"পাকিস্তানের অবশ্যই প্রতিশোধমূলক আগ্রাসন থেকে বিরত থাকা উচিত": বলল আমেরিকা

"পাকিস্তানকে নিয়ন্ত্রণ রেখা পেরিয়ে অনুপ্রবেশের ঘটনার সমর্থন করা সহ যে কোনও ধরণের প্রতিশোধমূলক আগ্রাসন থেকে বিরত থাকতে হবে ..." যৌথ বিবৃতি ২ মার্কিন আইনপ্রণেতার

জম্মু ও কাশ্মীর ভারতের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ, স্পষ্ট জানিয়েছে ভারত, সীমান্তে জোরদার নিরাপত্তা

হাইলাইটস

  • পাকিস্তানকে "প্রতিশোধমূলক আক্রমণ" থেকে বিরত থাকার আহ্বান আমেরিকার
  • ভারতীয় রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার, কাশ্মীর নিয়ে বাণিজ্য বন্ধ করেছে পাকিস্তান
  • জম্মু ও কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা রদের পরেই পাকিস্তানের ওই পদক্ষেপ
ওয়াশিংটন:

জম্মু ও কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা রদের সিদ্ধান্তে আঁচ পড়েছে ভারত-পাকিস্তান (India-Pakistan) সম্পর্কেও। তবে সম্পর্ক আরও ঘোরালো হয়ে ওঠার আগেই আমেরিকার দুই শীর্ষ আইন প্রণেতা পাকিস্তানকে (US on Pakistan) ভারতের বিরুদ্ধে যে কোনও ‘প্রতিশোধমূলক আগ্রাসন' (Retaliatory Aggression) থেকে বিরত থাকতে এবং পাক ভূখণ্ডের অভ্যন্তরে সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠীগুলির বিরুদ্ধে “প্রদর্শনযোগ্য ব্যবস্থা” নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। বুধবার পাকিস্তান ভারতের হাই কমিশনার অজয় বিসারিয়াকে বহিষ্কার করে এবং জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রত্যাহারের বিষয়ে নয়াদিল্লির সিদ্ধান্তকে "একতরফা ও অবৈধ" পদক্ষেপ বলে অভিহিত করে ভারতের সঙ্গে নিজেদের কূটনৈতিক সম্পর্ক হ্রাস করেছে।

বুধবার আমেরিকার হাউস ফরেন অ্যাফেয়ার্স কমিটির সেনেটর রবার্ট মেনেনডেজ (Robert Menendez) এবং কংগ্রেস সদস্য ইলিয়ট এঙ্গেলও (Eliot Engel) জম্মু ও কাশ্মীরের বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

রবার্ট মেনেনডেজ সেনেটর বিদেশ সম্পর্ক কমিটির র‌্যাঙ্কিং সদস্য এবং ইলিয়ট এঙ্গেল হাউসের বিদেশ বিষয়ক কমিটির চেয়ারম্যান।

তাঁরা যৌথ বিবৃতিতে বলেছে, "পাকিস্তানকে নিয়ন্ত্রণ রেখা পেরিয়ে অনুপ্রবেশের ঘটনাগুলির সমর্থন সহ যে কোনও প্রতিশোধমূলক আগ্রাসন থেকে বিরত থাকতে হবে এবং পাকিস্তানের মাটিতে সন্ত্রাসবাদী পরিকাঠামোর বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে হবে।"

মার্কিন ওই দুই আইন প্রণেতা আরও বলেন যে,"বিশ্বের বৃহত্তম গণতন্ত্র হিসাবে, ভারতের সকল নাগরিকের পক্ষে সমাবেশের স্বাধীনতা, তথ্য জানার অধিকার এবং আইনের আওতায় সুরক্ষা সহ সমান অধিকার সংরক্ষণ এবং প্রচারের গুরুত্ব প্রদর্শন করার সুযোগ রয়েছে।"

"স্বচ্ছতা এবং রাজনৈতিক অংশগ্রহণ সংক্রান্ত প্রতিনিধিত্ব করা একটি গণতন্ত্রের ভিত্তি, এবং আমরা আশা করি যে ভারত সরকার জম্মু ও কাশ্মীরে এই নীতিগুলি মেনে চলবে," বলেন রবার্ট মেনেনডেজ (Robert Menendez) এবং ইলিয়ট এঙ্গেল (Eliot Engel) ।

সম্প্রতি ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদের অধীনে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের একটি প্রস্তাব এবং ওই রাজ্যকে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল - জম্মু ও কাশ্মীর এবং লাদাখ-এ বিভক্ত করার প্রস্তাবে মঙ্গলবার অনুমোদন দিয়েছে দেশের সংসদ ।

জম্মু ও কাশ্মীর ভারতের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ, স্পষ্ট জানিয়েছে ভারত, এর সঙ্গে সঙ্গে ভারত-পাকিস্তান (India-Pakistan) সীমান্তেও জোরদার করা হয়েছে নিরাপত্তা। পাশাপাশি জম্মু ও কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা রদের সিদ্ধান্তটি পুরোপুরি ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে মোদি সরকারের বিদেশমন্ত্রক।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)
More News