদিন না সন্ত্রাসের (Terror) বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করছে ততদিন তাদের সঙ্গে কোনও আলোচনা নয়। নয়াদিল্লির বক্তব্য, সন্ত্রাস ও আলোচনা একসঙ্গে চলতে পারে না। পুলওয়ামা হামলার পর থেকেই এই বক্তব্য আরও জোরালো হয়েছে। বিদেশ মন্ত্রক জানিয়েছে, আজ চি‌নের রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং-এর সঙ্গে আলোচনার সময়ও মোদী সেই বিষয়টি উত্থাপন করেছেন। সাংহাই কো অপারেশন অর্গানাইজেশনের (SCO) শীর্ষ বৈঠকের ফাঁকে আজ মি‌লিত হন দুই প্রতিবেশী দেশের রাষ্ট্রনেতারা। বিদেশ সচিব জানিয়েছেন, আজ মোদী চিনের রাষ্ট্রপতিকে জানান, ‘‘সন্ত্রাসমুক্ত এক পরিমণ্ডল তৈরি করা প্রয়োজন পাকিস্তানের। কিন্তু এই মুহূর্তে তেমন কিছু ঘটতে দেখছি ন‌া। আমরা আশাবাদী ইসলামাবাদ কড়া ব্যবস্থা নিক।''

মমতার বিরুদ্ধে তোপ, স্বাস্থ্যমন্ত্রী থেকে পদত্যাগের দাবি বিরোধীদের

চিন পাকিস্তানের কৌশলী সঙ্গী। তারা সেদেশের পরিকাঠামোগত প্রজেক্টে বিনিয়োগ করে। শি জিনপিং পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গেও দেখা করতে পারেন। ইমরানও ওই শীর্ষ বৈঠকে যোগ দিতে সেদেশে গিয়েছেন।

এই বৈঠকের আগেই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ও বিদেশ মন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি দ্বিপাক্ষিক কথোপকথনের ব্যাপারে অনুরোধ করে চিঠি লেখেন। ইমরান মোদীকে লেখেন, তিনি সব ব্যাপারে কথা বল‌তে ইচ্ছুক। এমনকী কাশ্মীর নিয়েও।

'নানার বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার প্রমাণ নেই'; "জানতাম", বললেন তনুশ্রী

কিন্তু এই শীর্ষ বৈঠকে ইমরান খানের সঙ্গে নরেন্দ্র মোদীর কোনও দ্বিপাক্ষিক সাক্ষাতের সম্ভাবনা নেই। হলে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পরে এই প্রথম ইমরান মুখোমুখি হতেন মোদীর।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি জম্মু ও কাশ্মীরের পুলওয়ামায় জঙ্গি হানায় ৪০ জন সেনার মৃত্যু হলে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার ব্যাপারে চাপ বাড়িয়েছে ভারত।

মাসুদ আজহারকে জঙ্গি ঘোষণায় জাতিসংঘকে বাধা দেওয়া থেকে চিন বিরত হওয়ার পরে ভারত নৈতিক জয় পেয়েছে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে। মার্কিন য়ুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন ও ফ্রান্সের পরে বেজিংও এ ব্যাপারে আর কোনও বাধা না দেওয়ার কথা জানিয়েছে।

বুধবার সন্ধেয় কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়, মোদী কিরগিজস্তানে যাওয়ার সময় পাকিস্তানের উপর দিয়ে যাবেন না। ইসলামাবাদ অবশ্য জানিয়েছিল, তারা সব দেশের ভিভিআইপির জন্য তাদের দ্বার অবারিত। প্রসঙ্গত, ফেব্রুয়ারিতে বালাকোটের বিমান হানার পরে পাকিস্তান অন্য দেশের জন্য তাদের বায়ুপথ বন্ধ করে দিয়েছিল।

আজ সকালে বিশকেকে যাওয়ার জন্য অন্য পথ ধরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিমান।

More News